বৈদ্যুতিক গাড়ির জন্য Kia তে ২৬ হাজার কোটি টাকার বেশি বিনিয়োগ Apple এর

apple-to-invest-3-46-billion-dollar-to-kia-for-car-project

আর মাত্র কয়েকদিনের অপেক্ষা, তারপরেই অ্যাপল কার (Apple Car) প্রজেক্ট নিয়ে বড়োসড়ো ঘোষণা হতে পারে। donga.com-প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, বৈদ্যুতিন গাড়ির প্রকল্পের জন্য চলতি মাসেই হুন্ডাইয়ের সাবসিডারি কিয়া (Kia) এবং অ্যাপলের মধ্যে চুক্তি সাক্ষরিত হতে পারে। চুক্তির অংশ হিসেবে অ্যাপল, কিয়াতে ৪ ট্রিলিয়ন সাউথ কোরিয়ান ওন বিনিয়োগ করবে। সর্বশেষতম বিনিময় হার অনুযায়ী বিনিয়োগের পরিমানটি ৩.৬ বিলিয়ন ডলার বা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ২৬,১৭১ কোটি টাকা।

এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জর্জিয়াতে কিয়ার ওয়েস্ট পয়েন্ট ফ্যাক্টরিতে অ্যাপল কারের উৎপাদন হতে পারে বলে সংবাদমাধ্যমে জল্পনা শুরু হয়েছে। অ্যাপল বিপুল পরিমান টাকা লগ্নির মাধ্যমে ২০২৪ সালের মধ্যেই প্রতি বছরে ১ লক্ষ বৈদ্যুতিন গাড়ি তৈরি করার ব্যাপারে আশাবাদী। সবকিছু পরিকল্পনামাফিক চললে সংখ্যাটি ৪ লক্ষ ইউনিটে পৌছাবে বলে সম্ভাবনা প্রকাশ করা হয়েছে।

এটা স্পষ্ট যে, চুক্তি সম্পন্ন হওয়ার পর গাড়ি প্রোডাকশান ও ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের দায়িত্বসামলাবে Kia। অপরদিকে সেল্ফ-ড্রাইভিং হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার, ব্যাটারি টেকনোলজি, সেমিকন্ডাকটার, ফর্ম ফ্যাক্টর Apple এর নিয়ন্ত্রণে থাকবে। রিপোর্ট বলছে, হুন্ডার মোটর গ্রুপের ডেডিকেটেড EV (Electric Vehicle) প্ল্যাটফর্ম E-GMP -র ওপর ভিত্তি করে অ্যাপলের ইলেকট্রিক গাড়ি নির্মিত হবে।

হুন্ডাইয়ের দাবি, এই প্ল্যাটফর্ম বেসড বৈদ্যুতিন গাড়ি ১৮ মিনিটের ফাস্ট চার্জে ৮০ শতাংশ রিচার্জ হবে, পাশাপাশি ০-১০০ কিমি/ঘন্টা গতিবেগ তুলতে এর অ্যাক্সেলারেশন টাইম ৩.৫ সেকেন্ড। নিশ্চিতভাবে অ্যাপল কার এইসব সক্ষমতার সাথে আসবে। গাড়িটিতে থাকবে অত্যন্ত উচ্চমানের অটোনমাস ড্রাইভিং সিস্টেম, লঞ্জ স্টাইলের ইন্টেরিয়র, বেস্ট-ইন-ক্লাস অডিও সিস্টেম এবং ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট। বিশ্বব্যাপী এখন ক্রসওভার বা এসইউভি বডি স্টাইল অটোমেকারদের প্রথম পছন্দ। অ্যাপল গাড়িটি ডিজাইনের ক্ষেত্রে কোনটি চয়ন করে সেটাই এখন দেখার বিষয়।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন