Homeঅটোকারইলেকট্রিক গাড়িTata Tiago EV: দাম কম হলেও ফিচার্সে থাকবে চমক, দেশের সবচেয়ে সস্তা ইলেকট্রিক গাড়ি দুই বিশেষ বৈশিষ্ট্যের সাথে আসছে

Tata Tiago EV: দাম কম হলেও ফিচার্সে থাকবে চমক, দেশের সবচেয়ে সস্তা ইলেকট্রিক গাড়ি দুই বিশেষ বৈশিষ্ট্যের সাথে আসছে

Tata Tiago EV ভারতের এখনও পর্যন্ত সবচেয়ে সস্তার ইলেকট্রিক গাড়ি হিসেবে আসতে চলেছে। যার উপর থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর পর্দা সরানো হবে বলে জানিয়েছে সংস্থা। এদিকে ব্যাটারি চালিত মডেলটি আত্মপ্রকাশের আগেই এর কিছু ফিচার্স সর্বসমক্ষে আনলো টাটা মোটরস (Tata Motors)। যাই হোক Tata Nexon EV, Nexon EV Max, Tigor EV-দের দলে এবার নতুন অংশগ্রহণকারী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে Tiago EV।

টাটা মোটরস নিশ্চিত করেছে তাদের আসন্ন Tiago EV-তে ক্রুজ মোডের পাশাপাশি পেডাল ড্রাইভ টেকনোলজি-ও অফার করা হবে। দ্বিতীয় ফিচারটি চালককে স্ট্রং রিজেনারেটিভ ব্রেকিংয়ের সুবিধা দেবে। অর্থাৎ চালক গাড়ি চালানোর সময় যতবার ব্রেক কষবেন এতে উপস্থিত ব্যাটারিটি নিজে থেকেই চার্জ হতে থাকবে। আশা করা হচ্ছে, এতে মাল্টি-মোড রিজেন ফাংশানালিটি থাকতে পারে।

Tiago EV হতে চলেছে ভারতের প্রথম আইসিই মডেলে উপলব্ধ হ্যাচব্যাক গাড়ির ইলেকট্রিক ভার্সন। এটি আবার সিএনজি ভার্সনেও কেনা যায়। যেটি এ বছর জানুয়ারি মাসে বাজারে লঞ্চ করেছিল টাটা। উল্লেখ্য, Tigor হল টাটার প্রথম মডেল যেটি তাদের লাইনআপের মধ্যে সর্বপ্রথম তিন ধরনের জ্বালানির বিকল্পে হাজির হয়েছিল। ৯ সেপ্টেম্বর বিশ্ব ইলেকট্রিক ভেহিকেল দিবসের দিন Tiago EV-র লঞ্চের খবর প্রকাশ্যে জানিয়েছিল টাটা।

অনুমান করা হচ্ছে, Tiago EV একই জিপট্রন প্রযুক্তির মোটর পেতে চলেছে যা Nexon EV ও Tigor EV-তেও উপস্থিত। টাটার ফ্লিট মডেল হিসেবে বিক্রিত XPres-T-এর ব্যাটারিটি আসন্ন মডেলটিতে দেওয়া হতে পারে। যা একটি ২১.৫ ও ১৬.৫ কিলোওয়াট আওয়ার ক্ষমতার হাই এনার্জি ডেনসিটি ব্যাটারি। Tata XPres-T-এর পাওয়ার আউটপুট ৪১ এইচপি এবং ১০৫ এনএম টর্ক।

আবার Tiago EV -তে Tigor EV-র ২৬ কিলোওয়াট আওয়ার লিথিয়াম আয়ন ক্ষমতার ব্যাটারিটিও দেওয়া হতে পারে। যা থেকে সর্বোচ্চ ৭৫ এইচপি শক্তি এবং ১৭০ এনএম টর্ক পাওয়া যায়। অনুমান করা হচ্ছে নতুন মডেলটির রেঞ্জ হতে পারে ৩০০ কিমি। Tigor EV-র ব্যাটারিটি ডিসি ফার্স্ট চার্জারে ৮০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ হতে প্রায় এক ঘন্টা সময় লাগে এতে।

আরও পড়ুন