Flex-Fuel Car: কমবে দূষণ, বাঁচবে তেল ভরার খরচ, কাল দেশের প্রথম ফ্লেক্স ফুয়েল গাড়ির আত্মপ্রকাশ

Toyota to launch India's first Flex-Fuel Car Tomorrow
Toyota to launch India's first Flex-Fuel Car

ফ্লেক্স-ফুয়েল (Flex-Fuel) বা পেট্রোলের সাথে ইথানল বা মিথানলের মিশ্রণ দ্বারা গাড়ি চালানোর বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন অটোমোবাইল সংস্থার সাথে শলাপরামর্শ করে এসেছে ভারত সরকার। এবারে সরকারের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন জাপানি গাড়ি কোম্পানি টয়োটা (Toyota)-র হাত ধরে বাস্তবায়িত হতে চলেছে। আগামীকাল ভারতের প্রথম সংশ্লিষ্ট মডেলটির উপর থেকে পর্দা সরানোর দিনক্ষণ হিসেবে ধার্য করা হয়েছে। এই ফ্লেক্স-ফুয়েল মডেলটি হয় Toyota Camry, নয়তো Toyota Corolla hybrid হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। বর্তমানে ব্রাজিলের বাজারে এই মডেল দুটির রমরমা বাজার। যেগুলি ইথানল মিশ্রিত জ্বালানিতে চলে। আগামীকাল কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহণ মন্ত্রী নিতিন গডকড়ী (Nitin Gadkari) টয়োটার আসন্ন ফ্লেক্স-ফুয়েল মডেলটি উন্মোচন করবেন বলে জানিয়েছেন।

এ বছরের ৬২তম অটোমোটিভ কম্পোনেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন (ACMA)-এর বার্ষিক সম্মেলনী সভা থেকে গডকড়ী ঘোষণা করেছিলেন যে ২৮ সেপ্টেম্বর তিনি টয়োটার একটি হাইব্রিড গাড়ি সর্বসমক্ষে আনতে চলেছেন। যদিও তিনি নিজে দাবি করেছিলেন আসন্ন মডেলটি হল Toyota Camry Flex-Fuel, কিন্তু জল্পনা শোনা যাচ্ছে এটি আসলে Toyota Corolla hybrid। এই গাড়ির মস্ত বড় সুবিধা হল, ইথানল মিশ্রিত পেট্রলে ছোটে বলে দূষণ কম হয়। আবার তেল কম পুড়িয়ে বেশি মাইলেজ দেয়।

Toyota Corolla hybrid-এর আন্তর্জাতিক বাজারের মডেলটি একটি ২.০ লিটার পেট্রোল ইঞ্জিনের উপর নির্ভর করে চলে। যা E85 ইথানল জ্বালানিতে চলতে সক্ষম। এর স্ট্রং হাইব্রিড প্রযুক্তির মডেলটিও চলার ক্ষেত্রে ওই একই জ্বালানি ব্যবহার করে। এদিকে এর আগে টয়োটা এদেশে একটি হাইড্রোজেন চালিত Mirai গাড়ির ঝলক দেখিয়েছিল। সংস্থার কাছে যা ছিল একটি নমুনা মডেল মাত্র। এবারের আসন্ন ফ্লেক্স-ফুয়েল গাড়িটির উৎপাদন শুরু হওয়ার বিষয়ে কোনো খবর পাওয়া যায়নি। তাই অনুমান করা হচ্ছে হাইড্রোজেনের মতো এটিও একটি নমুনা মডেল। যা ফ্লেক্স-ফুয়েলের প্রতি ভারতীয়দের আগ্রহ বাড়িয়ে তুলবে।

এর আগে কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছিল যে ২০২৩-২৫-এর মধ্যে এদেশে পেট্রোলের সাথে ২০% ইথানল (E20) মেশানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এবং সরকার খুব শীঘ্রই সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে একটি রূপরেখা প্রকাশ করবে। এদিকে Honda ঘোষণা করেছিল তারা ২০২৩-এ এদেশে ফ্লেক্স-ফুয়েল ইঞ্জিন সমেত টু-হুইলার লঞ্চ করবে। তারা ইতিমধ্যে এর দুটি মডেলের ঝলক দেখিয়েছে। বর্তমানে যার উপর পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।