Airtel Black: ৩০ দিন বিনামূল্যে মোবাইল, ব্রডব্যান্ড ও ডিটিএইচ পরিষেবা! কীভাবে পাবেন জেনে নিন

Airtel Black গ্রাহকেরা ৩০ দিনের বিনামূল্য পরিষেবা পাবেন বলে জানা গেছে

airtel-black-offer-get-30-days-free-service-how-to-avail

ভারতের অন্যতম টেলিকম অপারেটর ভারতী এয়ারটেল (Bharati Airtel) কিছুদিন আগে গ্রাহকদের জন্য নতুন বান্ডল পরিষেবা (একটি বিলে টেলিকম+ব্রডব্যান্ড+ ডিটিএইচ পরিষেবা) লঞ্চ করেছিল। এয়ারটেল ব্ল্যাক (Airtel Black) নামের এই পরিষেবার সাথে ওয়ান এয়ারটেল (One Airtel) প্ল্যানের যথেষ্ট সাদৃশ্য রয়েছে। তবে লভ্যতার দিক থেকে এয়ারটেল ব্ল্যাক সম্ভবত ওয়ান এয়ারটেল পরিষেবাকে বিভিন্ন দিক দিয়ে ছাপিয়ে যেতে চলেছে। কারণ দেশের যে কোনো প্রান্ত থেকে প্রথম পরিষেবাটি পাওয়া সম্ভব হলেও, দ্বিতীয় প্ল্যান ব্যবহারের জন্য আপনাকে দেশের নির্বাচিত শহরগুলির যে কোনো একটির বাসিন্দা হতে হবে। অর্থাৎ দেশের সর্বত্র ওয়ান এয়ারটেল প্ল্যান ব্যবহার সম্ভব হবে না।

Airtel Black পরিষেবা ৩০ দিন বিনামূল্যে

এদিকে সহজলভ্য হওয়ার পাশাপাশি এয়ারটেল ব্ল্যাক গ্রাহকদের জন্য সংস্থার ঝুলিতে রয়েছে আকর্ষণীয় উপহার। এক্ষেত্রে উক্ত পরিষেবার গ্রাহক হলে আপনি পুরো ৩০ দিনের নিঃশুল্ক পরিষেবা পেয়ে যেতে পারেন! হ্যাঁ একদম ঠিক পড়ছেন। সাম্প্রতিক অফার অনুযায়ী, এয়ারটেল ব্ল্যাক সদস্যদের একমাসব্যাপী পরিষেবা উপভোগের জন্য কোনোরকম অর্থ খরচ করতে হবেনা। তবে অফারের লাভ ওঠানোর জন্য সংস্থার কতগুলি নির্দিষ্ট শর্ত আছে যা গ্রাহকে পূরণ করতে হবে।

Airtel Black গ্রাহকেরা কি করে ৩০ দিনের বিনামূল্য পরিষেবা পাবেন

প্রথমেই বলি, এয়ারটেল ব্ল্যাক প্ল্যানের আওতায় সংস্থা আলাদা আলাদা তিনটি পরিষেবা অফার করছে। বিনামূল্যে ব্যবহারের জন্য গ্রাহকদের এগুলির মধ্যে থেকে যে কোনো দুই বা তার বেশী পরিষেবা বেছে নিতে হবে। কিন্তু সবার আগে এয়ারটেল ব্ল্যাক পরিবারের সদস্য হিসেবে তার কাছে অন্তত একটি প্রাথমিক পোস্টপেইড কানেকশন থাকতে হবে। এর সাথে গ্রাহকেরা সংস্থার ডিটিএইচ (DTH) বা ফাইবার ব্রডব্যান্ড, অথবা উক্ত দুটি পরিষেবা গ্রহণ করতে পারেন।

এখন একটি পরিষেবাভুক্ত গ্রাহকেরা অতিরিক্ত হিসেবে কোনো নতুন প্ল্যান গ্রহণ করলে তারা ৩০ দিন নিঃশুল্ক পরিষেবা ব্যবহারের যোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। মানে ধরুন কারো কাছে সংস্থার মোবাইল পোস্টপেইড সংযোগ রয়েছে। এর সাথে তিনি যদি একটি ডিটিএইচ (DTH) বা ফাইবার ব্রডব্যান্ড সংযোগ অথবা এই দুইয়েরই খরিদ্দার হন, তবে তিনি পুরো একমাসের ‘ফ্রি’ পরিষেবা পেয়ে যাবেন।

উল্লেখ্য, এয়ারটেল ব্ল্যাকের সবথেকে বড় সুবিধা হলো এই প্ল্যানের গ্রাহকেরা সংস্থার তরফে পরিষেবার ক্ষেত্রে সর্বদাই অগ্রাধিকার পাবেন। তাছাড়া মাত্র একটি বিলের ভিত্তিতে তারা প্ল্যান ব্যবহারের সমস্ত অর্থ শোধ করতে পারবেন। এছাড়াও দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহারের দিক থেকে এয়ারটেল ব্ল্যাক পরিষেবার আরো একাধিক সুবিধা রয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

One of the newest members of the Techgup Family. Soumo grew his liking for gadgets almost a decade back while searching for his first smartphone, and started writing about tech recently in 2020