Electric Bike: গুগলের প্রযুক্তি এবার ই-বাইকে, উপভোগ করা যাবে প্রচুর স্মার্ট ফিচার

প্রিমিয়াম বাইক প্রস্তুতকারী বহুজাতিক সংস্থা হার্লে ডেভিডসন (Harley-Davidson)-এর ইলেকট্রিক বাইসাইকেল তৈরির শাখার নাম ‘সিরিয়াল ১’ (Serial 1)। ২০২০-তে মূল সংস্থা থেকে পৃথক করে এই ব্র্যান্ডের নামে আলাদা ভাবে পণ্য উৎপাদনের সিদ্ধান্ত নেয় হার্লে ডেভিডসন। এবারে সিরিয়াল ১-এর ইলেকট্রিক বাইকে যুক্ত হতে চলেছে গুগল ক্লাউড (Google Cloud) পরিষেবা। দ্য ভার্জ-এর রিপোর্ট অনুযায়ী সংস্থাটি গুগল ক্লাউড-এর সাথে হাত মেলানোর ফলস্বরূপ এই প্রথম একগুচ্ছ নতুন সফটওয়্যার ফিচার-সহ আসতে চলেছে তাদের বৈদ্যুতিক সাইকেল।

কী কী সুবিধা মিলবে এতে?

গুগল ক্লাউড চালিত ই-বাইকগুলির ব্যবহারকারীরা সমগ্র যাত্রাপথের তথ্য ধরে রাখার সুবিধা পাবে। এতে তাৎপর্যপূর্ণ হারে নিরাপত্তা বাড়বে বলে জানিয়েছে সিরিয়াল ১। মোবাইল অ্যাপে টার্ন-বাই-টার্ন নেভিগেশন এবং সুরক্ষার ফিচারও নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে ইউজাররা।

আবার এতে গুগল ম্যাপ ফিচার সংযুক্ত থাকবে, যাতে অচেনা পথ পাড়ি দিতে গ্রাহকদের কোনো সমস্যা না হয়। এছাড়াভার্চুয়াল গ্যারেজ ফিচার থাকছে এতে। যার ফলে গ্রাহকরা তাদের ই-বাইকের অবস্থান স্মার্টফোনের মাধ্যমে ট্র্যাক করতে পারবে। মোবাইল অ্যাপের ড্যাশবোর্ডে সফর, গতিবেগ, যাত্রা করা পথের দূরত্ব, রেঞ্জ, পাওয়ার আউটপুট, কতটা চার্জ রয়েছে সহ আরও অন্যান্য তথ্য সেভ থাকবে। আবার বাইকে কোনো পরিবর্তনের দরকার পড়লে, এই অ্যাপ অটোমেটিক সার্ভিস আপডেট সরবরাহ করবে।

রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, ব্যবহারকারীর স্মার্টফোনের সাথে ইলেকট্রিক বাইসাইকেলের সংযোগ দৃঢ় করবে গুগল ক্লাউড। বর্তমানে বেশিরভাগ বৈদ্যুতিক সাইকেল স্মার্টফোনের সাথে সংযোগ স্থাপনের জন্য ব্লুটুথ কানেকশন ব্যবহার করা হয়।  সিরিয়াল ১-এর ইলেকট্রিক বাইকে ব্লুটুথের পাশাপাশি সেলুলার এবং জিপিএস টেকনোলজি উপলব্ধ থাকবে বলে জানা গিয়েছে।