স্টিয়ারিং হাতে খোদ সিইও, Xiaomi ইলেকট্রিক গাড়ির প্রথম ছবি চলে এল প্রকাশ্যে

Xiaomi First Electric Car Modena Caught Testing launch in 2024

চীনের বিখ্যাত স্মার্টফোন নির্মাতা শাওমি (Xiaomi) দীর্ঘদিন ধরেই তাদের ইলেকট্রিক গাড়ি বাজারে লঞ্চের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গত বছর সংস্থা সূত্রে জানানো হয়েছিল ২০২৪-এ বাজারে আসবে এটি। যদিও গাড়িটি লঞ্চের নির্দিষ্ট সময়কাল সম্পর্কে এখনও কিছু জানা যায়নি। তবে এবারে শাওমির মোডেনা (Modena) নামক আসন্ন ওই ইলেকট্রিক গাড়িটির টেস্টিংয়ের প্রথম ছবি ফাঁস হয়েছে। সেখানে স্টিয়ারিং হাতে খোদ সংস্থার সিইও লেই জুনকে দেখা গিয়েছে। হাড় হিম করা ঠান্ডায় রাশি রাশি বরফের উপর গাড়িটির পরীক্ষা চালানো হচ্ছে। হিমাঙ্কের চাইতে কম তাপমাত্রায় ট্রায়াল চালিয়ে গাড়ি ও ব্যাটারির পারফরম্যান্স খতিয়ে দেখে নেওয়া হচ্ছে।

কার নিউজ চায়না-র আপলোড করা ছবিতে দেখা গিয়েছে এটি একটি বৈদ্যুতিক সেডান গাড়ি। এতে রয়েছে লম্বা বনেট এবং স্লোপ্ড রুফলাইন। এতে LiDAR সেন্সর রয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। জল্পনা শোনা যাচ্ছে, শাওমি তাদের প্রথম গাড়িটি তিনটি ভিন্ন মডেলে লঞ্চ করবে। তার আগোপূর্ব এশিয়ার ছোট্ট রাষ্ট্র মঙ্গোলিয়ার মাটিতে চানালো হচ্ছে ট্রায়াল। এটি চীনের শীতলতম অঞ্চল। তাই মঙ্গোলিয়াকে পরীক্ষার স্থল হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে।

দুটি মডেলের মধ্যে একটিতে দেয়া হতে পারে বিল্ড ইওর ড্রিমস বা বিওয়াইডি (BYD)-এর ব্লেড ব্যাটারি। চীনের বিওয়াইডি বর্তমানে বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে। আবার অন্য এক সংস্থা সিএটিএল শাওমি ইভি-তে তাদের কিলিন ব্যাটারি দিতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে। এটি মাত্র ১৫ মিনিটে ০-৮০% চার্জ হয়ে যাবে। ইনফোটেনমেন্ট সিস্টেমের মধ্যে গাড়িটিতে উপস্থিত একটি Qualcomm 8295 চিপ।

Xiaomi First Electric Car Modena Caught Testing launch in 2024

উল্লেখ্য, ২০২১-এর সেপ্টেম্বরে বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাণের জন্য শাওমি আরাদা করে ১৫০ কোটি ডলার বা প্রায় ১২,১৪৬ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের ঘোষণা করেছিল। তবে ছাড়পত্র মিলতে সমস্যা হওয়ার কারণে তাদের ইভি উৎপাদনে কিছুটা বিলম্ব হয়ে গিয়েছে। আগামী বছরের প্রথমার্ধে শাওমির প্রথম বৈদ্যুতিক গাড়ি আনুষ্ঠানিক ভাবে লঞ্চ হতে পারে।

শাওমির মডেনা গাড়িটির দাম ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩১.২০ লক্ষ টাকা থেকে ৪২.০১ বক্ষ টাকা রাখা হতে পারে বলে জল্পনা দানা বেঁধেছে। সংস্থাটি তাদের এই গাড়িটর এক কোটির বেশি ইউনিট বছরে বিক্রির লক্ষ্যমাত্রা স্থির করেছে। আবার Modena-র পাশাপাশি Lemans নামে তারা অপর একটি ইভির উপর কাজ করছে বলেও গুঞ্জন। এটি ২০২৫-এ বাজারে পা রাখতে পারে।