চীনা স্মার্টফোন নয়, প্রিমিয়াম সেগমেন্টে ভারতীয়দের প্রথম পছন্দ আইফোন : রিপোর্ট

ভারতীয় মার্কেটে চীনা স্মার্টফোন কোম্পানির প্রাধান্য থাকলেও, প্রিমিয়াম রেঞ্জে কিন্তু গল্পটা আলাদা। ফ্লাগশিপ ফোনের কথা বললে ভারতীয়দের প্রথম পছন্দ হল আইফোন। প্রিমিয়াম সেগমেন্টে ভারতীয়দের iPhone ছেড়ে অ্যান্ড্রয়েডের দিকে নজর যায়না বললেই চলে। না এই কথা আমরা বলছি না। কাউন্টারপয়েন্টের নতুন রিপোর্টে এমনটাই উঠে এসেছে। রিপোর্টে দেখা গেছে Apple আলট্রা প্রিমিয়াম সেগমেন্টে (৪৫,০০০ টাকা বা তার বেশি) সবার উপরে আছে।

কাউন্টারপয়েন্টের এই রিপোর্টে দেখা গেছে, ভারতে আলট্রা প্রিমিয়াম সেগমেন্টে ক্যালিফোর্নিয়ার Apple এর মার্কেট শেয়ার ৫৫ শতাংশ। আবার অ্যাপলের iPhone 11 সবথেকে বেশি পছন্দ ভারতীয়দের। যদিও শুধু ভারতে নয়, সারা বিশ্বেই আইফোন ১১ ব্যাপক জনপ্রিয়। জনপ্রিয়তার নিরিখে এবছরের iPhone 11 পিছনে ফেলে দিয়েছে iPhone XR কে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, অ্যাপল এবছর কিছুটা কম দামে আইফোন ১১ লঞ্চ করার জন্যই এতো বিক্রি বেড়েছে। শুধু তাই নয়, বিভিন্ন সেলে কোম্পানি তাদের পুরানো মডেলগুলিকে ডিসকাউন্টের সাথে অফার করছিল। এই কারণেই সবাই কে পিছনে ফেলে দিতে পেরেছে কোম্পানি। প্রসঙ্গত ভারতে আইফোন ১১ দাম প্রায় ৬৪,০০০ টাকা।

iPhone 11 ফিচার :

এই ফোনটি iPhone XR এর আপগ্রেড ভার্সন। এটির পিছনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ, স্পাটিয়াল অডিও, ডলভি এটমাস সাপোর্ট এবং উন্নত ব্যাটারি ফিচার রয়েছে। iPhone 11 এ আপনি পাবেন ৬.১ ইঞ্চি লিকুইড রেটিনা ডিসপ্লে। আগেই বলেছি এই ফোনে নতুন এ১৩ বায়োনিক প্রসেসর দেওয়া হয়েছে। Apple দাবি করেছে এই প্রসেসরে সবচেয়ে CPU এবং GPU ব্যবহার করা হয়েছে। আইফোন ১১ ফোনটি নতুন আইওএস ১৩ অপারেটিং সিস্টেমের সাথে লঞ্চ হয়েছে।

ক্যামেরার কথা বললে এই ফোনের পিছনে ১২ মেগাপিক্সেলের ডুয়েল ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এতে ১২ মেগাপিক্সেলের ওয়াইড এঙ্গেল মেন শুটার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে, যার অ্যাপারচার এফ/ ১.৮। আবার মেন ক্যামেরা অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজেশন (OIS) ফিচারের সাথে এসেছে। মেন ক্যামেরার সাথে ১২ মেগাপিক্সেলের সেকেন্ডারি আলট্রা ওয়াইড সেন্সর দেওয়া হয়েছে। এর অ্যাপারচার এফ/ ২.৪ এবং ফিলড অফ ভিউ ১২০ ডিগ্ৰী।

ফোনের পিছনের ক্যামেরায় Smart HDR, নাইট মোড, পোর্ট্রেট মোড এবং ৬০ এফপিএস এর সাথে 4K ভিডিও রেকর্ডের সুবিধা আছে। সেলফির জন্য এই ফোনে ১২ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে। এর সাহায্যে 4K ভিডিও সহ স্লো মোশন ভিডিও রেকর্ডিং এর সুবিধা পাওয়া যাবে। ব্যাটারির কথা বললে কোম্পানি জানিয়েছে iPhone 11 একবার চার্জে iPhone XR এর থেকে ১ ঘন্টা বেশি ব্যাটারি ব্যাকআপ দেবে।