অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের মাথাব্যথার কারণ ফ্লুবট ম্যালওয়্যার, মুহূর্তে হাতিয়ে নিচ্ছে ব্যাংকের তথ্য

Android users beware flubot-malware-asks-android-users-to-track-package-delivery-using-link-then-steals-bank-details

দুর্ভাবনার আরেক নাম ফ্লুবট (Flubot)! ক্ষতিকারক এই ম্যালওয়্যারটি বর্তমানে ব্রিটেন সহ ইউরোপের একাধিক দেশে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। অবস্থা এতটাই খারাপ যে ব্রিটেনের ন্যাশনাল সাইবার সিকিউরিটি সেন্টার বা এনসিএসসি (NCSC) পর্যন্ত নির্দেশিকা জারি করে মানুষকে ভুয়ো লিঙ্কে ক্লিক করতে নিষেধ করেছেন। একইসাথে আসরে নামতে হয়েছে ভোডাফোন ইউকে-র (Vodafone UK) মতো টেলিকম জায়ান্টকেও; এরা প্রত্যেকেই ফ্লুবট (Flubot) সম্পর্কে জনতাকে বারবার সাবধান করে দিয়েছেন, যা মুহূর্তের ভুলের সুযোগ নিয়ে আমাদের সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিতে সক্ষম। সুতরাং এই ফ্লুবটের (Flubot) স্বরূপ সম্পর্কে এমন একটা স্পষ্ট ধারণা থাকা উচিত, যার সাহায্যে আমরা এই ম্যালওয়্যারের থেকে হাত থেকে রক্ষা পেতে পারি।

কি এই ফ্লুবট(Flubot)

আগেই বলেছি Flubot একটি অনিষ্টকারক ম্যালওয়ার যা আমাদের পাসওয়ার্ড, ইমেইল আইডি, ব্যাঙ্ক প্রভৃতির সঙ্গে সম্পর্কিত গোপন এবং জরুরী তথ্যাবলি মুহূর্তেই হাতিয়ে নিতে পারে। আজ গ্রেট ব্রিটেন সহ স্পেন, জার্মানি, পোল্যান্ডের মতো দেশের অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীরা ফ্লুবট ম্যালওয়ারের খপ্পরে পড়ে বিপন্ন বোধ করছেন। মূলত টেক্সট মেসেজকে অবলম্বন করেই এই ম্যালওয়্যার আমাদের ডিভাইসে প্রবেশ করছে। যেমন অতি সম্প্রতি একজন ব্রিটেনবাসীর স্মার্টফোনে একটি টেক্সট মেসেজ আসে যা ডেলিভারি সংস্থা হিসেবেই নিজেদের পরিচয় দেয়। মেসেজের সঙ্গে তারা ব্যক্তিকে একটি লিঙ্ক প্রেরণ করে যেখানে ক্লিক করে নির্দিষ্ট অ্যাপ ইনস্টল করা মাত্র নাকি সেই ব্যক্তি প্যাকেজ ডেলিভারি সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য পেয়ে যাবেন। সরল বিশ্বাসে সেই লিঙ্কে ক্লিক করায় উপরোক্ত মানুষটির ব্যাঙ্ক সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য চুরি হয়ে যায়। এরপরেই ঘটনার নেপথ্য থেকে উঠে আসে ফ্লুবটের (Flubot) নাম, যা একই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আরো অসংখ্য মানুষকে প্রতারিত করে চলেছে।

ডিভাইসে আগত ফেক মেসেজের ভুয়ো লিঙ্কে ক্লিক করলে তা আমাদের সরাসরি এমন একটি ওয়েবসাইটে নিয়ে যায় যেখানে বিভিন্ন থার্ড পার্টি সোর্স মারাত্মক ক্ষতিকর বিভিন্ন অ্যান্ড্রয়েড প্যাকেজ ফাইল (APK) নিয়ে হাজির থাকে। ব্রাউজারের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার কারণে আমাদের ডিভাইস এইসব এপিকে ফাইলগুলিকে এড়িয়ে যেতে পারলেও, সেই অবসরে ফ্লুবট (Flubot) ব্যবহারকারীর সমস্ত ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করে নেয়। বিবিসি’র প্রতিবেদন অনুযায়ী ম্যালওয়্যারটি আমাদের ফোনের অ্যাড্রেসবুকের তথ্যও গ্রাস করে। এভাবে ভবিষ্যতে তারা আমাদের পরিচিতজনদের এসএমএস পাঠিয়ে প্রতারণার চেষ্টা চালিয়ে যায়।

উপরোক্ত কারণে খুব স্বাভাবিকভাবেই ব্রিটেন সহ বিভিন্ন দেশের প্রযুক্তি মহল ফ্লুবটের বাড়াবাড়িকে রোধ করার চেষ্টায় নেমে পড়েছেন। ব্রিটেনে NCSC -এর মতো প্রতিষ্ঠান হোক বা ভোডাফোন ইউ-কে, সকলেই অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের জাল মেসেজের দ্বারা বিভ্রান্ত হতে বারণ করেছেন। বিশেষত ভালো করে বিবেচনার আগেই যাদের ভুয়ো মেসেজের লিঙ্কে ক্লিক করার বদভ্যাস রয়েছে, অসাবধান হলে তারা এরপর নিজেদের গোপন তথ্য হারাবেন। শুধু তাই নয় ভবিষ্যতে এভাবে তাকে আরো অনেক বড় সমস্যার সম্মুখে দাঁড়াতে হতে পারে। সুতরাং চোখ বুজে যে কোন মেসেজের লিঙ্কে ক্লিক না করাই বোধহয় এই মুহূর্তে সবথেকে বুদ্ধিমানের কাজ হবে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন