Tata-র সস্তা বৈদ্যুতিক গাড়ির চিন্তা বাড়িয়ে Citroen eC3 এর বুকিং শুরু, ফুল চার্জে যাবে 320 কিমি

Citroen eC3 booking open

ভারতবর্ষের ইলেকট্রিক গাড়ি মার্কেটে দিনকে দিন বিকল্পের সংখ্যা বাড়ছে। নতুন বছর আসতে না আসতেই আত্মপ্রকাশ করছে একের পর এক ব্যাটারি চালিত চার চাকা। ২৫,০০০ টাকা টোকেন জমা রেখে এবার আরও এক বৈদ্যুতিক গাড়ি Citroen eC3 এর বুকিং শুরু হয়েছে। সংস্থার ওয়েবসাইট বা অনুমোদিত ডিলারশিপে থেকে ক্রেতারা প্রি-বুকিং করতে পারবেন।ফেব্রুয়ারিতেই আনুষ্ঠানিক ভাবে দাম ঘোষণা এবং ডেলিভারি শুরু হবে। দেশের সবচেয়ে সস্তা ইলেকট্রিক গাড়ি Tata Tiago EV-কে যথার্থ টক্কর দেবে এটি। দামের রেঞ্জ ৮.৪৯ লাখ টাকা থেকে ১১.৭৯ লাখ টাকা পর্যন্ত।

ICE ভার্সনের মত Citroen eC3 তেও থাকবে দুটি আলাদা ভ্যারিয়েন্ট- লাইভ ও ফিল। উভয় ক্ষেত্রেই ২৯.২ কিলোওয়াট আওয়ারের ব্যাটারি প্যাক ব্যবহৃত হয়েছে এবং বৈদ্যুতিক মোটরটি সামনের এক্সেলের উপর অবস্থিত। এর মধ্যে থাকা ইলেকট্রিক মোটর থেকে উৎপাদিত পাওয়ার ও টর্ক আউটপুট যথাক্রমে ৫৭ বিএইচপি ও ১৪৩ এনএম। মাত্র ৬.৮ সেকেন্ডে ব্যাটারি চালিত এই হ্যাচব্যাকটি ০-৬০ কিমি/ঘণ্টা গতিবেগ অর্জন করতে পারে। গাড়িটির সর্বোচ্চ গতিবেগ প্রতি ঘন্টায় ১০৭ কিমি। রিজেনারেটিভ ব্রেকিং সিস্টেম সহ ইকো এবং স্ট্যান্ডার্ড এই দুই ধরনের রাইডিং মোড উপলব্ধ রয়েছে এতে। Citroen eC3 এক চার্জে প্রায় ৩২০ কিমি পথ পাড়ি দিতে পারবে বলে দাবি করা হয়েছে।

Citroen এর ব্যাটারি চালিত এই নতুন গাড়িটি দুই ধরনের চার্জিং অপশন নিয়ে অবতীর্ণ হয়েছে- ৩.৩ কিলোওয়াট আওয়ারের এসি চার্জার এবং ডিসি ফাস্ট চার্জার। প্রথম চার্জারটি দিয়ে ১০.৫ ঘন্টায় সম্পূর্ণ চার্জ করা গেলেও দ্বিতীয় ক্ষেত্রে মাত্র ৫৭ মিনিটে ১০-৮০% পর্যন্ত চার্জ করা সম্ভব। সংস্থার পক্ষ থেকে ব্যাটারি প্যাক এর উপর ৭ বছর/১,৪০,০০০ কিমি, বৈদ্যুতিক মোটরের উপর ৫ বছর/১,০০,০০০ কিমি এবং সম্পূর্ণ গাড়িটির উপর ৩ বছর/১,২৫,০০০ কিমি ওয়ারেন্টি দেওয়া হবে।

সিট্রোয়েন ইসি৩ এর বিশেষ ফিচারগুলির প্রসঙ্গে বলতে গেলে গাড়িটিফ টপ ভ্যারিয়েন্টে মিলবে ১০.২ ইঞ্চির টাচ স্ক্রিন ইনফোটেনমেন্ট সিস্টেম, ওয়্যারলেস অ্যান্ড্রয়েড অটো এবং অ্যাপেল কার প্লে, হাইট এডজাস্টেবল ড্রাইভার সিট, চারটি স্পিকার যুক্ত অডিও সিস্টেম, ডুয়েল এয়ার ব্যাগ এবং ইবিডি সহ এবিএস প্রযুক্তি।