Homeঅটোকারইলেকট্রিক গাড়িOla, Bajaj-দের টেক্কা দিতে LML দুর্ধর্ষ ইলেকট্রিক স্কুটার ও বাইক নিয়ে ভারতে প্রত্যাবর্তন করল, লঞ্চ কবে জেনে নিন

Ola, Bajaj-দের টেক্কা দিতে LML দুর্ধর্ষ ইলেকট্রিক স্কুটার ও বাইক নিয়ে ভারতে প্রত্যাবর্তন করল, লঞ্চ কবে জেনে নিন

ভারতে উৎসবের মরসুমে ঘটা সহকারে প্রত্যাবর্তন করল একসময়কার কিংবদন্তি টু-হুইলার নির্মাতা লোহিয়া মেশিনারি লিমিটেড বা এলএমএল (LML)-এর। তবে এবারে এলএমএল ইলেকট্রিক (LML Electric) নাম নিয়ে এসেছে সংস্থাটি। যেমন নাম, তেমন কাজ। বাজারে পা রাখার প্রথম দিনেই একসাথে তিন তিনটি ব্যাটারি চালিত টু-হুইলারের কনসেপ্ট মডেলের পর্দাফাঁস করল সংস্থাটি। যার মধ্যে রয়েছে ইলেকট্রিক স্কুটার, বাইক এবং সাইকেল। নাম যথাক্রমে LML Star, Moonshot এবং Orion। এলএমএল ইলেকট্রিকের এই কামব্যাকে পিলে চমকেছে Bajaj, Hero, Ola সহ একাধিক সংস্থার।

LML Star

১৯৯৯-২০১৭ পর্যন্ত কানপুরের কারখানায় নির্মিত আইসিই স্কুটার Star-কে এবার নবরূপে হাজির করল এলএমএল। ব্যটারি নির্ভর মডেলটিতে ম্যাক্সি স্কুটারের বৈশিষ্ট্য বর্তমান। এতে টু-টোন কালার, একটি শার্প হেডল্যাম্প ক্লাস্টার ও অ্যাপ্রন, ব্ল্যাক ফিনিশড অ্যালোয় হুইল, ডেডিকেটেড ডিসপ্লে যেখানে বিভিন্ন মেসেজ ভেসে উঠবে, টেলিস্কোপিক ফ্রন্ট ফর্ক, মোনোশক রিয়ার সাসপেনশন, ফ্রন্ট এবং রিয়ার ডিস্ক ব্রেক দেওয়া হয়েছে। উপরন্তু এতে রয়েছে একটি অ্যালুমিনিয়াম সুইংআর্ম।

LML Star-এর নতুন প্রজন্মের মডেলটির যান্ত্রিক তথ্য এখনও অজানা। মনে করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক স্কুটারটি বাজারে Bajaj Chetak, TVS iQube, Ather 450X, Ola S1 ও আসন্ন Hero Vida-র মডেলের সাথে প্রতিযোগিতায় শামিল হবে। এর দাম ১-১.২ লক্ষ টাকা রাখা হতে পারে।

LML Moonshot

LML Electric Two Wheelers in India

ডিজাইনের দিক থেকে LML Moonshot একটি ব্যাটারি পরিচালিত বাইক হলেও এতে প্যাডেলের দেখা মিলেছে। আবার লাল রঙের উন্মুক্ত ট্রেলিস ফ্রেম বাইকটিকে ফিউচারিস্টিক লুক দিয়েছে। এতে উপস্থিত একটি ছোট ব্যাটারি প্যাক। হাইলাইটের প্রসঙ্গে বললে, একটি ভার্টিকালি পজিশনড এলইডি হেডলাইট, স্লিক ফুয়েল ট্যাঙ্ক, ইউএসডি ফ্রন্ট ফর্ক, মোনোশক রিয়ার সাসপেনশন, এবং দু’চাকায় ডিস্ক ব্রেক রয়েছে। সংস্থার তরফে দাবি করা হয়েছে, Moonshot-এর সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ৭০ কিমি।

LML Orion

lml-unveils-star-moonshot-and-orion-electric-two-wheelers-in-india

LML Orion হল একটি ইলেকট্রিক সাইকেল। এতে একটি সাধারণ সাইকেল ও পারফর্ম্যান্স প্রধান মডেলের সমন্বয় লক্ষ্য করা গেছে। তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল সহজ নেভিগেশনের জন্য এতে উপস্থিত একটি বিল্ট-ইন জিপিএস সিস্টেম। প্রসঙ্গত, LML Star, Moonshot এবং Orion -এর সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য লঞ্চের পর জানা যাবে।

২০২৩-এর দ্বিতীয়ার্ধে বাজারে পা রাখতে পারে এগুলি। এদিকে নতুন কারখানা তৈরির জন্য বিভিন্ন লগ্নিকারীর থেকে ৫০০ কোটি টাকা সংগ্রহের পরিকল্পনা করছে এলএমএল। সংস্থাটি সায়েরা ইলেকট্রিক অটো-র সাথে জোটবদ্ধ হয়েছে। যারা হরিয়ানাতে হার্লে-ডেভিডসনের কারখানাটি কিনেছিল।

আরও পড়ুন