ডাউনলোড স্পিড ও ভিডিও দেখার দিক থেকে Jio ও Vi এর থেকে ভালো Airtel

airtel-offering-more-download-speed-video-and-gaming-experiences-than-jio-vi

একটা সময় Airtel-এর স্পিডের সমস্যা নিয়ে গ্রাহকদের অসন্তোষের সীমা ছিল না। এতটাই অসন্তুষ্ট ছিল গ্রাহকরা যে Airtel-এর বিজ্ঞাপন নিয়েও শুরু হয়েছিল ট্রোলিং। তবে এয়ারটেল ধীরে ধীরে তাদের নেটওয়ার্কের শক্তি বাড়াচ্ছে। আর তারই প্রমান মিললো সম্প্রতি একটি রিপোর্টে। এই রিপোর্টে বলা হয়েছে, ভিডিও দেখার অভিজ্ঞতা, ভয়েস অ্যাপ অভিজ্ঞতা, গেমিং অভিজ্ঞতা এবং ডাউনলোড স্পিডের নিরিখে Reliance Jio, Vi এবং BSNL-কে হারিয়ে দিয়েছে Airtel।

OpenSignal-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, ভিডিও অভিজ্ঞতার নিরিখে Jio, Vi এবং BSNL যেখানে যথাক্রমে ৫২.৩, ৫৪.২ এবং ৩৫.৮ পেয়েছে, Airtel সেখানে পেয়েছে ৫৭.৬ পয়েন্ট। আবার গেমিং অভিজ্ঞতার ক্ষেত্রে Airtel পেয়েছে ৫৫.৬ পয়েন্ট। Vi এক্ষেত্রে Airtel-এর একদম কাছাকাছি রয়েছে ৫৫.২ পয়েন্ট-সহ। Jio ৫০.১ পয়েন্ট-সহ তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে।

ভয়েস অ্যাপ অভিজ্ঞতার নিরিখে Airtel ১০০-এর মধ্যে ৭৫.৫ পয়েন্ট-সহ শীর্ষ স্থান অধিকার করে আছে। টানা দুটি রিপোর্টেই Airtel-এর এই অবস্থান একই রয়েছে। Vi এদিকে ৭৪.৪ পয়েন্ট-সহ দ্বিতীয় স্থানে এবং Jio রয়েছে তৃতীয় স্থানে।

শুধু তাই নয়, ডাউনলোড স্পিডের দিক দিয়েও Airtel টানা ছ’টি রিপোর্টে ১০.৪ এবিপিএস স্কোর করেছে। Airtel ব্যবহারকারীদের গড় ডাউনলোড স্পিড ০.৩ এবিপিএস থেকে ১০.৪ এবিপিএস অব্দি বেড়েছে। Jio ব্যবহারকারীদের গড় ডাউনলোড স্পিড ০.৪ এবিপিএস থেকে ৭ এবিপিএস-এর মধ্যেই পড়ে আছে। সব থেকে খারাপ অবস্থা BSNL-এর, তাদের ডাউনলোড স্পিড ২.৭ এবিপিএস থেকে ০.২ এবিপিএস এ নেমে গেছে। তবে Vi এই তালিকায় ১০.১ পয়েন্ট-সহ দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

আপলোডিং স্পিডের ক্ষেত্রে অবশ্য Vi, Airtel-কে টেক্কা দিয়ে দিয়েছে। Airtel এখানে ২.৮ পয়েন্টে আছে, যেখানে Vi-এর পয়েন্ট ৩.৫। Reliance Jio অন্যদিকে 4G উপলব্ধতার ক্ষেত্রে বিজয়ীর স্থান লাভ করেছে। Jio ব্যবহারকারীদের 4G নেটওয়ার্কে সংযুক্ত থাকার শতকরা হার ০.৫% বেড়ে মোট ৯৮.৭%-এ পৌঁছেছে। Airtel-এর স্কোরও এদিক দিয়ে ১.১% বেড়েছে। 4G কভারেজ অভিজ্ঞতার দিক দিয়েও Jio ১০-এর মধ্যে ৯.৩ পেয়ে প্রথম স্থানে রয়েছে। Airtel এখানে দ্বিতীয় এবং Vi তৃতীয় স্থানে আছে।