Honda তৈরি করছে ‘Splendor’ ঘাতক, Hero-কে চাপে ফেলতে নতুন অস্ত্রের আগমন আগামী বছর

ভারতের প্রতি মাসে সর্বাধিক বিক্রিত কমিউটার মোটরসাইকেলের তালিকায় পাকাপাকি ভাবে শীর্ষস্থান দখল করে থাকে Hero Splendor। যা প্রধান প্রতিপক্ষ হোন্ডা (Honda)-র গাত্রদাহের একটি অন্যতম কারণ। স্প্লেন্ডারের দাপট কমাতে জাপানি সংস্থাটি তাই একটি কম সিসির কমিউটার বাইক তৈরিতে হাত লাগিয়েছে। যেটি আগামী বছরই বাজারে আসতে চলেছে বলে জোর জল্পনা চলছে। আসুন হোন্ডার আসন্ন সস্তা বাইকটির সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

এটি একটি ১০০ সিসি ইঞ্জিনের সাথে আসবে। এত কম ডিসপ্লেসমেন্টের বাইক আনার কারণ ১২৫ সিসি সেগমেন্টে ইতিমধ্যেই SP 125 ও Shine যথেষ্ট সুখ্যাতি অর্জন করেছে। তাই এবারে ১০০ সিসি সেগমেন্টকে পাখির চোখ করে এগোতে চাইছে হোন্ডা। দেশের গ্রামাঞ্চলে বসবাসকারী ক্রেতাদেরকে লক্ষ্য বানানো হচ্ছে এটি। তাই সস্তা, ভরসাযোগ্য, ভালো সাসপেনশন ও হ্যান্ডলিং না দিতে পারলে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকা কঠিন হবে।

Honda 100cc bike স্পেসিফিকেশন

হোন্ডার তরফে ১০০ সিসি ইঞ্জিনের সম্পর্কে এখনও পর্যন্ত কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। বর্তমানে ১১০ সিসি সেগমেন্টে তাদের দুটি মোটরসাইকেল রয়েছে। যার আউটপুট ৮.৭ বিএইচপি এবং ৯.৩ এনএম। তাই বলা যায় নতুন ইঞ্জিনের ক্ষমতা তার তুলনায় সামান্য কম হবে। এদিকে নতুন মডেলের মাইলেজ সম্পর্কেও বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে হোন্ডা। আশা করা হচ্ছে, এক লিটার পেট্রোলে বাইকটি ৬৫ থেকে ৭০ কিলোমিটার পথ দৌড়তে সক্ষম হবে।

Honda 100cc bike লঞ্চের সময়কাল ও দাম

হোন্ডা ইন্ডিয়ার সিইও এবং এমডি আতসুশি ওগাতা বলেছিলেন, নতুন বাইকটি সাশ্রয়ী মূল্যে হাজির করা হবে। তিনি এও জানান ২০২৩-এ এটিই হোন্ডার প্রথম লঞ্চ হতে পারে। তাই আশা করা যায় বছরের প্রথমার্ধেই বাজারে পা রাখবে ১০০ সিসি বাইকটি। এর দাম ৭০,০০০ থেকে ৭৫,০০০ টাকার কাছাকাছি রাখা হতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে। প্রতিপক্ষদের মধ্যে থাকবে Splendor, HF Deluxe, Bajaj Platina ইত্যাদি।