গাড়ি

প্রস্তাবে সায় রাজ্যের, মহারাষ্ট্রে বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাণে 10,000 কোটি টাকা লগ্নি করবে Mahindra

বৈদ্যুতিক গাড়ির উৎপাদন বাড়াতে এসইউভি (SUV) স্পেশালিস্ট মাহিন্দ্রা (Mahindra) সবরকমের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। বর্তমানে ভারতের বৈদ্যুতিক গাড়ির বাজারের সর্বেসর্বা ও নিজেদের মূল প্রতিপক্ষ টাটা মোটরস (Tata Motors)-এর ঝুলি থেকে ইলেকট্রিক গাড়ির বৃহত্তম সংস্থার তকমা কাড়তেই মাহিন্দ্রার এই পদক্ষেপ। সম্প্রতি তারা মহারাষ্ট্রে ব্যাটারি চালিত ফোর হুইলারের নতুন কারখানা গড়ার প্রস্তাব দিয়েছিল। সেই প্রস্তাবে সিলমোহর দান করল সে রাজ্যের সরকার। এর জন্য সংস্থাটি পুণেতে ১০,০০০ কোটি টাকা লগ্নি করবে।

সুইজারল্যান্ডের দাভোসে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের মঞ্চে সরকার ও মালিক পক্ষের স্বাক্ষর সম্পন্ন হয়েছে। কোম্পানিটি তাদের অধীনস্থ সংস্থার মাধ্যমে ম্যানুফ্যাকচারিং ফেসিলিটি গড়ে তোলার জন্য আগামী সাত থেকে আট বছরের জন্য এই বিনিয়োগ করবে বলে জানিয়েছে। এছাড়াও মাহিন্দ্রার আসন্ন বর্ন ইলেকট্রিক ভেহিকেল বা BEV-এর উন্নয়ন এবং উৎপাদনের জন্যও লগ্নি করা হবে।

গাড়িগুলি মাহিন্দ্রার INGLO EV প্ল্যাটফর্মের উপর ভিত্তি করে XUV ব্র্যান্ডের আওতায় তৈরি হবে। যাতে থাকছে কপারের টুইন পিক লোগো এবং সম্পূর্ণ নতুন ইলেকট্রিক ব্র্যান্ড BE। গত বছর ব্রিটেনের অক্সফোর্ডশায়ারে কয়েকটি বিইভি-র প্রদর্শন করা হয়েছিল।

নতুন বৈদ্যুতিক কারখানা নির্মাণের প্রসঙ্গে মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা লিমিটেডের কার্যনির্বাহী আধিকারিক রাজেশ জেজুরিকার বলেন, “মহারাষ্ট্র সরকারের থেকে সংস্থা কারখানা গড়ার প্রস্তাবে স্বীকৃতি পেয়েছে। ৭০ বছরের সময় ধরে এটি তাদের ঘরোয়া রাজ্য।” তিনি যোগ করেন, “মাহিন্দার বিনিয়োগের সাথেই সহজে ব্যবসা করা এবং উন্নতি করার দিকে সরকারের নজর রয়েছে। মাহিন্দ্রার এই লগ্নির ফলে অন্যান্য সংস্থার বিনিয়োগ টানবে। যা মহারাষ্ট্রকে ভারতের ইভি হাব আত্মপ্রকাশ করার ক্ষেত্রে সহায়তা করবে।”

Back to top button