‘চীনা প্রোডাক্ট বয়কট করুন,’ মানতে রাজি নন শাওমি ইন্ডিয়ার এমডি, বললেন মানুষ ঠিক বুঝবে

xiaomis-business-says-md

করোনা ভাইরাস লকডাউনের সময় সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে চীন বিরোধী কার্যক্রমের কারণে বিতর্ক তুঙ্গে সারা বিশ্বেই। তবে এই কার্যক্রম কখনোই তাদের ব্যবসায় প্রভাব ফেলতে পারবে না বলে জানিয়েছেন শাওমি ইন্ডিয়ার এমডি এবং গ্লোবাল ভিপি মনু কুমার জৈন।

তিনি জানান,” হ্যাঁ ভারতে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের মধ্যে চীন বিরোধী ভাবনা রয়েছে। তবে তা আমাদের ব্যবসায় কোন রকম প্রভাব ফেলতে পারবে না। এটি একটি নেতিবাচক চিন্তা ভাবনা এবং এই বিষয়টি কেন্দ্র করে মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় সোচ্চার হয়ে উঠেছেন। কিন্তু দুনিয়ায় একটি মহামারী যেকোনো একটি জায়গা থেকে শুরু হতে পারে। সেই ব্যাপারটি অন্তত ভারতের মানুষ এরপর বুঝবে।”

শাওমি গত তিন বছর ধরে ভারতের স্মার্টফোন মার্কেটে অগ্রণী ভূমিকা গ্রহণ করছে। বর্তমানে ভারতের মার্কেটে শাওমির মার্কেট শেয়ার ৩০%। ভারতে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণে লকডাউন পরিস্থিতি তৈরি হওয়ায় তা দেশের স্মার্টফোন বিক্রির উপর সরাসরি প্রভাব ফেলেছে। মনু কুমার জৈন জানিয়েছেন, স্মার্টফোন বিক্রি আবার শুরু হবার জন্য কিছুটা সময় লাগবে। তবে তিনি ভরসা রেখেছেন যে ভারতে শাওমি আবার নিজের হৃতগৌরব ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, সোশ্যাল মিডিয়ায় বর্তমানে ভারতসহ সারা বিশ্বের জনগণ চীনের তৈরি জিনিসের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে উঠেছেন। ফেসবুক, টুইটার সহ অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়ায় রব উঠেছে চীনের তৈরি জিনিসকে বয়কট করার। তাই সেই প্রভাব কিছুটা হলেও পড়তে পারে চীনের তৈরি স্মার্টফোনের বিক্রির উপরে। সেই পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্যই চীনের প্রসিদ্ধ মোবাইল নির্মাতা কোম্পানি তথা বর্তমানে ভারতের সবথেকে বড় মোবাইল কোম্পানির ভিপির এরকম মন্তব্য বলে মনে করছে ইলেকট্রনিক্স মহল। তাই এখন এটাই দেখার, লকডাউন ওঠার পরে চীনের তৈরি মোবাইলের বিক্রির উপরে নেতিবাচক প্রভাব পড়ে নাকি না।