সন্তান কে দুষ্টু সাইট দেখা থেকে আটকানো যাবে, Airtel আনল চাইল্ড সেফটি ফিচার

Airtel জানিয়েছে চাইল্ড সেফটি ফিচারে শিশুদের ইন্টারনেটের সর্বত্র অবাধ ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করতে অভিভাবকরা সক্ষম হবেন

Airtel launches child safety feature for home broadband service

সাম্প্রতিককালে করোনা পরিস্থিতিতে বিশ্বের সর্বত্র শিক্ষাব্যবস্থায় আমূল পরিবর্তন ঘটেছে। এখন পুরো ব্যাপারটাই হয়ে গেছে অনলাইন, অর্থাৎ বাচ্চারা এখন স্কুলে সময় কাটানোর পরিবর্তে স্কুলের ক্লাস, হোমওয়ার্ক ইত্যাদি সব কিছুর জন্যই সম্পূর্ণভাবে অনলাইন নির্ভর হয়ে গেছে। এবং হাতে কম্পিউটার, মোবাইল, ল্যাপটপ এবং সর্বোপরি ইন্টারনেটের অ্যাক্সেস চলে আসার অর্থ হল সম্পূর্ণ দুনিয়াই এককথায় হাতের মুঠোয় চলে আসা। আর বাচ্চাদের মধ্যে কৌতূহল একটু বেশি থাকায় অবাধ ইন্টারনেট অ্যাক্সেসের সুবাদে তারা অনলাইনে পড়াশোনার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে যে কোনো সাইট ওপেন করতে তথা নিজেদের ইচ্ছামতো যা খুশি এখন অবলীলায় করতে সক্ষম। কিন্তু এই বিষয়টিতে রাশ টানতে এক উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ নিল Bharti Airtel। টেলিকম অপারেটরটি তার হোম ব্রডব্যান্ড পরিষেবায় একটি চাইল্ড সেফটি ফিচার লঞ্চ করেছে, যা ব্যবহারকারীদের তাদের বাচ্চাদের জন্য নির্দিষ্ট সাইটগুলি সীমাবদ্ধ করতে সক্ষম করবে।

Airtel নিয়ে এল চাইল্ড সেফটি ফিচার

ETTelecom কর্তৃক আয়োজিত India Mobile Conclave 2021-এ বক্তব্য রাখতে গিয়ে এয়ারটেলের সিনিয়র ভিপি এবং সিআইএসও মণীশ তিওয়ারি বলেন, “পড়াশোনার সুবাদে এখন বাচ্চারা দিনের অধিকাংশ সময়টাই অনলাইনে কাটায়। একটি শিশুর কাছে ইন্টারনেটের অনেক কিছু কৌতুহল জাগায়। এই বিষয়টির খারাপ দিকগুলিকে প্রত্যক্ষ করেই আমরা হোম ব্রডব্যান্ড সার্ভিসে চাইল্ড সেফটি ফিচার লঞ্চ করেছি। গত বছর আমরা কয়েকটি সার্কেলে এই ফিচারটি রোলআউট করলেও এখন এটি সর্বত্র উপলব্ধ। এর ফলে শিশুদের ইন্টারনেটের সর্বত্র অবাধ ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ করতে অভিভাবকরা সক্ষম হবেন।”

তিনি আরও বলেন, “এই পরিষেবাটি আমাদের ব্রডব্যান্ড ব্যবহারকারীদের তাদের ইন্টারনেট ট্র্যাফিকের জন্য চাইল্ড সেফটি কনফিগারেশন দিয়েছে। আমরা সবেমাত্র বেসিক ম্যালওয়্যার অনলাইন প্রোটেকশন দিয়েছি, এবং সেইসাথে রয়েছে চাইল্ড সেফটি, স্টাডি মোড এবং ওয়ার্ক মোড। ইউজাররা কেবল Airtel Thanks অ্যাপ ব্যবহার করে কনফিগারেশন সেটিংস পরিবর্তন করতে পারেন, এর জন্য আলাদা অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করার দরকার নেই।”

উদাহরণস্বরূপ, আপনি যদি অ্যাডাল্ট, সোশ্যাল এবং গেমিং সাইটগুলির মতো কনটেন্ট ব্লক করতে চান, তবে আপনি সেই অনুযায়ী কনটেন্ট টাইপ নির্বাচন করতে পারেন এবং সিস্টেমটি সেই প্রোফাইলের অন্তর্ভুক্ত সমস্ত ওয়েবসাইট এবং অ্যাপকে ব্লক করবে। আপনি Airtel Thanks অ্যাপে প্রতিটি প্রোফাইলের জন্য কনটেন্ট টাইপের একটি তালিকা দেখতে পাবেন।

এটি কনটেন্ট ফিল্টার করার অনুমতি দেয় অর্থাৎ প্রতিটি প্রোফাইল থেকে নির্দিষ্ট ক্যাটাগরির আপত্তিকর কনটেন্ট (ওয়েবসাইট এবং অ্যাপস) ব্লক করে। খুব সহজ ভাষায় বললে, আপনি আপনার বাচ্চাকে যে ধরনের কনটেন্ট দেখা থেকে বিরত রাখতে চান সেই অনুযায়ী মোড সেট করতে পারেন। উদাহরণস্বরূপ, ওয়ার্ক মোড ‘স্ট্রিমিং মিডিয়া’ ক্যাটাগরিকে সীমাবদ্ধ করে এবং এইভাবে Netflix, YouTube, Hotstar ইত্যাদির মতো সাইটগুলিকে ব্লক করে। আবার, স্টাডি মোড ‘গেমস’ ক্যাটাগরিকে সীমাবদ্ধ করে এবং এইভাবে অনলাইন গেমগুলিকে ব্লক করে। ব্যবহারকারীরা একবারে কেবল একটি প্রোফাইল নির্বাচন করতে পারেন।

হোম ব্রডব্যান্ড পরিষেবার এই ফিচারটি ব্যবহারকারীরা দেশে বা এমনকি ভারতের বাইরেও ঘুরে বেড়ানোর সময়ও ব্যবহার করতে পারেন। উল্লেখ্য যে, Airtel Xstream Fiber-এর সাথে সংযুক্ত হলে Airtel Thanks অ্যাপের মাধ্যমে ‘সিকিউর ইন্টারনেট’ ফিচারটি অ্যাক্সেস করা যেতে পারে। এয়ারটেলের ওয়েবসাইট অনুসারে, প্রথম মাসের সাবস্ক্রিপশন ব্যবহারকারীদের জন্য কমপ্লিমেন্টারি এবং পরের মাস থেকে ৯৯ টাকার ন্যূনতম মাসিক চার্জ (জিএসটি ব্যতীত) বিলে অ্যাড করা হবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।