বাইক চালানোর সময় সাথে রাখুন এই ইয়ারফোন, Yamaha TW-E7B ও TW-ES5A বাজারে হাজির

ইয়ামাহা TW-E7B ইয়ারফোনের দাম ধার্য করা হয়েছে ২৪,২০০ টাকা। এটি ব্ল্যাক এবং হোয়াইট কালারে উপলব্ধ। অন্যদিকে TW-ES5A মডেলের দাম রাখা হয়েছে ১৪,২০০ টাকা

Yamaha TW-E7B TW-ES5A Launched in India
Yamaha TW-E7B TW-ES5A Launched

ভারতে আত্মপ্রকাশ করল Yamaha সংস্থার নতুন দুটি ট্রু ওয়্যারলেস স্টেরিও ইয়ারফোন। এগুলি TW-E7B ও TW-ES5A মডেল নম্বর সহ এসেছে। উল্লেখ্য, সংস্থার ফ্ল্যাগশিপ নতুন দুটি ইয়ারফোন গতমাসে যুক্তরাষ্ট্রীয় বাজারে আত্মপ্রকাশ করেছিল। এবার ভারতীয় ক্রেতাদের জন্য উপলব্ধ হলো ইয়ামাহার এই অডিও ডিভাইস রেঞ্জ। নতুন এই ইয়ারফোন দুটিতে ব্যবহৃত হয়েছে ব্লুটুথ ৫.০ টেকনোলজি। তাছাড়া জল থেকে সুরক্ষা দিতে উভয় ইয়ারফোনই IPX7 রেটিং প্রাপ্ত। চলুন দেখে নেওয়া যাক নতুন Yamaha TW-E7B ও TW-ES5A ইয়ারফোন দুটির দাম, ফিচার এবং স্পেসিফিকেশন।

Yamaha TW-E7B ও TW-ES5A এর দাম ও লভ্যতা

ভারতীয় বাজারে ইয়ামাহা TW-E7B ইয়ারফোনের দাম ধার্য করা হয়েছে ২৪,২০০ টাকা। এটি ব্ল্যাক এবং হোয়াইট কালারে উপলব্ধ। অন্যদিকে TW-ES5A মডেলের দাম রাখা হয়েছে ১৪,২০০ টাকা। ব্যবহারকারী এটি ব্ল্যাক, গ্রিন এবং ব্লু কালার অপশনে বেছে নেওয়ার সুযোগ পাবেন। তবে উভয় ইয়ারফোনই সংস্থার নিজস্ব ওয়েবসাইট ছাড়াও ই-কমার্স সাইট এবং রিটেইল আউটলেট থেকে কিনতে পাওয়া যাচ্ছে।

Yamaha TW-E7B ও TW-ES5A এর স্পেসিফিকেশন ও ফিচার

নবাগত Yamaha TW-E7B ট্রু ওয়্যারলেস স্টেরিও ইয়ারফোনটি ওভাল শেপ ডিজাইনের সাথে এসেছে। ফলে ব্যবহারকারী দীর্ঘক্ষন কানে পরে থাকলেও কোনো অসুবিধা হবে না। অন্যদিকে Yamaha TW-ES5A ইয়ারফোনে রয়েছে সার্ক ফিন।

তদুপরি TW-E7B ইয়ারফোনের অডিও প্রসঙ্গে বলতে গেলে, এতে ব্যবহৃত হয়েছে ১০ এমএম বড় আকারের ডাইনামিক ড্রাইভার, যা অ্যাক্টিভ নয়েজ ক্যান্সলেশন ফিচার অফার করতে সক্ষম। তাছাড়া এতে সংস্থার লিসনিং কেয়ার অ্যাডভান্স টেকনোলজি উপলব্ধ। আবার TW-ES5A ইয়ারফোনে দেওয়া হয়েছে ৬ এমএম ডাইনামিক ড্রাইভার। যাতে বাইরের আওয়াজ শোনার জন্য থাকছে অ্যাম্বিয়েন্ট মোড। তাছাড়া এই ইয়ারফোনেও লিসনিং কেয়ার অ্যাডভান্স টেকনোলজির সুবিধা পাওয়া যাবে।

শুধু তাই নয়, উভয় ইয়ারফোনে কোয়ালকম সিভিসি (ক্লিয়ার ভয়েস ক্যাপচার ) ফিচার বর্তমান। ফলে ইয়ারফোন দুটি নয়েজ ও ইকো এড়িয়ে ক্রিস্টাল ক্লিয়ার ভয়েস কোয়ালিটি অফার করবে। তাছাড়া উভয়ই ইয়ারফোন ব্লুটুথ ৫.০ সাপোর্টসহ এসেছে। উপরন্তু এগুলিতে রয়েছে নির্দিষ্ট গেমিং মোড এবং ইনস্ট্যান্ট ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট। এদিকে Yamaha TW-E7B ইয়ারফোনটি একবার চার্জে ২২ ঘন্টা ব্যাটারী লাইফ অফার করলেও, Yamaha TW-ES5A ইয়ারফোন ৩৪ ঘন্টা পর্যন্ত ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে সক্ষম। সর্বোপরি জল থেকে সুরক্ষা দিতে উভয় ইয়ারফোনই IPX7 রেটিং প্রাপ্ত।

এই প্রোফাইল থেকে টেকগাপের সম্পাদকীয় দল এবং নিজস্ব সংবাদদাতাদের লেখা প্রকাশিত হয়৷