অনলাইন চাকরি খোঁজ কারীদের জন্য বিশেষ পরামর্শ ভারত সরকারের, জেনে নিন

যদি আপনি অনলাইনে চাকরির খোঁজ চালাচ্ছেন তাহলে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক আপনার জন্য বেশ কিছু পরামর্শ নিয়ে এসেছে। এই পরামর্শ মূলত সাইবার সেফটি বিষয়ক এবং তাদের জন্যই আনা হয়েছে যারা অনলাইন চাকরির প্ল্যাটফর্মে নিজের ব্যক্তিগত তথ্য দিয়ে রেজিস্টার করেছেন। এই চাকরির পোর্টালগুলি বিভিন্ন ধরনের ব্যক্তিগত তথ্য যেমন নাম, জন্মের তারিখ, ঠিকানা, চাকরির ডিটেইলস, বিভিন্ন জরুরী সার্টিফিকেট, ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বর এবং সরকারি পরিচয় পত্রের দাবি করে থাকে। এই কারণে যখনই আপনি এই ধরনের পোর্টালে নিজের ব্যক্তিগত তথ্য সাবমিট করতে যাবেন, তার আগে অবশ্যই দেখে নেবেন পোর্টালটি কতটা সুরক্ষিত।

এইধরনের ওয়েবসাইটে ফিশিং জালিয়াতির সমস্যা সবথেকে বেশি। এছাড়া আপনার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলির সমস্ত তথ্যও হ্যাকিং করে নিয়ে নেওয়া যেতে পারে। সাইবার সেফটি এবং সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করার জন্য ভারত সরকারের তরফ থেকে একটি টুইটার অ্যাকাউন্ট চালানো হয় যার টুইটার হ্যান্ডল Cyber Dost। সেই টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করে জানানো হয়েছে, ” চাকরি খোঁজার ওয়েবপোর্টালে রেজিস্টার করার আগে আপনি ওয়েবসাইটের প্রাইভেসি পলিসি অবশ্যই জেনে নিন। এটা নিশ্চিত করুন যে ব্যবহারকারীর কাছ থেকে কি কি ধরনের তথ্য নেওয়া হয় এবং সেই ওয়েবসাইট কিভাবে সেগুলির ব্যবহার করে। “

শুধুমাত্র চাকরি প্লাটফর্মে প্রাইভেসি পলিসি এবং অথেন্টিসিটি চেক করা নয়, জনগণের চাকরির অফার থেকে সাবধান থাকা খুব দরকার। এই ধরনের ওয়েবসাইটগুলি সাধারণত সরকারি চাকরি দেওয়ার নাম করে সাধারণ মানুষের থেকে তাদের ব্যক্তিগত তথ্য এবং রেজিস্ট্রেশনের ফি নিয়ে থাকে।

এই জালিয়াতরা ভুয়ো জয়েনিং লেটারের মাধ্যমে জনগণকে প্রলোভিত করে এবং তাদের কাছ থেকে ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করে নেয়। আপনাদের জানিয়ে রাখি সব সময় বড় কোম্পানিগুলি এবং সরকারি সংস্থাগুলি এই ধরনের ছোটখাটো চাকরির ওয়েবসাইটে অথবা মেসেজের মাধ্যমে চাকরি দেওয়ার দাবি জানায় না। তাই এই ধরনের প্রলোভন থেকে সুরক্ষিত থাকুন।