TikTok থেকে WhatApp, সারা বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হয়েছে এই দশটি অ্যাপ

Sensor Tower গত মাসে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া ১০টি অ্যাপের তালিকা প্রকাশ করেছে

10-most-downloaded-apps-in-the-world-in-october

অ্যাপ ছাড়া অ্যান্ড্রয়েড ফোন! সে আবার হয় নাকি? সত্যি, অ্যাপ ছাড়া অ্যান্ড্রয়েড ফোনের কথা আমরা ভাবতেই পারি না। মোবাইল ফোনে অ্যাপের ব্যবহার এখন আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গী হয়ে উঠেছে। আমাদের স্মার্টফোনে আমরা বিভিন্ন ধরনের অ্যাপ ডাউনলোড করি, আবার কিছু কিছু অ্যাপ আগে থেকেই ফোনে ইন্সটল করা থাকে। কিন্তু কখনও কি ভেবে দেখেছেন, আপনার ব্যবহৃত অ্যাপসগুলির মধ্যে কোনটি সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়, ডাউনলোডের দিক থেকে কে সবার চেয়ে এগিয়ে? সম্প্রতি Sensor Tower গত মাসে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া অ্যাপের তালিকা প্রকাশ করেছে। চলুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক অক্টোবরে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া অ্যাপগুলির নাম।

TikTok

নন গেমিং ক্যাটাগরিতে সবচেয়ে বেশি ডাউনলোড হওয়া অ্যাপগুলির মধ্যে প্রথমেই রয়েছে টিকটকের নাম। আমরা সবাই জানি, টিকটক হল একটি ভিডিও অ্যাপ। এতে মিউজিক ও ডায়লগ দিয়ে আপনি ১৫ সেকেন্ডের ছোট ভিডিও তৈরি করতে পারবেন।

Instagram

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইনস্টাগ্রাম। ফেসবুকের মালিকানাধীন ইনস্টাগ্রাম একটি সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং অ্যাপ। এতে আপনি নিজের ফটো,ভিডিও এবং স্টোরি শেয়ার করতে পারেন। এছাড়া বিভিন্ন মিম ও মেসেজ শেয়ার করা যায় ইনস্টাগ্রামে।

Facebook

ফেসবুক অ্যাপের নাম রয়েছে এই তালিকার তৃতীয় স্থানে। এটি বহুল জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং অ্যাপ। যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই বন্ধু এবং পরিবার পরিজনের সাথে যোগাযোগ রাখতে পারেন। এছাড়া ফেসবুকের মাধ্যমে আপনি আপনার ফটো এবং ভিডিও শেয়ার করতে পারেন।

WhatsApp

তালিকার চতুর্থ স্থানে নাম রয়েছে হোয়াটসঅ্যাপের। এটি একটি জনপ্রিয় ইন্সট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপ। এর মাধ্যমে মেসেজ আদান-প্রদান ছাড়াও আপনি ভয়েস ও ভিডিও কলিং করতে পারবেন।

Telegram

হোয়াটসঅ্যাপের পর নাম রয়েছে টেলিগ্রামের। এটি একটি ক্লাউড বেসড ইন্সট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপ। এর মাধ্যমে আপনি আনলিমিটেড মিডিয়া এবং ফাইল আদান প্রদান করতে পারেন। এছাড়া এতে ভিডিও এবং ফটো এডিটিং এর সুযোগ সুবিধাও রয়েছে।

Snapchat

তালিকার ষষ্ঠ স্থানে স্ন্যাপচ্যাটের নাম রয়েছে। এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি পরিবার পরিজন এবং বন্ধুদের মধ্যে আপনার মজার ভিডিও শেয়ার করতে পারবেন। এতে তৎক্ষণাৎ ফটো ও ভিডিও তুলে সেইগুলো শেয়ার করা যায়। সেইসঙ্গে আপনার ভিডিওতে আপনি চাইলে লেন্স ফিল্টার ব্যবহার করতে পারেন।

Facebook Messenger

ফেসবুক মেসেঞ্জার রয়েছে তালিকার সপ্তমে। এটি একটি অল ইন ওয়ান কমিউনিকেশন অ্যাপ, যার মাধ্যমে আপনি আনলিমিটেড টেক্সট মেসেজ এবং ভিডিও মেসেজ আদান-প্রদান করতে পারেন। আপনি চাইলে ইনস্টাগ্রামের বন্ধুদেরও ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে মেসেজ পাঠাতে পারেন।

Meesho

জনপ্রিয় শপিং অ্যাপ মিসো রয়েছে এই তালিকার অষ্টম স্থানে। এটি একটি অনলাইন শপিং অ্যাপ। যার মাধ্যমে আপনি হোলসেল রেটে আপনার পছন্দের প্রোডাক্ট কিনতে পারেন। এই অ্যাপটি প্রথমবার ব্যবহার করলে আপনি ৩০% ছাড় এবং ফ্রি হোম ডেলিভারি সুযোগও পাবেন। তবে শুধুমাত্র কেনাই নয়, এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি চাইলে নিজস্ব ব্যবসাও শুরু করতে পারেন।

Spotify

স্পটিফাই অ্যাপটি রয়েছে তালিকার নবম স্থানে। এটি একটি মিউজিক স্ট্রিমিং অ্যাপ। যার মাধ্যমে আপনি আপনার পছন্দের গান শুনতে পারবেন। আপনি চাইলে আপনার নিজের গাওয়া গানও এই প্ল্যাটফর্মে শেয়ার করতে পারেন।

CapCat

এই তালিকার সবশেষে রয়েছে ক্যাপক্যাটের নাম। ক্যাপক্যাট হল একটি অল ইন ওয়ান ভিডিও এডিটিং অ্যাপ। এতে একটি এডভান্স ফিল্টার রয়েছে, যার মাধ্যমে ভিডিওতে অনেক নতুন ধরনের এফেক্ট দেওয়া যায়। সেইসঙ্গে এর মিউজিক লাইব্রেরীও যথেষ্ট সমৃদ্ধ। আপনার পছন্দের প্রচুর গানের ভান্ডার পাবেন এখানে।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।