জিও কে টেক্কা এয়ারটেলের, ৯৮ টাকায় পাওয়া যাবে দ্বিগুন ডেটা

এয়ারটেল গ্রাহকদের জন্য সুখবর। ভারতের তৃতীয় বৃহত্তম এই টেলিকম কোম্পানি তাদের জনপ্রিয় একটি প্ল্যানে দ্বিগুন ডেটা দেওয়ার কথা ঘোষণা করলো। এয়ারটেলের এই প্ল্যান হল ৯৮ টাকার অ্যাড অন প্যাক। এয়ারটেলের এই প্ল্যানে এখন ১২ জিবি হাই স্পিড ডেটা পাওয়া যাবে। এর আগে এই প্ল্যানে গ্রাহকরা মোট ৬ জিবি ডেটা পেত। ডেটার পরিমান বাড়ালেও কোম্পানি ভ্যালিডিটি কমায়নি। অর্থাৎ এখনও এই প্ল্যানের ভ্যালিডিটি ২৮ দিন আছে। যদিও এয়ারটেলের ৪৮ টাকার ডেটা প্যাকে এখনও ৩ জিবি ডেটা পাওয়া যাবে।

জিও নাকি ভোডাফোন নাকি এয়ারটেল : কাদের ডেটা প্ল্যান ভালো :

এয়ারটেল ছাড়াও রিলায়েন্স জিও ও ভোডাফোন ও তাদের গ্রাহকদের ডেটা প্যাক অফার করে। জিওর ১০১ টাকার ডেটা প্যাকে ১২ জিবি হাই স্পিড ডেটা ও ১,০০০ মিনিট জিও থেকে অন্য নেটওয়ার্কে কল করার জন্য পাওয়া যায়। এই প্ল্যানের কোনো ভ্যালিডিটি নেই। অন্যদিকে ভোডাফোন-আইডিয়া ৯৮ টাকায় ২৮ দিনের জন্য ৬ জিবি ডেটা দেয়। সেহেতু বলা যায় ১০০ টাকার রেঞ্জের ডেটা প্যাকে জিও বেশি সুবিধা দিচ্ছে।

জিও ওয়ার্ক ফ্রম হোম প্ল্যানে এনেছে বদল :

কয়েকদিন আগে রিলায়েন্স জিও তিনটি ওয়ার্ক ফ্রম হোম প্ল্যান এনেছিল। যেগুলি হল ১৫১ টাকা, ২০১ টাকা ও ২৫১ টাকা। আগে এই ডেটা প্যাকগুলির কোনো ভ্যালিডিটি ছিল না। অর্থাৎ এই অ্যাড অন প্ল্যানগুলি আপনি ততদিন ব্যবহার করতে পারতেন যতদিন আপনার বর্তমান প্ল্যানের ভ্যালিডিটি থাকবে। তবে এবার কোম্পানি এই ওয়ার্ক ফ্রম হোম প্ল্যানের বৈধতা নির্দিষ্ট করে দিল। এবার থেকে আপনি এই প্ল্যানগুলি ৩০ দিন ব্যবহার করতে পারবেন।

রিলায়েন্স জিও ১৫১ টাকার প্ল্যানে মোট ৩০ জিবি ডেটা অফার করবে। আবার ৪০ জিবি ডেটা পাওয়া যাবে ২০১ টাকায়। ২৫১ টাকায় গ্রাহকরা ৫০ জিবি ডেটা পাবে। যদিও এখানে কোনো কলিং সুবিধা নেই। তবে কোম্পানির তরফে বলা হয়েছে সমস্ত ডেটাই হাই স্পিড ডেটা হিসাবে গ্রাহকরা ব্যবহার করতে পারবে। এরআগেও জিও বেশ কয়েকটি ডেটা প্যাক এনেছিল। যে ডেটা প্যাকগুলি শুরু হয়েছে ১১ টাকা থেকে।

WhatsApp এ সব খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন।