ভারতের বাজারে টাটার নতুন রেকর্ড, আনন্দ উদযাপনে গাড়িতে 1.40 লক্ষ টাকার বিশাল ছাড় দিচ্ছে সংস্থা

টাটা মোটরস আজ তাদের এসইউভি গাড়ির বিক্রি ২০ লক্ষ ইউনিট পেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা করল। পাঞ্চ, হ্যারিয়ার, সাফারি (নতুন ও পুরনো ভার্সন), এবং সিয়েরা সংস্থাকে এই নজির গড়তে বড় ভূমিকা নিয়েছে। ১৯৯১ সালে টাটা তাদের প্রথম এসইউভি হিসাবে সিয়েরা লঞ্চ করেছিল। ২০১৪ সালে তারা নিয়ে আসে দেশের প্রথম কম্প্যাক্ট এসইউভি, নেক্সন। আর ২০২১ সালে পাঞ্চের হাত ধরে সাব-কম্প্যাক্ট এসইউভি সেগমেন্টে সংস্থার যাত্রা শুরু হয়।

এই নতুন মাইলফলক গড়ার আনন্দে ক্রেতাদের জন্য গাড়ির দামের উপর বিশাল ছাড় দিচ্ছে টাটা। হ্যারিয়ার মডেলটির দাম এখন ১৪.৯৯ লক্ষ (এক্স-শোরুম) টাকা থেকে শুরু হচ্ছে। অন্যদিকে, সাফারি এসইউভি-র মূল্য শুরু হচ্ছে ১৫.৪৯ লক্ষ টাকা থেকে। গাড়ি দু’টির নির্বাচিত ভ্যারিয়েন্টে সর্বাধিক ১.৪০ লক্ষ টাকা ছাড় পাওয়া যাবে।

এছাড়া, টাটা নেক্সন ইভি-তে ১.৩ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বেনিফিট চলছে। পাঞ্চ ইভি মডেলটিতেও ৩০,০০০ টাকা ছাড় পাওয়া যাচ্ছে। এই দুই গাড়ি সম্প্রতি ভারত এনক্যাপ থেকে ফাইভ স্টার সেফটি রেটিং পেয়েছে। আবার হ্যারিয়ার ও সাফারি-ও ভারত এনক্যাপের ক্র্যাশ টেস্টে ফাইভ স্টার রেটিং লাভ করেছে। বর্তমানে টাটার ঝুলিতে সবচয়ে বেশি ফাইভ স্টার সেফটি রেটিং যুক্ত গাড়ি রয়েছে।

এই প্রসঙ্গে টাটা প্যাসেঞ্জার ইলেকট্রিক মোবিলিটি লিমিটেডের চিফ কমার্শিয়াল অফিসার বিবেক শ্রীবৎস বলেন, “এসইউভি সেগমেন্ট বোঝার এবং প্রতিটি গ্রাহকের প্রয়োজনের জন্য সঠিক পণ্য সরবরাহ করার আমাদের ক্ষমতা এই সেগমেন্টে ধারাবাহিকতা এবং নেতৃত্ব বজায় রাখতে আমাদের ব্যাপকভাবে সাহায্য করেছে৷ আমাদের লক্ষ্য, ভারতীয় গ্রাহকদের বিশ্বমানের এসইউভি প্রদান করা যা শক্তিশালী, নিরাপদ এবং প্রযুক্তিগতভাবে উন্নত। ২০ লক্ষের বেশি এসইউভি বিক্রি আমাদের সেই প্রতিশ্রুতির একটি প্রমাণ।