সময় দেখার সাথে নিজেকে রাখুন ফিট, লঞ্চ হল AQFIT W14 স্মার্ট ওয়াচ

aqfit-w14-smart-watch-launched-with-10-days-battery-life

সারা বিশ্বেই দ্রুত বাড়ছে স্মার্ট ব্যান্ড থেকে শুরু করে স্মার্ট ওয়াচের চাহিদা। স্মার্টফোন কোম্পানিগুলিও এখন এই ধরণের ডিভাইস নিয়ে আসছে। এবার ইলেকট্রনিক্স ও স্মার্ট ডিভাইস নির্মাতা কোম্পানি AQFIT, W14 নামে একটি ফিটনেস স্মার্ট ওয়াচ লঞ্চ করল। এই স্মার্ট ওয়াচের প্রধান প্রধান ফিচারের কথা বললে, এতে পাবেন আইপিএস টাচ স্ক্রিন, ১০ দিন পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ, ১৫টি মাল্টি স্পোর্টস মোড। শুধু তাই নয়, এটি আইপি৬৮ রেটিং প্রাপ্ত হওয়ায়, একটি ওয়াটারপ্রুফ ডিভাইস। চলুন জেনে নিই AQFIT W14 স্মার্ট ওয়াচের মূল্য,লভ্যতা ও স্পেসিফিকেশন।

AQFIT W14 স্মার্ট ওয়াচ এর দাম ও লভ্যতা

AQFIT W14 এর ভারতে দাম ৩,৬৯৯ টাকা। এটি ই-কমার্স সাইট Flipkart এবং AQFIT এর নিজস্ব সাইট থেকে পাওয়া যাবে। লঞ্চ অফার হিসাবে ফ্লিপকার্টে SBI ক্রেডিট কার্ড গ্রাহকরা ১,৫০০ টাকা পর্যন্ত ডিসকাউন্ট পাবে। আবার ডেবিট কার্ড গ্রাহকদের ১,০০০ টাকা ছাড় দেওয়া হবে।

AQFIT W14 স্মার্ট ওয়াচ এর স্পেসিফিকেশন

AQFIT W14 ফিটনেস স্মার্ট ওয়াচটিতে রয়েছে ১.৩৩ ইঞ্চি এইচডি কালার আইপিএস ফুল টাচ স্ক্রিন ডিসপ্লে। এই ডিসপ্লের পিক্সেল রেজোলিউশন ২৪০×২৪০। এই ফিটনেস স্মার্ট ওয়াচটির আকর্ষণীয় স্লিম এবং স্লিক, জিঙ্ক -ম্যাগনেসিয়াম অ্যালয় বডি, এবং ফুড গ্রেড সিলিকন স্ট্র্যাপ স্মার্ট ওয়াচটিকে করে তুলেছে দৃষ্টি নান্দনিক। এতে অত্যাধুনিক নরডিক প্রসেসর NFR52832 ব্যবহার করা হয়েছে, যা আপনাকে ৫০% এর ও কম পাওয়ারে ৪০% এর বেশি কার্যকারিতা প্রদান করবে। এই স্মার্টওয়াচে আছে ২০০ এমএএইচ লিথিয়াম ব্যাটারির সাথে ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। পুরোপুরি চার্জ হতে স্মার্ট ওয়াচটির সময় লাগে ২ ঘন্টা। একবার চার্জে এটি ৮ -১০ দিন পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে। আবার এটি ৬০ দিন এর স্ট্যান্ডবাই সময় অফার করবে।

এছাড়াও AQFIT W14 ফিটনেস স্মার্ট ওয়াচটি IP68 রেটিং এবং 5ATM ওয়াটারপ্রুফ, অর্থাৎ সম্পূর্ণ রূপে জল,ধূলিকণা রেসিস্টেন্ট এবং একই সাথে ১.৫ মিটার জলের নিচেও ৩০ মিনিট ডিভাইসটি থাকতে পারে। এছাড়াও এতে আছে ১৫ টি মাল্টি স্পোর্টস মোডস, যা ব্যবহারকারির সারাদিনের কার্যক্রম কে ট্র্যাকে করবে (সাঁতার, দৌড়ানো প্রভৃতি)। আবার এখানে পাবেন অ্যাডভান্স অপটিক্যাল সেন্সর যা আপনার ২৪ ঘন্টা হার্ট মনিটরিং, স্লিপ প্যাটার্ন মনিটরিং করবে। আপনি কেবল হাত নাড়িয়েই সোশ্যাল মিডিয়া নোটিফিকেশন চেক, কল রিসিভ করতে পারবেন। এছাড়াও এতে রয়েছে শাটার ফিচার, যার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই টাইমার সেট করে স্মার্ট ওয়াচটিকে রিমোট হিসেবে ব্যবহার করে স্মার্টফোনে ছবি অথবা সেলফি তুলতে পারবেন। আবার স্মার্ট ওয়াচের ইন্টারফেস থেকে মিউজিক প্লেলিস্ট পরিবর্তন, পজ, স্কিপ সবকিছুই করা যাবে।