Amitabh Bachchan NFT: প্রায় ৭ কোটি টাকা দিয়ে ব্যক্তিগত ‘সম্পদ’ বিক্রি করল বিগ বি

অমিতাভ বচ্চনের NFT- সিরিজের মধ্যে সর্বোচ্চ দামে বিক্রি হয় তাঁর বাবার রচিত এবং নিজ কন্ঠে রেকর্ড করা 'মধুশালা' নামক কবিতাটি, যার দর উঠেছে ৭৫৬,০০০ ডলার (প্রায় ৫.৫ কোটি টাকা)

amitabh-bachchans-nft-records-indias-highest-ever-bids-at-nearly-1-million-usd

বলিউডের সর্বকালের সেরা সুপারস্টার, অমিতাভ বচ্চন চলতি বছরের শুরুতে তার কিছু ব্যক্তিগত সম্পদ নিয়ে নন ফাঞ্জিবল টোকেন (NFT) সিরিজের ঘোষণা করেছিলেন, যার পর থেকেই সেগুলির মালিকানা পাওয়ার জন্য ভক্তদের মধ্যে উত্তেজনা ছিল তুঙ্গে। ‘মধুশালা’, ‘লুটবক্স’, আইকনিক ভিনটেজ পোস্টার প্রভৃতি এই নন ফাঞ্জিবল টোকেন সিরিজে অন্তর্ভুক্ত ছিল। যেগুলি নিলামে ৯৬৬,০০০ ডলার (প্রায় ৭.১৮ কোটি টাকা) দাম পেয়েছে।চলতি মাসের প্রথম দিন থেকে এই নিলাম শুরু হয় এবং শেষ হয় গত পরশু, ৪ নভেম্বর।

নিলাম সংস্থা Beyondlife.com এর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, অভিনেতার NFT- সিরিজের মধ্যে সর্বোচ্চ দামে বিক্রি হয় তাঁর বাবার রচিত এবং নিজ কন্ঠে রেকর্ড করা ‘মধুশালা’ নামক কবিতাটি, যার দর উঠেছে ৭৫৬,০০০ ডলার (প্রায় ৫.৫ কোটি টাকা)। আবার বিশেষ ‘লুট বক্স’ নিলামে তোলা হয়, যেখানে একটি শিল্প কর্ম এবং অভিনেতার কিছু পুরোনো ধাঁচের আকর্ষণীয় ছবি রয়েছে। মাত্র ৫৪ মিনিটেই ৫০০০ সংখ্যক ‘লুটবক্স’ বিক্রি হয় ৫০,০০০ ডলারের (প্রায় ৩৭ লাখ) বিনিময়ে। নিলামে পিছিয়ে থাকেনি বাকি নন ফাঞ্জিবল টোকেনগুলিও। অভিনেতার কিছু পুরোনো পোস্টার + বিগ বি পাংকস এবং অন্যান্য শিল্পকলাগুলি নিলামে যথাক্রমে ৯৪,০৫২ ডলার (প্রায় ৬৯.৮ লাখ) ও ৬৬,৯০০ ডলার (প্রায় ৪৯.৬ লাখ প্রায়) দাম পেয়েছে। এছাড়াও নিলামে তোলা হয়েছিল অভিনেতার কর্মজীবন ও পরিচিতির সাথে সম্পর্কিত নানা দুর্মূল্য জিনিস।

এখন স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন উঠে আসে যে NFT নিয়ে এত আলোচনা, সেটা আসলে কি? সে প্রসঙ্গে বলা যায় NFT- বা নন ফাঞ্জিবল টোকেন হল দুষ্প্রাপ্য বা বিশেষ কোনো ডিজিটাল সম্পদের মালিকানা বিষয়ক দলিল। ডিজিটাল দুনিয়ায় চলা নিত্য নতুন ট্রেন্ডগুলির মধ্যে অন্যতম। NFT -র মূল সীমাবদ্ধতা হল, এটি টাকার মতো ফাঞ্জিবল বা বিনিময় যোগ্য না, শুধু সর্বোচ্চ অর্থের বিনিময়ে এর মালিকানা পরিবর্তন যোগ্য এবং সেই মালিকানারই প্রমাণ বহন করে NFT – টোকেন টি। যিনি NFT কিনছেন, তিনি যত বার খুশি তা কপি বা শেয়ার করতে পারেন, কিন্তু অন্য ক্রিপ্টোকারেন্সির মতো ব্যবহার করতে পারেন না।

এই NFT- মার্কেট প্লেসে লেনদেন হয় ‘ব্লকচেন’ এর মাধ্যমে। আমাদের দেশে NFT-র বিক্রি থাকলেও কেনার ঝোঁক স্বল্প। তবে যেভাবে আমরা ভার্চুয়াল দুনিয়ার দিকে এগোচ্ছি, তাতে খুব শীঘ্রই মানুষ তার নান্দনিক শখ পূরণে বা শিল্পকর্মের যোগ্য মর্যাদা পেতে NFT-র দিকে ঝুঁকবে, এমন আশা করাই যায়।

অমিতাভ বচ্চনের পর থেকে বলিউড ধীরে ধীরে গা ভাসাচ্ছে NFT ট্রেন্ডে। গত অক্টোবরেই, ফ্যাশন দুনিয়ার জনপ্রিয় মুখ মনিশ মালহোত্রা Wazirx ট্রেডিং প্ল্যার্টফর্মে NFT- সিরিজ নিয়ে এসেছেন। তালিকায় রয়েছেন বলিউড অভিনেত্রী সানি লিওনিও।

টেকগাপের মেম্বাররা ও সদ্য যোগ দেওয়া লেখকরা এই প্রোফাইলের মাধ্যমে টেকনোলজির সমস্ত রকম খুঁটিনাটি আপনাদের সামনে আনে।