লঞ্চের আগে ফের Tata Tiago EV-র ফিচার্স ফাঁস, দেশের সবচেয়ে সস্তা এই বৈদ্যুতিক গাড়ি চার্জও হবে ঝড়ের গতিতে

Tata Tiago EV new features leak
Tata Tiago EV new features

ভারতের সবচেয়ে সাশ্রয়ী মূল্যের ইলেকট্রিক গাড়ি হিসেবে Tata Tiago EV ২৮ সেপ্টেম্বর আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে। টাটা মোটরস (Tata Motors) নিজেদের বেস্ট সেলিং আইসিই হ্যাচব্যাক মডেলের ব্যাটারি পরিচালিত ভার্সনটি বাজারে আনার জন্য মুখিয়ে রয়েছে। জানা গেছে, সব ঠিকঠাক চললে ২০২৩-এর জানুয়ারিতেই বাজারে লঞ্চ করা হবে গাড়িটি। এটি হতে চলেছে সংস্থার তৃতীয় বৈদ্যুতিক মডেল। এদিকে আত্মপ্রকাশের আগেই Tiago EV-র একাধিক ফিচার উন্মোচিত করল টাটা।

টাটা মোটরসের তরফে নিশ্চিত করা হয়েছে যে, Tiago EV ফাস্ট চার্জিং ফিচার সহ হাজির হবে। আবার Tigor EV-র ২৬ কিলোওয়াট আওয়ার লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি প্যাক এতেও ব্যবহার করা হবে। ব্যাটারিটি একটি ডিসি ফাস্ট চার্জারে ৮০ শতাংশ চার্জ হতে প্রায় এক ঘন্টা সময় লাগে। যার সাহায্যে নতুন গাড়িটি ৩০০ কিমির কাছাকাছি রেঞ্জ দেবে বলে আশা করা যায়।

আবার টাটার কমার্শিয়াল ইভি গাড়ি XPres-T-তে ব্যবহৃত ২১.৫ কিলোওয়াট আওয়ার এবং ১৬.৫ কিলোওয়াট আওয়ার ব্যাটারি প্যাক Tiago EV -তে ব্যবহার করা হতে পারে। XPres-T-এর আউটপুট ৪১ এইচপি এবং ১০৫ এনএম টর্ক। এতে কানেক্টেড কার টেকনোলজি (ZConnect) থাকতে চলেছে বলে নিশ্চিত করেছে টাটা। আসন্ন গাড়িটি স্মার্টওয়াচ কানেক্টিভিটি সাপোর্ট করবে। এছাড়া এর আপার ট্রিমে থাকছে প্রিমিয়াম লেদারেট সিট।

প্রসঙ্গত, Tiago EV-তে ক্রুজ মোড এবং পেডাল ড্রাইভ টেকনোলজি অফার করা হবে বলে গত সপ্তাহে জানিয়েছিল টাটা। দ্বিতীয় ফিচারটি চালককে স্ট্রং রি-জেনারিটিভ ব্রেকিংয়ের সুবিধা দেবে। অর্থাৎ গাড়ি চালানোর সময় যতবার ব্রেক কষা হবে, এতে উপস্থিত ব্যাটারিটি নিজে থেকেই চার্জ হতে থাকবে। আবার মাল্টি-মোড রিজেন ফাংশানালিটি দেওয়া হতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। লঞ্চের পর Tiago হতে চলেছে দেশের প্রথম ছোট মডেলের গাড়ি, যেটি পেট্রোল, সিএনজি এবং ব্যাটারি ভার্সনে উপলব্ধ।

শুভদীপ টেকগাপে অটোকার বিষয়ক লেখালিখি করে। এর আগে বিভিন্ন পোর্টালের সাথে যুক্ত থাকলেও, অটোকার নিয়ে টেকগাপে তার হাতেখড়ি। দিনকে দিন সে টেকগাপের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে উঠেছে।