গাড়ি

এপ্রিলে চালু নতুন বিধি, ভারতীয় ক্রেতাদের বিদায় জানিয়ে চিরঘুমে Honda-র জনপ্রিয় গাড়ি

২০২৩-এর এপ্রিল থেকে ভারতে নতুন নির্গমন বিধি রিয়েল ড্রাইভিং এমিশন বা আরডিই (RDE) কার্যকর হতে চলেছে। যা পূর্বের তুলনায় অধিক কঠোর। দেশে মাত্রাতিরিক্ত দূষণের পায়ে বেড়ি পড়াতেই এই ভাবনা কেন্দ্রীয় সরকারের। যার ফলে প্রায় সকল যানবাহনের ইঞ্জিনে পরিবর্তন ঘটানো অবশ্যম্ভাবী রূপে দেখা দিয়েছে। যে কারণে বহু গাড়ির বিক্রিও বন্ধ হওয়ার জোগাড়। এবারে যেমন Honda Amaze-এর ডিজেল ভার্সন সেই পথের পথিক হল। নির্গমন বিধির কড়াকড়িতে জাপানি সংস্থা হোন্ডা (Honda)-এর ভারতীয় শাখা নিঃশব্দে এদেশ থেকে তাদের সাব কম্প্যাক্ট সেডান গাড়ির ডিজেল সংস্করণের বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছে বলে খবর।

এমনকি জাপানি সংস্থাটি ভারতে তাদের ওয়েবসাইট থেকে দাম-সহ হোন্ডা অ্যামেজ ডিজেলের যাবতীয় তথ্য সরিয়ে নিয়েছে। সংস্থার এই পদক্ষেপ আগামী দিনে তাদের পেট্রোল এবং হাইব্রিড পাওয়ার ট্রেনে অধিক দৃষ্টি নিক্ষেপের ইঙ্গিত দেয়। এদেশে সেডান গাড়িটির প্রতিপক্ষদের মধ্যে ছিব Maruti Suzuki Dzire, Tata Tigor এবং Hyundai Aura। বর্তমানে এগুলির কোনোটির ডিজেল মডেল বাজারে উপলব্ধ নেই।

আরডিই নীতির ফলে ছোট যাত্রীবাহী গাড়িতে ডিজেল ইঞ্জিনের ব্যবহার বন্ধ অপরিহার্য হয়ে দাঁড়াবে। কারণ নির্গমন বিধি মোতাবেক Honda Amaze-এর ১.৫ লিটার i-DTEC ডিজেল ইঞ্জিনে আপগ্রেড করতে হলে ক্রেতাদের খরচ অনেকটাই বেড়ে যাবে। একই সাথে বাজার থেকে ডিজেল গাড়ির চাহিদাতেও তাৎপর্যপূর্ণ হারে পতন ঘটেছে। উক্ত মডেলটির বিক্রি বন্ধ করার পেছনে এটিও একটি কারণ।

প্রসঙ্গত, কেবল Amaze নয়, এ বছর মার্চের মধ্যে Jazz, WR-V এবং চতুর্থ প্রজন্মের City-এর বিক্রিও বন্ধের পথে হাঁটবে হোন্ডা। এই তালিকায় পঞ্চম প্রজন্মের ডিজেল চালিত Honda City-ও অন্তর্ভুক্ত। তাহলে সংস্থার ঝুলিতে থাকছে পেট্রোল ভার্সনের Amaze, City এবং City হাইব্রিড। যদিও একটি নতুন কম্প্যাক্ট এসইউভি এ বছর মে মাসের মধ্যে আনতে চলেছে হোন্ডা। এটি এদেশে ব্যবসায় সংস্থার দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনের সূচনাকে বর্ণনা করে।

Back to top button