5G নয়, আরও দ্রুতগতিসম্পন্ন 6G-র ওপর কাজ শুরু করতে চলেছে Apple

apple-to-start-6g-research-looking-for-engineer.jpg

বিশ্বজুড়ে 5G পরিষেবা এখনও চালু না হলেও, বিশ্বের বিভিন্ন অংশে 5G-র তুলনায় আরও ১০০-৫০০ গুণ দ্রুতগতিসম্পন্ন বলে দাবি করা 6G প্রযুক্তির ওপর ইতিমধ্যে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু হয়ে গিয়েছে। 6G নিয়ে গবেষণা এবং বিকাশে অগ্রণী ভূমিকা নিচ্ছে Google, Huawei, Cysco, HP Enterprise, LG Electronics, Nokia-র মতো সংস্থা। এদিকে নেক্সট জেনারেশন ওয়্যারলেস টেকনোলজি (6G) উন্নীত করার লক্ষ্যে গুগলের পাশাপাশি Apple-ও যে নেক্সট জি (Next G) ইন্ডাস্ট্রি গ্রুপে যোগদান করেছে তা গতবছর নভেম্বরে একটি রিপোর্ট থেকে জনসমক্ষে এসেছিল। এখন স্পষ্ট, অ্যাপল নিজস্বভাবে 6G-র ওপর কাজ শুরু করার পরিকল্পনা করছে। তার জন্য অ্যাপল ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ করার বিজ্ঞাপন দিয়েছে বলেও সম্প্রতি জানা গেছে।

পরবর্তী প্রজন্মের ৬জি সেলুলার টেকনোলজি বিকাশে সহায়তার জন্য অ্যাপল ইঞ্জিনিয়ারিং প্রতিভার খোঁজ করছে। এমনই একটি নতুন চাকরির পোস্টিং ব্লুমবার্গ স্পট করেছে। চাকরির পোস্টিংটি ব্যাখ্যা করে অ্যাপল বলেছে, আমরা এমন লোকদের সন্ধান করছি যাঁরা রেডিও অ্যাক্সেস নেটওয়ার্কগুলির জন্য পরবর্তী প্রজন্মের (সিক্স-জি) বেতার যোগাযোগ ব্যবস্থার গবেষণা ও নকশা করবে এবং ৬জি প্রযুক্তি সর্ম্পকে উৎসাহী হয়ে ইন্ডাস্ট্রি/একাডেমিক ফোরামে অংশগ্রহণ করবে”।

অ্যাপল আরও লিখছে, “প্রার্থী পরবর্তী প্রজন্মের ওয়্যারলেস টেকনোলজির প্রযুক্তি তৈরি করার অনন্য সুযোগ পাবেন। যা ভবিষ্যতে
অ্যাপলের প্রোডাক্টের ওপর গভীর প্রভাব ফেলবে। এই ভূমিকায়, আপনি পরবর্তী প্রজন্মের রেডিও অ্যাক্সেস প্রযুক্তি তৈরির জন্য দায়বদ্ধ একটি যুগোপযোগী রিসার্চ গ্রুপের কেন্দ্রে থাকবেন”।

বিশ্বব্যাপী ৫জি এখনও সেভাবে রোলআউট করা সম্ভব হয়নি। স্বাভাবিকভাবেই, ৬জি পরিষেবা উপলব্ধ হতে এখনও বহু দূরের বিষয়। ২০৩০ সালের মধ্যে ৬জি চালু হওয়ার সেরকম সম্ভাবনা বিশেষজ্ঞরা দেখছেন না। তবে এখনই এই প্রযুক্তি সর্ম্পকিত গবেষণা শুরু করে প্রতিযোগীদের থেকে আরও কয়েকধাপ এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ অ্যাপল হাতছাড়া করবেনা বলেই বিশেষজ্ঞদের অভিমত।

হোয়াটসঅ্যাপে খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন