Aprilia SR 125: Ntorq বা RayZR পছন্দ নয়? বাজেট বেশি হলে এই স্কুটার পারফেক্ট চয়েস

সদ্য লঞ্চ হওয়া Aprilia SR 125-এর প্রথম পাঁচটি হাইলাইট দেখে নিন

aprilia-sr-125-scooter-5-key-highlights-rival-ntorq-rayzr

TVS Ntorq 125, Honda Grazia 125, Yamaha RayZR 125, এবং Hero Maestro Edge 125-এর সঙ্গে টক্কর দিতে ইতালির পিয়াজিও (Piaggio) গ্রুপ সম্প্রতি ভারতে Aprilia SR 125 স্কুটারের আপডেটেড ভার্সন লঞ্চ করেছে। ১২৫ সিসির এই স্কুটারে একাধিক আপগ্রেড করা হয়েছে, যা ক্রেতাদের পছন্দ হবে বলেই মনে করছে সংস্থা। আজকের প্রতিবেদনে Aprilia SR 125-এর প্রথম পাঁচটি হাইলাইট দেখে নেব আমরা।

এপ্রিলিয়া এসআর ১২৫: ডিজাইন (Aprilia SR 125: Design)

নতুন এপ্রিলিয়া এসআর ১২৫-এর সামনে আরও শার্প লুকিং হেডলাইট দেওয়া হয়েছে। পিছনের দিকে রয়েছে নতুন করে ডিজাইন করা টেললাইট। যা আগের চেয়ে আরও স্পোর্টি দেখতে। আবার স্কুটারের স্পোর্টি স্টাইলকে যোগ্য সঙ্গত দিতে স্প্লিট স্টাইলের সিট, সিঙ্গেল পিস স্যাডেল, এবং বড় পিলিয়ন গ্রাব রেল যুক্ত করা হয়েছে। এছাড়া Aprilia SR 125-এর ফ্রন্ট রেন্ডার, ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার ব্রাকেট এবং এগজস্ট হিটশিল্ডের উপর কার্বন ফাইবার টেক্সচার আছে।

এপ্রিলিয়া এসআর ১২৫: ফিচার্স (Aprilia SR 125: Features)

নতুন এপ্রিলিয়া এসআর ১২৫-এর হেডলাইট হ্যালোজেন থেকে বদলে এখন এলইডি করা হয়েছে। পুরনো কনসোলের জায়গায় সম্পূর্ণ ডিজিটাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার যোগ করা হয়েছে। এতে টপ স্পিডোমিটার, ট্যাকোমিটার, ওডোমিটার, টু ট্রিপ মিটার, ফুয়েল ইকোনমি ইন্ডিকেটর, ফুয়েল গজ, ইঞ্জিনের তাপমাত্রা-সহ বিভিন্ন তথ্য ফুটে উঠবে।

এপ্রিলিয়া এসআর ১২৫: ইঞ্জিন (Aprilia SR 125: Features)

আগের মতোই এপ্রিলিয়া এসআর ১২৫ চলবে ১২৪.৫ সিসি, সিঙ্গেল সিলিন্ডার, এয়ার কুল্ড ইঞ্জিনে। এতে ভালভের সংখ্যা তিনটি। ইঞ্জিনটি ৭,৭০০ আরপিএমে ৯.৭৮ বিএইচপি এবং ৬,০০০ আরপিএমে ৯.৭০ এনএম আউটপুট দেয়।

এপ্রিলিয়া এসআর ১২৫: হার্ডওয়্যার (Aprilia SR 125: Hardware)

Aprilia SR 125 স্কুটারের আপডেটেড মডেলেও হার্ডওয়্যার সেটআপ অপরিবর্তিত। সাসপেনশনের জন্য এর সামনে টেলিস্কোপিক ফোর্ক ও পিছনে সিঙ্গেল স্প্রিং আছে। স্কুটারের সামনের দিকে ডিস্ক ব্রেক উপলব্ধ। এবিএস নেই, তবে স্ট্যান্ডার্ড হিসেবে কম্বি ব্রেকিং সিস্টেম আছে।

এপ্রিলিয়া এসআর ১২৫: কালার অপশন ও দাম (Aprilia SR 125: Colour Option & Price)

সাদা, নীল, গ্রে, ও লাল রঙে পাওয়া যাবে এপ্রিলিয়া এসআর ১২৫। কোম্পানি ও মডেলের নাম ফ্রন্ট অ্যাপরন, ফ্লোরবোর্ড প্যানেল, এবং রিয়ার প্যানেলের উপর দৃশ্যমান। স্কুটারটির দাম ১.০৭ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)।

টেকগাপে শুভ্রর প্রথম প্রযুক্তি বিষয়ক লেখায় হাতেখরি৷ স্নাতক স্তরের পড়াশোনার পাশাপাশি এখানেই চলতে থাকে শুভ্রর লেখালেখি৷ কলেজের অধ্যায় শেষ হওয়ার পর শুভ্র এখন টেকগাপের কনটেন্ট টিমের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য৷