অ্যাপ্লিকেশন

WhatsApp-এ আসছে ফটো শেয়ারিংয়ের নতুন নিয়ম, ব্যবহারকারীরা পাবে এই বিশেষ অপশন

শুধু মেসেজ আদানপ্রদানের জন্যই নয়, চলতি সময়ে বিভিন্ন কাজে ব্যবহৃত হয় WhatsApp। কোনো গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট পাঠানো থেকে শুরু করে ছবি কিংবা ভিডিও, দরকারে-অদরকারে যে-কোনো মিডিয়া ফাইল ট্রান্সফারের ক্ষেত্রেই ইউজাররা সর্বপ্রথম এই Meta মালিকানাধীন মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটির দ্বারস্থ হন। তবে ফটো শেয়ারিংয়ের ক্ষেত্রে এই অ্যাপে রয়েছে একটি সমস্যা, যার ফলে অনেকেই ছবি পাঠানোর ক্ষেত্রে Whatsapp-কে অগ্রাধিকার দিতে পছন্দ করেন না। কিন্তু কী সেই সমস্যা? আসুন একটু খোলসা করে জেনে নিই।

আসলে ব্যাপারটা হল, হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে কাউকে কোনো ছবি পাঠালে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে কম্প্রেসড হয়ে যাওয়ায় সেটির রেজোলিউশন অনেক কমে যায়। উল্লেখ্য, যেহেতু এই ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং প্ল্যাটফর্মটিতে ডেটা ট্রান্সফার অতি দ্রুত হয়, সেই কারণে ছবি বা ভিডিও শেয়ারিংয়ের ক্ষেত্রে অ্যাপটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রায় ৭০ শতাংশ রেজোলিউশন কমিয়ে দেয়। এর ফলে কোনো গুরুত্বপূর্ণ ছবির কোয়ালিটি অনেকটাই খারাপ হয়ে যায়; এমনকি ছবির মধ্যে যে ডিটেলিং থাকে, তাও বহুলাংশে নষ্ট হয়ে যায়। সেক্ষেত্রে ভালো ক্যামেরা দিয়ে ছবি তোলা সম্পূর্ণভাবে নিরর্থক হয়ে দাঁড়ায়। তাই এই সমস্যার সমাধান করতে হোয়াটসঅ্যাপ আগামী দিনে একটি নতুন ফিচার রোলআউট করতে চলেছে বলে খবর মিলেছে, যার দৌলতে ছবির গুণমান কোনোভাবে নষ্ট না করেই অরিজিনাল কোয়ালিটিতে কাউকে যে-কোনো ফটো পাঠাতে সক্ষম হবেন ইউজাররা।

এবার ছবির গুণমান নষ্ট না করেই সেটি WhatsApp-এ শেয়ার করা যাবে, আসছে নতুন ফিচার

হোয়াটসঅ্যাপের ফিচার ট্র্যাকার WABetaInfo-র একটি রিপোর্টে সম্প্রতি এই খবরটি প্রকাশ্যে এসেছে। আসন্ন ফিচারটির একটি স্ক্রিনশট শেয়ার করে WABetaInfo জানিয়েছে যে, আলোচ্য ফিচারটির আগমন ঘটলে কোনো ছবি শেয়ার করার সময় ফটো কোয়ালিটি সেট করার জন্য ড্রইং টুল হেডারে সেটিংস (Settings)-এর একটি আইকন দেখা যাবে, যেটিকে কাজে লাগিয়ে কোনো ছবির গুণমান নষ্ট না করেই সেটি কাউকে পাঠাতে সক্ষম হবেন ইউজাররা। উল্লেখ্য যে, অ্যান্ড্রয়েড বিটার ২.২৩.২.১১ ভার্সনে উক্ত ফিচারটির দেখা মিলেছে বলে রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে বিটা পর্যায়ে ফিচারটির টেস্টিংপর্ব সফলভাবে সম্পন্ন হলে তবেই এটিকে স্টেবল ভার্সনে রোলআউট করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। তবে কবে নাগাদ আপামর জনগণ উক্ত ফিচারটিকে হাতেনাতে ব্যবহার করার সুযোগ পাবেন, সে সম্পর্কে এই মুহূর্তে নিশ্চিতভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না।

২০২১ সালে এইচডি ছবি শেয়ার করার অপশন উপলব্ধ হয়

প্রসঙ্গত জানিয়ে রাখি, ২০২১ সালে এইচডি (HD) ছবি শেয়ার করার ফিচার চালু করে হোয়াটসঅ্যাপ। এর জন্য ব্যবহারকারীদেরকে সেটিংসের মধ্যে ‘স্টোরেজ অ্যান্ড ডেটা’ (Storage and Data) অপশনটিতে ট্যাপ করতে হবে। এরপর ফটো আপলোড কোয়ালিটির একটি অপশন পাওয়া যাবে, যার অধীনে অটোমেটিক (auto), বেস্ট কোয়ালিটি (best quality), এবং ডেটা সেভার (data saver) – এই তিনটি বিকল্পের দেখা মিলবে। সেক্ষেত্রে স্ট্যান্ডার্ড কোয়ালিটিতে ফটো শেয়ার করার জন্য কমবেশি সকলেই অটোমেটিক অপশনটিকে সিলেক্ট করে রাখেন। অন্যদিকে, ডেটা সেভারের ক্ষেত্রে ফটোকে অনেকটাই কম্প্রেস করে দেওয়া হয়, এবং বেস্ট কোয়ালিটি বেছে নিলে অপেক্ষাকৃত ভালো গুণমানসম্পন্ন ছবি কাউকে পাঠানো যায়। তবে যে-কোনো বিকল্পই বেছে নেওয়া হোক না কেন, অরিজিনাল হাই-কোয়ালিটির ছবি কোনোভাবেই সেন্ড করা যায় না। সেক্ষেত্রে আলোচ্য ফিচারটি রোলআউট হলে অতি অনায়াসেই এই সমস্যার সমাধান হবে।

এবার WhatsApp স্ট্যাটাসে শেয়ার করা যাবে ভয়েস নোট

অন্যদিকে WABetaInfo-র আর-একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, খুব শীঘ্রই Meta মালিকানাধীন সংস্থাটি একটি নতুন ফিচার নিয়ে আসতে চলেছে, যার সুবাদে ভয়েস নোটগুলিকেও WhatsApp স্ট্যাটাস হিসেবে পোস্ট করতে পারবেন ইউজাররা। WABetaInfo-র প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উক্ত ফিচারটির আগমন ঘটলে ব্যবহারকারীরা ৩০ সেকেন্ডের ভয়েস নোটকে স্ট্যাটাস হিসেবে সেট করতে পারবেন, এবং টেক্সট, ইমেজ এবং ভিডিওর মতো ভয়েস স্ট্যাটাসও ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত বিদ্যমান থাকবে। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু বিটা ব্যবহারকারীদের জন্য এই ফিচারটি উপলব্ধ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। তবে WhatsApp-এর স্টেবল ভার্সনে কবে এটির আগমন ঘটবে, সে বিষয়ে এই মুহূর্তে নিশ্চিতভাবে কিছু জানা যায়নি।

Back to top button