বুকিং শুরু 2021 KTM RC 390 সুপারস্পোর্ট বাইকের, দাম কত হবে জেনে নিন

2021-ktm-rc-390-booking-starts-ahead-of-launch-in-india
Photo Credit: Indian Autos Blog

2021 KTM RC 390 Booking Start: ২০১৩ সালে প্রথম লঞ্চ, তারপর থেকে আজ পর্যন্ত KTM-এর ফুল ফেয়ার্ড মোটরসাইকেল RC 390 তেমন মেকওভার পায়নি। তবে টেস্ট রাইড নেওয়ার সময় RC 390-এর 2021 ভার্সনের ক্যামেরাবন্দী ছবি দেখে ভারত সহ বিশ্বজুড়ে KTM প্রেমীদের আনন্দিত হওয়ার যথেষ্ট কারণ ছিল। কারণ 2021 RC 390-এ নতুন ফেয়ারিং, অ্যালয়, ভাইসর, হেডল্যাম্প, সাব-ফ্রেমের মতো গুরুত্বপূর্ণ আপগ্রেডগুলি স্পাই ছবির মাধ্যমে প্রকাশ্যে আসে। যা বাইকটির বড়সড় পরিবর্তনের দিকেই ইঙ্গিত দিয়েছিল। যদিও বাইকটি এখনও লঞ্চ হয়নি, তবে ভারতে KTM-এর কয়েকজন ডিলার আনঅফিসিয়াল ভাবে এর অগ্রিম বুকিং চালু করে দিয়েছেন।

ডিলারের ওপর ভিত্তি করে বুকিং খরচ একটু কম-বেশি হচ্ছে। বুকিং করার জন্য কোনও ডিলার ১০,০০০ টাকা পর্যন্ত নিচ্ছেন বলে জানা গিয়েছে। উল্লেখ্য, গত মাসেই RC 390-এর বর্তমান জেনারেশনের মডেল KTM-এর ওয়েবসাইট থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিল।তারপর বাইকটির নতুন ভার্সনের লঞ্চ আসন্ন বলে জল্পনা শুরু হয়। যদিও কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে KTM লঞ্চের পরিকল্পনা পিছিয়ে দিয়েছিল বলে আমরা অনুমান করছি।

আমাদের বিশ্বাস KTM আর এক মাসের মধ্যেই 2021 RC 390 সুপারস্পোর্টস বাইক অফিসিয়ালি বাজারে আনতে চলেছে। প্রত্যাশিত আপডেটগুলির কথা বিবেচনা করলে, এর দাম ১০ হাজার থেকে ১৫ হাজার টাকা পর্যন্ত বাড়তে পারে। প্রসঙ্গত, বর্তমানে KTM RC 390 বাইকের দিল্লির এক্স-শোরুম দাম ২.৬৬ লক্ষ টাকা।

দাম বৃদ্ধিকে ন্যায়সঙ্গত করতে, কেটিএম আরসি ৩৯০ বাইকে অনেক ক্ষেত্রেই সংশোধিত হবে। বাইকের ডিজাইন এবং আর্গোনমিক্স বিদায়ী মডেলের চেয়ে কম অ্যাগ্রেসিভ ও স্পোর্টি হবে। কুইকশিফটার, ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, ট্রাকশন কন্ট্রোল সিস্টেম ২০২১ কেটিএম আরসি ৩৯০ বাইকে যোগ হবে বলে আশা করা যায়।

লঞ্চ হওয়া পর ভারতে ২০২১ কেটিএম আরসি ৩৯০ বাইক প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে টিভিএস অ্যাপাচি আরআর ৩১০-কে পাবে।সাব-৩০০ সিসি-র ইঞ্জিন ক্যাপাসিটির সবচেয়ে বেশি ফিচারযুক্ত এই স্পোর্টস বাইকটির নতুন ভার্সন আবার খুব তাড়াতাড়িই লঞ্চ হওয়ার কথা রয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷