মানের বিচারে আরোগ্য সেতুকে ৫ এর মধ্যে ২ দিল মার্কিন ইনস্টিটিউট MIT

সম্প্রতি আমেরিকার ম্যাসাচুসেট্‌স ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি (MIT) ভারতের আরোগ্য সেতু অ্যাপ্লিকেশনের রিভিউ দিতে গিয়ে ৫-র মধ্যে ২ রেটিং দিয়েছে। এম আই টি এই অ্যাপ্লিকেশনটির তুলনা বিশ্বের ২৫টি অন্যান্য দেশের করোনাভাইরাস অ্যাপের সঙ্গে করেছে। সারা বিশ্বের কন্ট্যাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ্লিকেশনগুলির তুলনা করতে গিয়ে প্রয়োগ বাস্তবায়ন, ডেটা হ্যান্ডলিং, গোপনীয়তা এবং স্বচ্ছতার সাথে সম্পর্কিত পদ্ধতিগুলি বিবেচনায় নেওয়া হয়েছিল।

• অ্যাপ্লিকেশন মূল্যায়নের পাঁচটি মাপকাঠি-

এই সমস্ত অ্যাপ্লিকেশন মূল্যায়ন করা হয়েছিল পাঁচটি প্রশ্নের উপর ভিত্তি করে। এই মাপকাঠিগুলি ছিল অ্যাপ্লিকেশনটির বাধ্যতামূলক হওয়া, ডেটা ব্যবহারের সীমাবদ্ধতা, সময়মতো সংগৃহীত ডেটা মুছে ফেলা, ডেটা ব্যবহারের পরিমাণ এবং অ্যাপ্লিকেশনটির সাথে সম্পর্কিত স্বচ্ছতা। শুধুমাত্র যে দুটি মাপকাঠিতে ভারতের আরোগ্য সেতু অ্যাপ্লিকেশনটি উত্তীর্ণ হতে পেরেছে সেগুলি হল সময় সময় ব্যবহারকারীদের ডেটা মুছে ফেলা এবং প্রয়োজনীয় ডেটা ব্যবহারের পরিমাণ। বাকি তিনটি মাপকাঠিতে এটি উত্তীর্ণ হতে পারেনি তাই এই অ্যাপ্লিকেশনটি ৫-র মধ্যে মাত্র ২ রেটিং পেয়েছে।

• সিঙ্গাপুর এবং অস্ট্রেলিয়া সহ সাতটি দেশের অ্যাপ্লিকেশন পেয়েছে ৫ রেটিং-

যে দেশগুলির করোনাভাইরাস অ্যাপ্লিকেশন পাঁচের মধ্যে পাঁচ রেটিং পেয়েছে সেগুলি হল সিঙ্গাপুর, অস্ট্রেলিয়া, নরওয়ে, ইজরায়েল, চেকপ্রজাতন্ত্র, আইসল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়া। চীনের অ্যাপ্লিকেশনটি একটি মাপকাঠিতেও উত্তীর্ণ হতে পারেনি। অন্যদিকে ফ্রান্স, আয়ারল্যান্ড এবং ইরানের অ্যাপ্লিকেশন কেবলমাত্র একটি মাপকাঠিতে উত্তীর্ণ হতে পেরেছে।

• গুগল প্লে স্টোরে রয়েছে ৪.৫ রেটিং-

গুগল প্লে স্টোরে আরোগ্য সেতু অ্যাপ্লিকেশনটি ৫-র মধ্যে ৪.৫ রেটিং পেয়েছে। অন্যদিকে অ্যাপেলের অ্যাপ স্টোরে আরোগ্য সেতুর অ্যাপ্রুভাল রেটিং ৪.২। ভারতে বর্তমানে এই অ্যাপ্লিকেশনের প্রায় ১০ কোটি ব্যবহারকারী রয়েছেন।

• আরোগ্য সেতু অ্যাপ্লিকেশনের ব্যাপারে কিছু কথা-

ভারত সরকার এই অ্যাপ্লিকেশনটি ভারতের মানুষকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এবং তার থেকে সুরক্ষার বিভিন্ন পদ্ধতি জানানোর জন্য তৈরি করেছে। এটি আপনি অ্যান্ড্রয়েড এবং আইওএস দু’রকম স্মার্টফোনে ব্যবহার করতে পারেন। এই অ্যাপ্লিকেশনটি আপনার কাছাকাছি থাকা করোনাভাইরাস পজিটিভ মানুষদের ব্যাপারে আপনাকে জানাতে সাহায্য করবে। এর জন্য ওই অ্যাপ্লিকেশনটি আপনার স্মার্টফোনের ব্লুটুথ, আপনার লোকেশন এবং মোবাইল নম্বর ব্যবহার করবে। এই অ্যাপ্লিকেশনটি বর্তমানে সর্বমোট ১১টি ভাষা সাপোর্ট করে, যার মধ্যে হিন্দি এবং ইংরেজি সামিল রয়েছে।