হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের জন্য জারি সতর্কতা, এই কাজ করলে হ্যাক হবে আপনার অ্যাকাউন্ট

স্মার্টফোন ইউজারদের জন্য প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো আশঙ্কার কথা সামনে আসছে। সূত্রের খবর, এবার বড়-সড় বিপদের মুখে পড়তে পারেন হোয়াটসঅ্যাপ ইউজাররাও। আসলে হোয়াটসঅ্যাপের ফেক ভার্সন বের করে ইউজারদের বোকা বানানোর চেষ্টা করছে জালিয়াতরা।
WABetaInfo টুইট করে জানিয়েছে, ইউজাররা যেন হোয়াটসঅ্যাপের কোনো মডিফায়েড ভার্সন ব্যবহার না করেন, এগুলিতে তাদের তথ্য চুরি হতে পারে।

হ্যাকাররা, জাল হোয়াটসঅ্যাপ ভার্সনগুলিকে খুবই আকর্ষণীয় করে তোলে। নতুন ফিচার উপভোগ করতে ইউজাররা এই নকল হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার শুরু করে। এই মডিফায়েড হোয়াটসঅ্যাপে এমন অনেক ফিচার থাকে যা আসল WhatsApp এ থাকেনা। তবে এগুলিতে ইউজারের ব্যক্তিগত তথ্য একদমই সুরক্ষিত নয়।

WABetaInfo আরো বলেছে, তাদের সংস্থা হোয়াটসঅ্যাপের ওই মডিফায়েড ভার্সনগুলি যাচাই করেনি। কোনো ইউজার যদি ওই অ্যাপগুলি ব্যবহার করে তবে তার হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করা হতে পারে।

হ্যাকাররা সহজেই এই জাল হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ইউজারদের টার্গেট করে। ভুয়ো হোয়াটসঅ্যাপ ডেভেলপাররা ম্যান-ইন-দ্য মিডল (MITM) অ্যাটাক করে ইউজারদের ডেটা চুরি করে। হ্যাকাররা সফ্টওয়্যারের সাহায্যে ইউজারের চ্যাটিং অ্যাক্সেস করতে পারে এবং মেসেজ পড়তে বা সেগুলির সাথে কাটাছেঁড়া করতে পারে।

অতএব, অ্যাপ স্টোর বা প্লে স্টোর থেকে হোয়াটসঅ্যাপের অফিশিয়াল ভার্সনটি ডাউনলোড করে ব্যবহার করুন। নতুন ফিচার পেতে আপডেটের জন্য অপেক্ষা করুন। অথবা টেস্টিং ফিচার ব্যবহারের জন্য হোয়াটসঅ্যাপের বিটা সংস্করণটি ব্যবহার করতে পারেন।