iPhone 5c কে ভিন্টেজ প্রোডাক্ট হিসাবে ঘোষণা করলো Apple, জানুন এরপর কি হবে

কোন হ্যান্ডসেট ৫-৭ বছর ধরে বিক্রি না হলে Apple তাদের “ভিন্টেজ প্রোডাক্ট” হিসাবে ঘোষণা করে। এবার Apple-এর ভিন্টেজ প্রোডাক্টের তালিকায় যোগ হচ্ছে একটি নতুন নাম- iPhone 5c। এই ফোনটি ২০১৩-তে iPhone 5-এর আদলে তৈরি হয়েছিল। কিন্তু সাধারণ মানুষ যাতে কম দামে কিনতে পারে তার জন্য ফোনটির বডি ছিল প্লাস্টিকের। ভিন্টেজ প্রোডাক্টের তালিকাভুক্ত হওয়ার ফলে Apple আর এই ফোনটি তৈরি করবে না।

ভিন্টেজ প্রোডাক্টের পাশাপাশি অ্যাপেলের আরেকটি তালিকা রয়েছে যার নাম “Obsolete Products”। যে প্রোডাক্টগুলি ৭ বছরেরও বেশি সময় ধরে বিক্রি হয়নি, তাদের এই তালিকায় রাখা হয়। iPhone 5c-কে এখনো এই তালিকার অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। ভিন্টেজ প্রোডাক্টের তালিকায় iPhone 5c-এর পাশাপাশি রয়েছে iPhone 4, iPhone 4s, iPhone 5 ইত্যাদি সেট।

Apple-এর প্রথম “সাশ্রয়ী” ফোন ছিল এই iPhone 5c। এমনিতে অ্যাপেলের ফোনগুলি মেটাল বডি দিয়ে তৈরি হয়। কিন্তু দাম কম করার জন্য iPhone 5c তৈরি করা হয়েছিল প্লাস্টিক বডি দিয়ে। সেই সঙ্গে এই ফোনে পাঁচটি রং উপলব্ধ ছিল- সবুজ, নীল, হলুদ, কোরাল এবং সাদা। ডিজাইন এবং অন্যান্য প্রযুক্তির দিক দিয়ে এই সেটটি iPhone 5-এর সমতুল্য ছিল।

iPhone 5c-এর অপারেটিং সিস্টেম ছিল iOS 7। একে iOS 10.3.3 অব্দি আপগ্ৰেড করা যেত। তাছাড়া এতে ছিল ডুয়াল-কোর অ্যাপল A6 চিপসেট। ফোনটির ইন্টারনাল স্টোরেজ ছিল ৩২ জিবি। iPhone 5-এর আদলে তৈরি এই সেটে ছিল ৮ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা এবং ১.৩ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা ছিল। এছাড়া iPhone 5c-তে ৪ ইঞ্চির এলসিডি ডিসপ্লেও ছিল। লঞ্চিং-এর সময় এই সেটের দাম ছিল ৪১,৯০০ টাকা।

iPhone 5c ভিন্টেজ প্রোডাক্টের তালিকাভুক্ত হওয়ার ফলে এই ফোনের জন্য আর সাপোর্ট দেবে না অ্যাপেল। কিন্তু এখনও যারা এই ফোনটি ব্যবহার করছে, তারা চাইলে কোম্পানির সার্ভিস প্রোভাইডারের কাছ থেকে এটি সারাই করতে পারবে। যত দিন অব্দি এই ফোনের উপযোগী পার্টস পাওয়া যাবে ততদিন সারাই করা যাবে। তবে এটি অবসোলিট প্রোডাক্টের তালিকায় চলে গেলে অ্যাপেলের কোন সার্ভিস প্রোভাইডার ফোনের হার্ডওয়ার-জনিত কোন পরিষেবা দিতে পারবে না।