Samsung নয়, ভারতে প্রিমিয়াম স্মার্টফোন বিভাগে এগিয়ে Apple

Apple leads Indian premium smartphone market q1 2021

Apple-এর জনপ্রিয়তা নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই। বাজারে যতই অন্যান্য ব্র্যান্ডের আকর্ষণীয় মডেলের স্মার্টফোন আসুক না কেন, তাতে যে Apple-এর জনপ্রিয়তায় এতোটুকু খামতি হয়নি তা হালফিলে আরো একবার বোঝা গেল। সম্প্রতি এক সমীক্ষায় উঠে এসেছে যে, ২০২১ সালের প্রথম ত্রৈমাসিকে প্রায় ৪৮ শতাংশ শেয়ার নিয়ে Apple ভারতের প্রিমিয়াম বাজারে তার শীর্ষস্থান বজায় রেখেছে। অ্যাপলের YoY গ্রোথ (ইয়ার-ওভার-ইয়ার গ্রোথ) ২০২১ সালের প্রথম ত্রৈমাসিকে ভারতে ২০৭ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে, যা এই বছরের জানুয়ারি-মার্চ সময়কালে তার অগ্রগতির ধারাকে অব্যাহত রেখেছে।

কাউন্টারপয়েন্ট রিসার্চ তাদের সমীক্ষায় জানিয়েছে, “Apple প্রায় ৪৮ শতাংশ শেয়ার সহ প্রিমিয়াম বিভাগে (৩০,০০০ টাকা বা তার বেশি) তার শীর্ষস্থানীয় অবস্থান বজায় রেখেছে। iPhone 11-এর ব্যাপক চাহিদা, iPhone SE 2020-এর ওপর আকর্ষণীয় অফার, এবং ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রোগ্রামের সম্প্রসারণ এই বৃদ্ধির প্রধান চালিকাশক্তি”।

এই প্রথম Apple পরপর দুটি ত্রৈমাসিকে ১ মিলিয়নেরও বেশি শিপমেন্ট রেজিস্টার করেছে। ২০২০ সালের ফেস্টিভ কোয়ার্টারে ১৭১ শতাংশ বৃদ্ধিসহ অ্যাপল ভারতের ষষ্ঠ বৃহত্তম স্মার্টফোন বিক্রেতা ছিল। ২০২০ সালের চতুর্থ ত্রৈমাসিকে অ্যাপলের ১.৫ মিলিয়নেরও বেশি ইউনিট বিক্রি হয়েছিল, যা ত্রৈমাসিকের হিসাবে এখনও পর্যন্ত সর্বকালের সেরা। পুরানো প্রজন্মের iPhone 11 এবং নতুন মিড-রেঞ্জ iPhone SE-এর বিক্রির পরিমাণ বাড়াই হল এই ফেস্টিভ কোয়ার্টারে বৃদ্ধির মূল কারণ। ২০২০ সালে এই আইফোন নির্মাতা কোম্পানির YoY গ্রোথ ৯৩ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছিল।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে, ২০২১ সালের প্রথম ত্রৈমাসিকে ভারতের স্মার্টফোন শিপমেন্ট ২৩ শতাংশ YoY বৃদ্ধি পেয়ে ৩৮ মিলিয়ন ইউনিটে পৌঁছেছে। এটি হল প্রথম ত্রৈমাসিকে সর্বোচ্চ শিপমেন্টের সর্বকালের সেরা রেকর্ড। নতুন প্রোডাক্ট লঞ্চ, প্রোমোশন এবং আর্থিক প্রকল্প, সেইসাথে প্রোডাক্টের অস্বাভাবিক চাহিদা ২০২০ সালের শেষ থেকে স্মার্টফোন বাজারকে প্রবলভাবে সচল রেখেছিল, এবং তার রেশই ২০২১-এর প্রথম ত্রৈমাসিকে স্মার্টফোন বাজারকে সক্রিয়ভাবে চালিত করেছে।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন