Auto Expo-তে কলকাতার সংস্থা Motovolt এর চমক, স্মার্ট ইলেকট্রিক স্কুটার নজর কাড়ল

Motovolt M7 Multi Purpose E-Scooter debuts

দেশি-বিদেশি বহু সংস্থা এ বছরের অটো এক্সপো-তে তাদের নতুন যানবাহনের ডালি নিয়ে হাজির হচ্ছে। গাড়ি আত্মপ্রকাশের ইঁদুর দৌড়ে পিছিয়ে নেই কলকাতার ইলেকট্রিক টু-হুইলার নির্মাতা মোটোভোল্ট (Motovolt)। বৃহত্তর নয়ডায় অনুষ্ঠিত গাড়ি মেলায় তারাও M7 নামক একটি মাল্টিপারপাস ইলেকট্রিক স্কুটারের ঝলক দেখালো। এটি এমন প্রযুক্তিতে তৈরি যা গ্রাহকদের নিজের পছন্দমত কাস্টমাইজেশনের চাহিদা পূরণ করবে। আবার পণ্য পরিবহণের জন্য এতে রয়েছে পর্যাপ্ত জায়গা, ভার বহনের সক্ষমতা ও শক্তি।

Motovolt M7 ইলেকট্রিক স্কুটারে দেওয়া হয়েছে একটি ডিটাচেবল পিলিয়ন সিট। অর্থাৎ চালক চাইলে যাত্রী সিটটি খুলে রাখতে পারবেন। এছাড়া রিমুভেবল ব্যাটারিটি থাকায়, যখন-তখন যে কোনো জায়গায় এটি খুলে চার্জে বসানো যাবে। আবার এর ওজন ১০ কেজি হওয়ায় এটি বহন করাও তেমন একটা চাপের ব্যাপার নয়। ঝঞ্ঝাটহীন রাইডিংয়ের অভিজ্ঞতা দিতে মোটোভল্ট মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনের সাথে স্কুটারটি কানেক্ট করার ব্যবস্থা থাকছে।

ক্রেতাদের কথা চিন্তা করে স্কুটারটি সাবস্ক্রিপশন সুবিধা সহ আনার কথা জানিয়েছে কলকাতার কোম্পানিটি। সে ক্ষেত্রে স্কুটারটি নিজের কাছে রাখার ভিত্তিতে মাশুল গুনতে হবে ব্যবহারকারীকে। এর ফলে নতুন স্কুটার কেনার খরচ বাঁচাতে পারবেন গ্রাহকরা। আবার সংস্থাটি এম৭ স্কুটার ব্যবহারকারীদের জন্য ইন্ডাস্ট্রির প্রথম মাত্রাহীন ব্যাটারি লাইফের সুবিধা দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছে।

M7 ই-স্কুটারে দেওয়া হয়েছে একটি এআইএস ১৫৬ ফেজ ২ সুবিধা যুক্ত ব্যাটারি, যাতে অগ্নি প্রতিরোধক ফিচার বর্তমান। যে কারণে ইদানিং উপর্যুপরি ঘটনা প্রত্যক্ষ করে ইলেকট্রিক স্কুটারে আগুন ধরে যাওয়ার যে ভীতি তৈরি হয়েছে ক্রেতাদের মধ্যে, তা মিটবে বলেই আশা করা যায়। আবার সোয়াপেবল ব্যাটারির কারণে একাধিকবার ব্যবহারের ক্ষেত্রে এটি সুবিধা প্রদান করবে।