Homeঅটোকারগাড়িMahindra-র মুকুটে নতুন পালক, আফ্রিকায় দ্রুততম বৃদ্ধির সংস্থা হিসাবে রেকর্ড

Mahindra-র মুকুটে নতুন পালক, আফ্রিকায় দ্রুততম বৃদ্ধির সংস্থা হিসাবে রেকর্ড

ভারতের এসইউভি (SUV) গাড়ির বাজারে কিংবদন্তি সংস্থা হিসেবে ইতিমধ্যেই খেতাব অর্জন করেছে মাহিন্দ্রা (Mahindra)। এবারে তাদের সাফল্যের ঢেউ ভারতের গণ্ডি পেরিয়ে সুদূর দক্ষিণ আফ্রিকার বাজারে আছড়ে পড়ল। ন্যাশনাল অ্যাসোসিয়েশন অফ অটোমোবাইল ম্যানুফ্যাকচারার্স অফ সাউথ আফ্রিকা বা নামসা (NAAMSA)-এর রিপোর্ট অনুযায়ী সে দেশের গাড়ির বাজারে ২০২২-এর দ্রুততম বৃদ্ধির সংস্থার তকমা অর্জন করল Scorpio নির্মাতা।

প্রতিবেদনে উল্লেখ রয়েছে মাহিন্দ্রা এসএ (Mahindra SA) ২০২১-এর তুলনায় গত বছর ৭৮ শতাংশ বেচাকেনা বাড়াতে পেরেছে। যা সেদেশের বাজারে দেশীয় সংস্থাটির এখনও পর্যন্ত সেরা বিক্রি। এটি প্রতি বছর গড় ব্যবসার চাইতে পাঁচ শতাংশ বেশি। পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ২০২২-এ দক্ষিণ আফ্রিকার বাজারে ৪,০২৭টি প্যাসেঞ্জার ভেহিকেল এবং ৮,৮৮৫টি লাইট কমার্শিয়াল মডেল বিক্রির ফলে মাহিন্দ্রার যথাক্রমে ৮০ ও ৭৭ শতাংশ লাভ হয়েছে।

প্রতি মাসে গাড়ির বিক্রির গড় এই প্রথম ১০০০ ইউনিট পার করে বছরে ১৪,০০০-এর কাছাকাছি সংখ্যায় পৌঁছেছে মাহিন্দ্রা। ২০১৯-এর পর দ্বিতীয়বারের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার দ্রুততম বর্ধনশীল সংস্থা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করল তারা। দক্ষিণ আফ্রিকার বাজারে সর্বাধিক সুরক্ষিত গাড়ি হিসেবে গ্লোবাল নিউ কার অ্যাসেসমেন্ট প্রোগ্রাম বা GNCAP-এর থেকে মানপত্র পেয়েছে তাদের XUV300। গত বছর ২,০৭৯ ইউনিট বিক্রির ফলে কম্প্যাক্ট এসইউভি-এর বাজারে দ্রুততম বিক্রিত মডেল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে গাড়িটি।

এই প্রসঙ্গে মাহিন্দ্রার দক্ষিণ আফ্রিকান শাখার প্রধান কার্যনির্বাহী আধিকারিক রাজেশ গুপ্তা বলেন, “২০২২-এ দক্ষিণ আফ্রিকার দ্রুততম বৃদ্ধির সংস্থা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে পেরে আমরা গর্বিত। কোভিড-১৯ অতিমারি কালে ডারবানের কারখানায় কাঁচামালের অভাব প্রকট হয়েছিল। কিন্তু আমাদের ডিলাররা আমাদের ওয়েটিং লিস্টে থাকা ক্রেতাদের সবরকম ভাবে সহায়তা করেছে।” তিনি যোগ করেন, “সদ্য লঞ্চ হওয়া XUV700-এর মাধ্যমে নতুন বছরেও আমরা ভালো পারফর্ম করতে পারব বলে আশা রাখি। ইতিমধ্যেই রেকর্ড সংখ্যক আগাম বুকিং পেয়েছে বহু প্রতীক্ষিত মডেল Scorpio-N SUV।” প্রসঙ্গত, দক্ষিণ আফ্রিকার বাজারে সংস্থাটি ২০০৪ থেকে এখনও পর্যন্ত ৭৫,০০০-এর বেশি গাড়ি বিক্রি করেছে।

আরও পড়ুন