এয়ারটেল আনলো ‘প্ল্যাটিনাম কাস্টমার’ পরিষেবা, দ্রুত ইন্টারনেটের সাথে মিলবে অনেক অনেক সুবিধা

কয়েকদিন আগেই Airtel তাদের গ্রাহকদের উন্নত নেটওয়ার্ক পরিষেবা দিতে ক্লাউড ভিত্তিক VoLTE নেটওয়ার্কের সূচনা করেছিল। এবার কোম্পানি নতুন একটি পরিষেবা নিয়ে এল। যেখানে এয়ারটেল গ্রাহকরা ‘প্ল্যাটিনাম কাস্টমার’ হিসাবে কোম্পানির সাথে জুড়তে পারে। এয়ারটেলের ঘোষণা অনুযায়ী, প্ল্যাটিনাম গ্রাহকরা স্মার্টফোন এবং সংযুক্ত ডিভাইসে হাইস্পিড 4G ডেটার গতি উপভোগ করতে পারবেন। আপাতত এয়ারটেল প্ল্যাটিনাম গ্রাহক হতে পারবেন পোস্টপেড কাস্টমাররা। এরজন্য তাদের ৪৯৯ টাকা বা তারও বেশি মূল্যের কোনো একটি প্ল্যান বেছে নিতে হবে।

সংস্থাটি আরো জানিয়েছে, এয়ারটেল প্ল্যাটিনাম কাস্টমাররা কল সেন্টার এবং রিটেল স্টোরগুলিতে অগ্রাধিকার পরিষেবা পাবেন। প্ল্যাটিনাম কাস্টমারদের সহায়তা করতে বিশেষ কর্মী থাকবে। ভারতী এয়ারটেলের CMO শাশ্বত শর্মা বলেছেন, এয়ারটেল থ্যাঙ্কস প্রোগ্রামের অংশ হিসাবে তারা প্লাটিনাম মোবাইল গ্রাহকদের একটি স্বতন্ত্র পরিষেবা দেওয়ার চেষ্টা করছেন। একই সাথে সংস্থাটি ২৮০ মিলিয়ন ইউজারের প্রত্যেককে একইরকম আবেগে সেবা করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

অন্যদিকে, এয়ারটেলের প্রধান নির্বাহী গোপাল ভিট্টাল একটি চিঠি লিখছেন ইউজারদের জন্য। সেখানে “ওপেন টু কোয়েশ্চেন” অপশনে এটি নেটওয়ার্ক পরিষেবা উন্নত করতে ইউজাররা তাদের মতামত বা ফিডব্যাক দিতে পারেন। এছাড়াও ভিট্টাল বলেছেন, ইউজাররা ওয়াই-ফাই কলিংয়ের মাধ্যমে উচ্চতর কভারেজ উপভোগ করতে পারবেন।

আগেই বলেছি “প্রায়োরিটি 4G নেটওয়ার্ক” প্রোগ্রাম উপভোগ করতে, এক্সিস্টিং এয়ারটেল এবং নন-এয়ারটেল কাস্টমারদের ৪৯৯ টাকা বা তার বেশি একটি এয়ারটেল পোস্টপেড প্ল্যান রিচার্জ করতে হবে। এয়ারটেল, কাস্টমারদের বাড়িতে “প্রায়োরিটি 4G সিম’ পৌঁছে দেবে।