ইলেকট্রিক গাড়ি

Auto Expo-র অন্তিম দিনে 200 কিমি মাইলেজ যুক্ত ইলেকট্রিক বাইক উন্মোচন করে ভারতীয় সংস্থার চমক

একবিংশ শতাব্দী যত এগোচ্ছে ভারতের ইলেকট্রিক টু-হুইলার বাজারে মডেলের সম্ভার ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে। মেইনস্ট্রিম সংস্থাগুলির সাথে পায়ে পা মিলিয়ে এগোতে দেখা যাচ্ছে অসংখ্য স্টার্টআপকে। এবারে যেমন ভারতের মরুশহর যোধপুরের ইলেকট্রিক ভেহিকেল কোম্পানি ডিভোট মোটরস (DEVOT Motors) অটো এক্সপো ২০২৩-এর অন্তিম দিনে একটি উচ্চগতির ব্যাটারি চালিত মোটরসাইকেলের উপর থেকে পর্দা সরিয়েছে। ধার ও ভার – দু’দিক থেকেই এগিয়ে এটি। সঙ্গে পারফরম্যান্সও ইমপ্রেসিভ। তবে ই-বাইকটির নাম প্রকাশ করা হয়নি।

ডিভোট মোটরস দাবি করেছে, তাদের তৈরি ওই ইলেকট্রিক মোটরসাইকেলটি প্রতি ঘন্টায় সর্বোচ্চ ১২০ কিলোমিটার গতিবেগ তুলতে সক্ষম এবং ফুল চার্জ করে নিলে একটানা ২০০ কিমি পথ দৌড়তে পারবে। ডিভোট মোটরসের গবেষণা এবং উন্নয়ন কেন্দ্রটি ব্রিটেনে অবস্থিত। রাজস্থানেও তাদের একটি ডেভেলপমেন্ট সেন্টার রয়েছে।

মোটরসাইকেলটিতে দেওয়া হয়েছে একটি ৯.৫ কিলোওয়াট হাই পারফরম্যান্স ব্যাটারি প্যাক। যা ৩ ঘন্টায় সম্পূর্ণ চার্জ হয়ে যাবে। ডিভোট মোটরসের তরফে জানানো হয়েছে, বাইকটির ৭০ থেকে ৯০ শতাংশ স্থানীয়করণের লক্ষ্যমাত্রা স্থির করা হয়েছে। যাতে বাজারে দাম কম দামে লঞ্চ করা যায়। অনুমান করা হচ্ছে এটি ২০২৩-এর মাঝামাঝিতে ভারতে রিলিজ করা হতে পারে।

ডিভোটের ই-বাইকটির ফিচারের তালিকায় উপস্থিত একটি টিএফটি স্ক্রিন, অ্যান্টি থেফ্ট সহ কিলেস স্টার্ট/স্টপ এবং টাইপ ২ চার্জিং পয়েন্ট। ব্যাটারি প্যাক সুরক্ষিত রাখতে এতে লিথিয়াম এলপিএফ ব্যাটারির রসায়ন সংযোজিত করা হয়েছে। ফলে থার্মাল ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সুরক্ষিত হওয়ার কারণে চরমভাবাপন্ন আবহাওয়াতেও সাবলীলতা দেখাবে।

সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও বরুণ দেও পানওয়ার বলেন, “বাইকটি নিয়ে ক্রেতারা ব্যাপক উৎসাহ দেখেছেন। আমরা তাই অফিসিয়াল লঞ্চ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে পারছি না। আমাদের প্রোডাক্ট পোর্টফোলিও সবাইকে দেখানোর সুযোগ করে দেওয়ার জন্য অটো এক্সপো কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ।”

Back to top button