5G স্মার্টফোনের সরবরাহে জোয়ার, অতিমারির মধ্যেও তৈরী হচ্ছে নতুন বাজার

IDC তাদের রিপোর্টে দাবি করেছে 5G, স্মার্টফোন বিক্রির ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিচ্ছে

5G smartphones shipment growth as new market show recovery idc report

প্যান্ডেমিকের ভ্রূকুটি সত্ত্বেও স্মার্টফোন প্রস্তুতকারকদের পক্ষে সময়টা মন্দ যাচ্ছে না। বিশেষ করে 5G পরিষেবার উত্থান স্মার্টফোন বিক্রির বাজারকে অনেকটাই চাঙ্গা করে তুলেছে। আমরা নই, বরং তথ্য সংগ্রহ যাদের কাজ সেই আইডিসি (IDC) খোদ এমন পরিসংখ্যান পেশ করেছে, যেখানে আগামী বছরগুলিতে স্মার্টফোন বিক্রি ও সরবরাহ বৃদ্ধির সুস্পষ্ট ইঙ্গিত রয়েছে। এই বৃদ্ধি এতটাই আশাজনক যে তা ২০১৯ সাল অর্থাৎ অতিমারি-পূর্ব বাজারের নিরিখে বেশী লাভের আভাস দিচ্ছে। ফলে আলোচ্য পরিসংখ্যান সামনে আসতেই স্মার্টফোন উৎপাদনকারীদের মুখে এখন চওড়া হাসির ঝলক!

২০২১-২০২৩: স্মার্টফোন সরবরাহ ঠিক কতখানি বাড়তে পারে?

কি বলছে আইডিসি’র হিসেব? আগামী কয়েক বছরের মধ্যে স্মার্টফোন উৎপাদন এবং সরবরাহের ঠিক কতটা বৃদ্ধি দেখা যাবে? সমীক্ষাকারী দলের মতে বর্তমান বছরে বৃদ্ধির পরিমাণ ৭.৪ শতাংশ স্পর্শ করবে। ২০২২ সালে এই বৃদ্ধি আরো ৩.৪ শতাংশ বাড়বে। পরের বছরেও ঠিক একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটতে দেখা যাবে। এর ফলে আইওএস (iOS) ও অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস চালান বাবদ যথাক্রমে ১৩.৮ ও ৬.২ শতাংশ চালান বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। এক্ষেত্রে 5G স্মার্টফোন বিক্রি সবথেকে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিতে পারে বলে আইডিসি’র দাবী।

বাড়ছে স্মার্টফোন বিক্রি ও সরবরাহ, তৈরী হচ্ছে নতুন বাজার

অতিমারির প্রভাবে বিশ্ববাজারে স্মার্টফোন ব্যবসার চালচিত্র পুরোপুরি বদলে গিয়েছে। বর্তমানে বিশ্বের সবথেকে বেশি স্মার্টফোন সরবরাহকারীদের তালিকায় নতুন কিছু দেশ উপরে উঠে আসছে। বিশেষ করে চীন, ইউএসএ (USA) ও পশ্চিম ইউরোপের ব্যবসায় পতন হলেও, ভারত, জাপান, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকায় উল্লেখযোগ্য বাজার সম্প্রসারণ লক্ষ্য করা গিয়েছে।

২০২০ সালে অতিমারি প্রাথমিকভাবে বাজারের উপরে আঘাত নামিয়ে আনলেও, স্মার্টফোন প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলি তাদের উৎপাদন বজায় রেখেছে। ফলে সময় অতিবাহিত হওয়ার সাথে সাথে তারা ব্যাবসায়িক পতন রোধ করতে সক্ষম হয়েছে বলে আইডিসি’র কর্তা ও সমীক্ষাকারী দলের বক্তব্য।

আগামী দিনেও 5G পরিষেবাকে কেন্দ্র করে বাজার সম্প্রসারণের আরো অনেক সম্ভাবনা তৈরী হবে বলে আমাদের অনুমান। 5G প্রযুক্তি ডিভাইসের গড় বিক্রয় মূল্য আগের থেকে অনেকটাই বাড়াবে। ২০২১ সালে যেখানে 5G স্মার্টফোনের গড় বিক্রয়মূল্য ৬৩২ ডলার ছিলো, বর্তমান বছরে তা বেড়ে ৬৩৪ ডলারে পৌঁছেছে। অন্যদিকে 4G ডিভাইসের দামে চোখে পড়ছে উল্লেখযোগ্য পতন। গতবছরের তুলনায় তাদের গড় বিক্রয়মূল্য ৩০ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে!

আইডিসি’র পরিসংখ্যান অনুযায়ী বর্তমানে 5G স্মার্টফোন বাজারের ৪৭.১ শতাংশ শেয়ার দখল করে প্রথম অবস্থানে রয়েছে। অন্যদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ভারত ও জাপানের দখলে রয়েছে যথাক্রমে ১৬, ৬.১ এবং ৪.১ শতাংশ বাজার শেয়ার।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020