Maruti, Hyundai-কে টেক্কা দিয়ে 2022 সালে দেশের সর্বাধিক বিক্রিত এসইউভি Tata-র এই গাড়ি

Tata Nexon becomes India's Best selling SUV 2022

২০১৭-তে ভারতের এসইউভি (SUV) গাড়ির বাজারে যাত্রার শুভারম্ভ করেছিল Tata Nexon। সে সময় গাড়িটির বিক্রি ঢিমেতালেই চলতো। এরপর ২০২০-তে টাটা মোটরস (Tata Motors) এই কম্প্যাক্ট এসইউভি মডেলটি ভালোরকম আপডেটের সাথে লঞ্চ করে। তারপর থেকে আর ফিরে তাকাতে হয়নি টাটা নেক্সনকে। সাফল্যের জয়ধ্বজা সগর্বে উড়িয়ে টানা ক’মাস ধরে ভারতের সর্বাধিক বিক্রিত এসইউভি গাড়ির তালিকার প্রথম স্থান অধিকার করে আসছে এটি। এবারে ২০২২-এর সমগ্র বছর জুড়ে গাড়িটির নিজের জয়ের শিখন্ডি খাড়া রাখার খবর সামনে এলো। দেশের বেস্ট-সেলিং এসইউভি মডেলের তকমা নিজের আয়ত্তে এনেছে।

প্রতি মাসে দেশের সর্বাধিক বিক্রিত গাড়ির তালিকাতেও নিজের জায়গা ধরে রাখতে দেখা গেছে Tata Nexon-কে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তালিকার চতুর্থ স্থান দখল করত গাড়িটি। ২০২২-এর সমগ্র বছরেও তালিকার চতুর্থ স্থান দখল করেছে। গত বছরে বিক্রির নিরিখে Hyundai Creta ও Maruti Suzuki Brezza-কে হেলায় হারিয়েছে। ২০২২-এর জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত এই গাড়ির ১,৬৮,২৭৮ ইউনিট বিক্রি হয়েছে।

Maruti Suzuki Swift-এর থেকে ৮,০০০ ইউনিট কম বিক্রি হওয়ার ফলে গত বছর সর্বাধিক বিক্রিত গাড়ির তালিকার চার নম্বরে জায়গা পেয়েছে Tata Nexon। এদেশে গাড়িটির এই তাৎপর্যপূর্ণ সাফল্যের চাবিকাঠি হিসেবে রয়েছে মজবুতি এবং কম দাম। এছাড়াও এর ঝুলিতে ৫-তারার সুরক্ষার মান ক্রেতাদের মনে গাড়িটির প্রতি ভরসা তৈরির পথ মসৃণ করেছে।

Nexon-এ XE ভ্যারিয়েন্টের মূল্য ৭.৬৯ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম) এবং টপ-স্পেক XZA Plus ডিজেল ট্রিমের দাম ১৪.১৭ লক্ষ টাকা (এক্স-শোরুম)। পাঁচ আসন বিশিষ্ট গাড়িটি ১.২ লিটার রিভোট্রন টার্বোচার্জড থ্রি-সিলিন্ডার পেট্রোল এবং ১.৫ লিটার ফোর-সিলিন্ডার রিভোট্রন ডিজেল ইঞ্জিনের বিকল্পে বেছে নেওয়া যায়।

পেট্রোল ভার্সনটি থেকে ৫,৫০০ আরপিএম গতিতে ১২০ পিএস শক্তি এবং ১,৭৫০ আরপিএম গতিতে ১৭০ এনএম টর্ক উৎপন্ন হয়। অন্যদিকে ডিজেল ইঞ্জিনটি থেকে ৪,০০০ আরপিএম গতিতে ১১০ পিএস শক্তি এবং ১,৫০০ আরপিএম গতিতে ২৬০ এনএম টর্ক পাওয়া যায়। Tata Nexon SUV-এর ফিচারের তালিকায় রয়েছে একাধিক ড্রাইভ মোড, টাচস্ক্রিন ইনফোটেনমেন্ট সিস্টেম যা অ্যাপেল কারপ্লে এবং অ্যান্ড্রয়েড অটো প্রযুক্তি যুক্ত, সানরুফ, একটি ফ্ল্যাট বটম স্টিয়ারিং হুইল, অটোমেটিক ক্লাইমেট কন্ট্রোল সহ আরও অন্যান্য বৈশিষ্ট্য।