Toyota Innova EV: টয়োটার প্রথম ইলেকট্রিক গাড়ি আসছে ভারতে? লঞ্চের আগেই ফাঁস ছবি

Toyota Innova Electric Spotted Testing

কয়েকদিন আগেই ইন্দোনেশিয়ার বাজারে লঞ্চ হয়েছে টয়োটার (Toyota) নতুন মাল্টিপারপাস ভেহিকেল (MPV) Innova Zenix। এই একই মডেলকেই নাম পরিবর্তন করে দেশের বাজারে এনেছে তারা। সেই ভারতীয় সংস্করণের নাম Innova Hycross। আগামী বছরের জানুয়ারি থেকেই এখানে গাড়িটির বিক্রি শুরু হবে। এর পাশাপাশি Innova Crysta মডেলটির বিক্রিও চালু থাকবে বলে জানিয়েছে টয়োটা। যা ডিজেল গাড়িপ্রেমীদের কাছে খুবই জনপ্রিয়।

তবে এখন সবচেয়ে বড় খবর হল টয়োটা ভারতে তাদের প্রথম পিওর ইলেকট্রিক গাড়ি হিসাবে ইনোভার বৈদ্যুতিক সংস্করণ আনার ব্যাপারে অনেকটা পথ এগিয়েছে। চলতি বছরের শুরুতেই Innova EV সংক্রান্ত একটি ধারণা অর্থাৎ প্রোটোটাইপ সংস্করণ ইন্দোনেশিয়ায় অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক মোটর শো তে দেখিয়েছিল সংস্থাটি। এখন প্রথমবারের জন্য ইন্দোনেশিয়ার রাস্তায় গাড়িটির ইলেকট্রিক ভার্সনের টেস্টিং করার সময় ধরা পড়ল।

বলে রাখি, Innova EV কনসেপ্ট কিন্তু কোনোভাবেই Zenix কিংবা Hycross-র উপর নির্মিত নয়। বরঞ্চ ভারতের বাজারে বিক্রি হওয়া Innova Crysta-র উপরেই তৈরি নতুন এটি। গাড়িটির বেশিরভাগ ডিজাইনই অনেক ক্ষেত্রেই Innova Crysta-র অনুরূপ। তবে বৈদ্যুতিক গাড়ির পরিচিতি দিতে আলাদা ডিজাইন রেখেছে টয়োটা। সামনের ফ্যাসিয়ায় রয়েছে নতুন বাম্পার। এছাড়াও বৈদ্যুতিক গাড়ির ক্ষেত্রে থাকা নীল রঙের থিম গাড়ির হেডলাইটের পাশাপাশি সংস্থার লোগোতেও দেওয়া হয়েছে।

সামনের বাম্পারের দুপাশে উলম্বভাবে অবস্থিত হেডলাইটের অংশ। গাড়িটির দু’পাশে নীল রঙের গ্রাফিক্স এর ব্যাটারি চালিত বৈশিষ্ট্যকে প্রকাশ করতে সাহায্য করে। সাথে রয়েছে নতুন ধরনের অ্যালয় হুইল। যদিও ইনোভা ইলেকট্রিকের অন্দরমহল ডিজেল চালিত সংস্করণটির মতোই রাখা হয়েছে। ভেতরে রয়েছে একটি টাচস্ক্রিন যুক্ত ইনফটেনমেন্ট সিস্টেম, তিনটি স্পোকের মাল্টি ফাংশনাল স্টিয়ারিং হুইল ও নীল গ্রাফিক্স সহ অ্যানালগ ইন্সট্রুমেন্ট কনসোল। এই ইনফটেনমেন্ট স্ক্রিনে ব্যাটারির চার্জ, রেঞ্জ ও পাওয়ার আউটপুট সংক্রান্ত সমস্ত তথ্যই দেখা সম্ভব।

প্রসঙ্গত, ইন্দোনেশিয়ায় গাড়িটির প্রোটোটাইপ মডেল দেখানোর সময় টয়োটার মার্কেটিং ডিরেক্টর এন্টন জিমি জানিয়েছিলেন, ইনোভা ইলেকট্রিক শুধুমাত্র ইঞ্জিনিয়ারিং কারিকুরি প্রকাশ করতেই দেখানো হয়েছে। এটি এখন বিক্রি করার যোগ্য নয়। তবে এই ধারণার উপর নির্ভর করেই আগামী দিনে রিসার্চ ও ডেভেলপমেন্ট মারফত নতুন ইভি লঞ্চ করা হবে। আর টেস্টিংয়ের খবর সেই সম্ভাবনাকেই তীব্র করল।