পাবেন আলু, পেঁয়াজ থেকে শুরু করে সমস্ত গ্রোসারি প্রোডাক্ট, কলকাতায় চালু হল Amazon Fresh

লকডাউনের বাজারে আমাদের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সরাসরি বাড়ির দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য অনলাইন ডেলিভারি অ্যাপগুলি বিশেষ ভূমিকা গ্রহণ করেছে। বিগ বাস্কেট, গ্রোফার্সে, জিও মার্টের মতো অ্যাপগুলি এই সময় যথাসময়ে নিত্যব্যবহার্য জিনিসপত্র পৌঁছে দিয়েছে ভারতের প্রত্যেকটি কোনায়। ই-কমার্স সাইট Amazon Indiaও এই সময় কয়েকটি অঞ্চলে গ্রোসারি প্রোডাক্ট ডেলিভারি দিতে Amazon Fresh (অ্যামাজন অ্যাপের মধ্যেই) চালু করেছিল। তবে এবার অন্যান্য শহরের পাশাপাশি কলকাতাতেও এই পরিষেবা উপলব্ধ হবে।

এর আগে অ্যামাজন, বেঙ্গালুরু, মুম্বাই, হাইদ্রাবাদ এবং দিল্লিতে এই পরিষেবা চালু করেছিল। দ্বিতীয় পর্যায়ে তারা আমেদাবাদ, চেন্নাই ও পুনের পাশাপাশি কলকাতাকেও যোগ করল। অ্যামাজনের একজন কর্মী জানিয়েছেন, “Amazon Fresh-এর বিস্তারের ফলে এখন ২৫ টির বেশি Amazon Fresh সেন্টার তৈরি হয়েছে, যার ফলে তিনগুণ বেশি প্রসেসিং-এর জায়গা পাওয়া গেছে।” এই সেন্টারগুলি তৈরির ফলে ভারতে নতুন চাকরির সুযোগও তৈরি হয়েছে। তাছাড়া উৎসবের মরশুমে গ্রাহকদের ক্রমবর্ধমান চাহিদাও পূরণ হচ্ছে।

এই সেন্টারগুলিতে সুরক্ষিত স্টোরেজের জন্য থাকছে ফ্রিজার ও রেফ্রিজারেশন জোন, ফ্রোজেন খাবারের জন্য আলাদা প্যাকেজিং-এর ব্যবস্থা ইত্যাদি। এর ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলি সংরক্ষণ করা সুবিধা হবে। গ্রাহকরাও বাড়িতে বসে পেয়ে যাবেন তাজা জিনিস। Amazon Fresh-এর মধ্যে এখন পাওয়া যাচ্ছে রান্নার বিভিন্ন সামগ্রী, আইসক্রিম, কোল্ড ড্রিঙ্ক, রেডি-টু-ইট খাবার, চাল, ডাল, আটা, ডেয়ারি প্রোডাক্ট, ডিটারজেন্ট, কসমেটিক প্রোডাক্ট, বেবি প্রোডাক্ট, স্বাস্হ্যসংক্রান্ত প্রোডাক্ট, পোষ্যের খাবার ইত্যাদি। এছাড়া কাঁচা ফল, তরিতরকারি, মাছ, মাংস, ডিম এইসবও অর্ডার করা যাবে Amazon Fresh-এর মাধ্যমে।

অ্যামাজন ফ্রেশে ৬০০ টাকার বেশি অর্ডার করলে কোন ডেলিভারি চার্জ লাগবে না। তবে ৬০০ টাকার কম অর্ডার করলে মাত্র ২৯ টাকা ডেলিভারি চার্জ লাগবে। সকাল ৬টা থেকে মধ্যরাত্রি অব্দি করা হবে ডেলিভারি। সুতরাং নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের জন্য আর ঝুঁকি নিয়ে বাইরে যাওয়ারও দরকার নেই। সমস্ত কিছু আপনার বাড়িতেই পৌঁছে দেবে অ্যামাজন।