নতুন ফিচারে সজ্জিত করে তরুণ প্রজন্মের মনের মতো স্কুটার আনল Yamaha

2023 Yamaha XMax 125 Maxi Scooter launched in Europe

আবারোও এক নতুন ম্যাক্সি স্টাইলের স্কুটারের সাক্ষী রইল বিশ্ববাসী। ইয়ামাহা(Yamaha) তার জনপ্রিয় ম্যাক্সি স্কুটার XMax 300 এর ছোট সংস্করণ XMax 125 এর আপডেটেড ভার্সন লঞ্চ করল ইউরোপের বাজারে। আসলে গত কয়েক বছরের ট্রেন্ড অনুযায়ী চিরাচরিত ধাঁচে নির্মিত স্কুটারের থেকে ফিউচারিস্টিক ডিজাইনের ম্যাক্সি স্কুটারের চাহিদা অনেকটাই বেশি। ভারতবর্ষের পাশাপাশি বিশ্বের বাজারে এরকম বেশ কিছু স্কুটার লঞ্চ করেছে নামিদামি সব সংস্থারা। অত্যাধুনিক ডিজাইন ও প্রযুক্তির বলে বলিয়ান এই স্কুটারগুলি এখন যেন আধুনিক প্রজন্মের নয়নের মনি।

XMax 125 মডেলটি তার বড় ভাই ৩৫০ সিসির সংস্করণটির মতোই স্ট্যান্ডার্ড ও টেক-ম্যাক্স এই দুটি সংস্করণে পাওয়া যাবে। দ্বিতীয় সংস্করণটি অনেক বেশি আধুনিক প্রযুক্তি সমৃদ্ধ। উভয় ক্ষেত্রেই চালিকাশক্তি যোগাবে ১২৫ সিসির সিঙ্গেল সিলিন্ডার লিকুইড কুলিং সিস্টেম যুক্ত শক্তিশালী ইঞ্জিন। সর্বাধিক ১২ বিএইচপি শক্তি এবং ১১.২ এনএম টর্ক উৎপাদন করার ক্ষমতা রয়েছে এই ইঞ্জিনের।

তবে ডিজাইনের প্রসঙ্গে বলতে গেলে এর ক্ষেত্রেও আগের ন্যায় শার্প এবং তরতাজা ডিজাইন অপরিবর্তিত রাখা হয়েছে। একই ধরনের স্প্লিট হেডলাইট এবং স্পোর্টি লুকস আধুনিক প্রজন্মের গ্রাহকদের প্রবলভাবে আকর্ষণ করবে। এছাড়াও ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে ৪.২ ইঞ্চির একটি টিএফটি স্ক্রিন। ব্লুটুথের সাহায্যে এর সাথে স্মার্টফোন যুক্ত করা সম্ভব। মিউজিক প্লে ব্যাক, জারমিন নেভিগেশন, কল ও মেসেজ অ্যালার্ট সবকিছুই মিলবে এই ডিসপ্লেতে।

এমনকি সাসপেনশনের জন্য সামনে পূর্বের মতোই একই ধরনের টেলিস্কোপিক ফর্ক ও পিছনে ডুয়েল সক অ্যাবসজর্ভার দেওয়া হয়েছে। ব্রেকিং এর দায়িত্ব সামলাতে সামনের চাকায় ২৬৭ মিমি ডিস্ক ও পিছনের চাকায় ২৪৫ মিমি ডিস্ক ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে অতিরিক্ত সুরক্ষার্থে সিঙ্গেল চ্যানেল এবিএস বিদ্যমান। সামনে ও পিছনে থাকা ১৫ ইঞ্চি ও ১৪ ইঞ্চির চাকার সাথে যুক্ত রয়েছে ১২০/৭০ ও ১৪০/৭০ সেকশনের চওড়া টায়ার। ইয়ামাহা XMax 125 এর ওজন ১৬৭ কেজি। স্কুটারটির তেল ধারন ক্ষমতা ১৩.২ লিটার।

এই মুহূর্তে ভারতের মাটিতে রয়েছে ইয়ামাহার একমাত্র ম্যাক্সি স্কুটার Aerox 155। তাই XMax 125 মডেলটির বর্তমানে ভারতের আসার সম্ভাবনা নিতান্তই কম।