সাবধান! ২৮ টি জনপ্রিয় অ্যান্টিভাইরাসে খুঁজে পাওয়া গেল সিকিউরিটি বাগ

28-popular-antivirus-affected-by-symlink-race-bugs

সাধারণত আমরা কম্পিউটার বা ল্যাপটপের সুরক্ষার জন্য অ্যান্টিভাইরাস সফটওয়্যার ব্যবহার করে থাকি। তবে স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে এটি কম ব্যবহার করা হয়। খুব কম লোকই স্মার্টফোনে অ্যান্টিভাইরাস ব্যবহার করেন। অনেক সময় অ্যান্টিভাইরাস অ্যাপগুলিতে ম্যালওয়্যার এবং ভাইরাসও পাওয়া যায়। অনেক সময় ডিভাইসের সিস্টেমে থাকা অ্যান্টিভাইরাসেও ম্যালওয়্যার খুঁজে পাওয়া যায়। এবারও তেমন ঘটনা সামনে এল।

RACK911 ল্যাবস তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে যে, ২৮ টি জনপ্রিয় অ্যান্টিভাইরাস অ্যাপে একটি বড় সিকিউরিটি বাগ রয়েছে, যার সাহায্যে হ্যাকাররা অ্যান্টিভাইরাস অ্যাপকে সেলফ ডেস্ট্রাট অর্থাৎ নিজেকে ধ্বংস হওয়ার দিকে ঠেলে দিতে পারে। এই সিকিউরিটি বাগ অ্যাভাস্ট, এভিজি, বিটডিফেন্ডার এবং নরটেলের মতো অ্যান্টিভাইরাস অ্যাপে পাওয়া গেছে। যদিও বাকি অ্যান্টিভাইরাসের নাম জানানো হয়নি। এই বাগটির নাম দেওয়া হয়েছে সিমলিংক রেস (symlink race) ।

RACK911 তাদের প্রতিবেদনে বলেছে যে, এই বাগের সুবিধা নিয়ে হ্যাকাররা অ্যান্টিভাইরাস দ্বারা স্ক্যান করা ফাইলগুলি মুছতে পারে। এছাড়াও সিস্টেমের অন্য কোনও ফাইলও মুছে ফেলা সম্ভব। আবার এই বাগ এর কারণে কম্পিউটারটি ক্র্যাশও হতে পারে। লিনাক্স, ম্যাক এবং উইন্ডোজ এই বাগ দ্বারা প্রভাবিত হবে।

অ্যান্টিভাইরাসের কাজ কি :

আপনাকে জানিয়ে রাখি যে কোনও ডিভাইসে উপলব্ধ অ্যান্টিভাইরাসের কাজ হল, সেই সিস্টেমে আসা যে কোনও ফাইলকে স্ক্যান করা এবং তাতে ভাইরাস আছে কিনা পরীক্ষা করা। উদাহরণস্বরূপ, আপনি যখনই আপনার সিস্টেমে কোনও ফাইল ডাউনলোড করবে বা পেনড্রাইভ ব্যবহার করবেন, আপনার সিস্টেমে উপলব্ধ অ্যান্টিভাইরাস প্রথমে পেনড্রাইভের ফাইল বা ডাউনলোড হওয়া ফাইল কে স্ক্যান করবে। এর পরে আপনি ফাইলটি খুলতে পারবেন।