দেশের স্বার্থে ‘একবার ব্যবহারযোগ্য’ প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করলো অ্যামাজন ইন্ডিয়া

ভারতের অন্যতম বড় ই-কমার্স ওয়েবসাইট Amazon সম্প্রতি প্যাকিং এর ক্ষেত্রে সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিক ব্যবহার করা বন্ধ করে দিয়েছে। দেশের সমস্ত ফুলফিলমেন্ট সেন্টারে প্লাস্টিকের ব্যবহার বন্ধ করার জন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে অ্যামাজন কর্তৃপক্ষের থেকে। প্লাস্টিক ব্যবহার পৃথিবী তথা সমস্ত মানবকুলের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকারক। এই কারণে প্লাস্টিক বর্জন করা বর্তমানে অত্যন্ত প্রয়োজন। এই প্লাস্টিকের মধ্যেও সবথেকে বেশি ক্ষতিকারক একবার ব্যবহার হয় এমন প্লাস্টিক।

ফোন কিনতে এখানে ক্লিক করুন।

এই প্লাস্টিকগুলি একবার ব্যবহার করার পর ফেলে দিতে হয় এবং এগুলোর পুনর্ব্যবহার করাও যায় না। তাই এই ধরনের প্লাস্টিক ব্যবহার বন্ধ করার জন্য উদ্যোগ নিয়েছে অ্যামাজন ইন্ডিয়ার। এছাড়াও অ্যামাজন জানিয়েছে যে, জুন মাসের মধ্যে Amazon India-র লক্ষ্য ছিল, প্যাকিং মেটিরিয়াল সম্পূর্ণরূপে পরিবর্তন করে ফেলা। সেই উদ্দেশ্যেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ফোন কিনতে এখানে ক্লিক করুন।

এছাড়াও, কোম্পানির তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, আগে প্যাকিং করার জন্য সবথেকে জনপ্রিয় মেটেরিয়াল ছিল বাবল র‌্যাপ। কিন্তু এই জিনিসটি বায়ো-ডিগ্রেডেবল নয়। এই কারণেই এটির পরিবর্তে অ্যামাজন অন্যান্য বায়ো-ডিগ্রেডেবল জিনিস যেমন পেপার কুশনের মাধ্যমে প্যাকিং করা শুরু করেছে।

গত বছরের অক্টোবরে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশবাসীর উদ্দেশ্যে জানিয়েছিলেন যে তারা যেন সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহার একেবারে কমিয়ে ফেলেন। মোদী জানিয়েছিলেন যাতে দেশবাসী ২০২২- র মধ্যে এই প্লাস্টিকের ব্যবহার সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করা হয়।

শুধু তাই নয়, ভারতে প্লাস্টিক পুনর্ব্যবহার করার কোনো রকম ভালো পরিস্থিতি নেই। এছাড়াও যে ব্যবস্থা আছে তা খুব কার্যকরী নয়। তাই এই মুহূর্তে আমাদের কর্তব্য যেন আমরা এই ধরনের সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহার একেবারে বন্ধ করে দিয়ে ভারতের স্বার্থে কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করি। ভারতের বেশ কিছু শহর দূষণের মাত্রার নিরিখে অনেক ওপরের দিকে রয়েছে। এই তালিকায় দিল্লি, কলকাতা, মুম্বাই সহ বেশ কিছু বড় শহরের নাম অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এই ধরনের শহরে ক্রমাগত সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের মাধ্যমে দূষণের পরিমাণ বেড়েই চলেছে। এই কারণে ই- কমার্স জায়েন্ট অ্যামাজন এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে বাধ্য হয়েছে।

শুধু অ্যামাজন নয়, ভারতে তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী ফ্লিপকার্টও কিছুদিন আগেই একটি ঘোষণা করেছে। এই ঘোষণায় তারা জানিয়েছে, যে তারা তাদের সাপ্লাই সেন্টারে ইতিমধ্যেই সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিকের ব্যবহার ৫০% কমিয়ে ফেলেছে। এবং পরবর্তীকালে তারা এই ধরনের প্লাস্টিকের ব্যবহার আরো কমিয়ে ফেলবে বলে জানিয়েছে।

আমাদেরকে ফলো করুন ইনস্টাগ্রামে