আরও শক্তিশালী হবে Apple A15 Bionic প্রসেসর, প্রকাশ্যে এল বেঞ্চমার্ক স্কোর

apple-a15-bionic-spotted-on-geekbench-powerful-than-a14-bionic

বিগত কয়েক বছরে Apple তার মোবাইল চিপসেটগুলিকে ব্যাপকভাবে উন্নীত করেছে। ক্ষমতা ও কার্যকারিতার নিরিখে অ্যাপল বায়োনিক প্রসেসরের প্রশংসা এখন সুবিদিত। প্রতিবছরের মতো, চলতি বছরেও টেকজায়ান্টটি তার আপকামিং আইফোন লাইনআপে নতুন চিপসেট ব্যবহার করবে। এই চিপসেটের নাম হতে পারে A15 Bionic। যদিও চিপসেটটির ব্যাপারে এখন পর্যন্ত স্বল্পসংখ্যক তথ্য উপলব্ধ, তবে সম্প্রতি চিপটির বেঞ্চমার্ক স্কোর প্রকাশ্যে এসেছে।

টুইটার ব্যবহারকারী @FrontTron অ্যাপল এ১৫ বায়োনিক চিপসেটের বেঞ্চমার্ক পয়েন্টকে তিনটি সেটে টুইট করেছেন। যার মধ্যে সিঙ্গেল-কোর সিপিইউ টেস্টে চিপটির সর্বাধিক স্কোর ১,৭২৪ পয়েন্ট, আবার সর্বনিম্ন স্কোর হচ্ছে ১,৫৯৯। অপরদিকে মাল্টি-কোর টেস্টে, চিপটি সর্বাধিক ৪,৩২০ পয়েন্ট পেয়েছে, এবং মাল্টি-কোর টেস্টে,এর সর্বনিম্ন স্কোর ৩,৯৮৪।

গতবছরে লঞ্চ হওয়া Apple A14 Bionic-এর কথা যদি বলি তাহলে, গিকবেঞ্চে সিঙ্গেল ও মাল্টি-কোর টেস্টে এই প্রসেসরটির সর্বোচ্চ স্কোর ছিল ১,৬০৬ এবং ৪,৩০৫ পয়েন্ট। এতএব, সিঙ্গেল কোর পারফরম্যান্সের নিরিখে আপকামিং Apple A15 Bionic চিপসেটে ৭ শতাংশ বৃদ্ধি লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তবে, মাল্টি-কোর টেস্টে চিপসেট দুটির কার্যকারিতা প্রায় সমান।

তবে ফলাফলের দিক থেকে প্রোডাকশান রেডি মডেলের সাথে প্রোটোটাইপ মডেলের বেশ অনেকখানি পার্থক্য থাকে। সুতারাং, রিলিজ করার সময় এর বেঞ্চমার্ক রেজাল্টে উল্লেখযোগ্য বৃদ্ধি হবে বলে অনুমান করা যায়। সূত্রটি আরও বলছে, এই মুহুর্তে অ্যাপল এ১৫ বায়োনিক ভিত্তিক প্রোটোটাইপ চিপটি থ্রটলিং জনিত সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। লঞ্চের সময় এসে উপস্থিত হলে এই ধরনের সমস্যা থাকবে না বলেই অভিমত প্রকাশ করা হয়েছে। উল্লেখ্য, টিএসএমসি (তাইওয়ান সেমিকন্ডাকটর ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেড) ৫ ন্যানোমিটার বা 5nm ফ্যাব্রিকেশন প্রসেসরের ওপর ভিত্তি করে অ্যাপলের আপকামিং চিপসেটকে তৈরি করছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন