বাইক ও স্কুটার

বাইকে এমন ফিচার প্রথম, উচ্চতা বাড়ানো বা কমানোর সুবিধা নিয়ে ভারতে হাজির Benda Dark Flag

২০২২ সালে একগুচ্ছ নামকরা বৈদেশিক মোটরবাইক সংস্থাকে এদেশে সসম্মানে নিয়ে এসেছে আদিশ্বর অটো রাইড ইন্ডিয়া (AARI)। আর এবার পালা চীনের আরও এক নামজাদা প্রিমিয়াম বাইক প্রস্তুতকারী সংস্থা বেন্ডা (Benda)। ইতিমধ্যেই সদ্য শেষ হওয়া অটো এক্সপো ইভেন্টে এই নির্মাতা আগামীতে ভারতবর্ষে আগত বেশ কয়েকটি প্রিমিয়াম ক্রুজার বাইকে প্রদর্শন করেছে। তার মধ্যে বহু আলোচিত এবং সবচেয়ে বেশি নজর কেড়েছে Benda Dark Flag V4। যা গত বছরের নভেম্বরেই চীনে আত্মপ্রকাশ করেছে। আগামী জুন মাস থেকেই সেখানে বাইকটির ডেলিভারি দেওয়া শুরু হবে। শোনা যাচ্ছে, চলতি বছরের শেষের দিকেই সীমানা পেরিয়ে ভারতের মাটিতে পদার্পণ করার পরিকল্পনা রয়েছে এই বাইকের।

Benda Dark Flag V4 একটি স্বল্প বাজেটের মধ্যে তৈরি ফোর সিলিন্ডার যুক্ত ক্রুজার বাইক। একে চালিকাশক্তি জোগায় চারটি ভাল্ভ যুক্ত ৪৯৬ সিসির লিকুইড কুল্ড ইঞ্জিন। ছয় স্পিড গিয়ারবক্স যুক্ত এই ইঞ্জিনটি থেকে ১০,০০০ আরপিএম গতিতে সর্বোচ্চ ৫২.৮ বিএইচপি শক্তি এবং ৭,৫০০ আরপিএম গতিতে সর্বাধিক ৪২ এনএম টর্ক উৎপাদিত হয়। বাইকটির ওজন ২৩১ কেজি (ড্রাই)।

বেন্ডা ডার্ক ফ্ল্যাগ ক্রুজারের ডিজাইন বেশ নিচু ধরনের। মডেলটির দৈর্ঘ্য, প্রস্থ ও উচ্চতা যথাক্রমে ২৩৩০ মিমি, ৯০৭ মিমি এবং ১১১০ মিমি। বাইকটির হুইলবেস ১,৫৭৫ মিমি দীর্ঘ। বাইকটির বেশ কিছু আকর্ষণীয় লুক নজরে আসে। এদের মধ্যে রয়েছে এলইডি হেডল্যাম্প, ডুয়েল এগজস্ট পাইপ, উঁচু করা স্প্লিট সিট এবং ১৬ লিটারের টিয়ার-ড্রপ আকৃতির ফুয়েল ট্যাংক।

বেন্ডা ডার্ক ফ্ল্যাগের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ হল এয়ার সাসপেনশন। অর্থাৎ প্রয়োজনমতো এই সাসপেনশনের উচ্চতা বাড়ানো ও কমানো করা যায়। এই সুবিধা সাধারণত থামীঅপ্রিমিয়াম গাড়িতে দেখতে পাওয়া গেলেও মোটরসাইকেলের দুনিয়ায় প্রথম। বাইকটির সামনে রয়েছে ইউএসডি ফর্ক এবং পিছনে ডুয়েল শক অ্যাবজরভার। ব্রেকিং এর দায়িত্ব সামলাতে সামনে ও পিছনে উভয়দিকেই একটি করে ডিস্ক থাকলেও এতে শুধুমাত্র সিঙ্গেল চ্যানেল এবিএস উপলব্ধ রয়েছে। বেন্ডার এই ক্রুজার বাইকটির সামনে ও পিছনে উভয় দিকে ১৬ ইঞ্চির চাকা থাকলেও সামনে ১৩০ সেকশন ও পিছনে ১৫০ সেকশনের টায়ার ব্যবহৃত হয়েছে।

চলতি বছরের দ্বিতীয় অর্ধেই সম্ভবত ভারতের মাটিতে আস্তানা গাড়তে চলেছে চীনা বাইক নির্মাতা বেন্ডা। প্রতিবেশী দেশ থেকে মোটরসাইকেল আমদানি করা হলেও অ্যাসম্বেল এ দেশেই সম্পন্ন হবে। এই কাজে যুক্ত থাকবে আদিশ্বর অটো রাইড ইন্ডিয়া। সংস্থার আগত নতুন প্রিমিয়াম রেঞ্জের বাইকগুলির দাম ৮ লাখ টাকার আশেপাশে হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

Back to top button