টাইট বাজেট? নতুনের বদলে সেকেন্ড হ্যান্ড TVS Apache RTR 160 4V কেনা কতটা লাভজনক, জানুন

TVS Apache RTR 160 4V Pros and Cons
টিভিএস অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ৪ভি ভালো ও খারাপ দিক

TVS Apache RTR 160 4V, অত্যন্ত জনপ্রিয় এই মোটরসাইকেলটি আজকের দিনে দাঁড়িয়ে ভারতের সেরা ১৬০ সিসি বাইকগুলোর মধ্যে অন্যতম। বিগত কয়েক বছরে এই স্ট্রিট ফাইটারটির শার্প ডিজাইন , স্পোর্টিং লুক উন্নতমানের পারফরমেন্স, এবং শক্তিশালী ইঞ্জিনের পাশাপাশি আরামদায়ক যাত্রা অনুভবের জন্য যুবসমাজ এর কাছে এই মডেলটি অত্যন্ত আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে। বাজেটের মধ্যে এটি সেরা অপশন হলেও বর্তমানে সেমিকন্ডাক্টর চিপের মূল্য বৃদ্ধির জন্য TVS Apache RTR 4V এর দাম স্বাভাবিকভাবেই অনেকটাই বেড়েছে। এখন এর নতুন মডেলের অন-রোড প্রাইস ১.৫০ লাখ টাকার আশেপাশে।

সুতরাং, যদি বাজেট সংকুলানের জন্য আপনাকে সেকেন্ড হ্যান্ড মডেল কিনতে হয় তাহলে অবশ্যই এর ভালো ও খারাপ দিকটি জানতে হবে। এই হাতফেরতা স্ট্রিট ফাইটারটি মোটামুটি ৬০ হাজার থেকে ১ লাখের মধ্যে পাওয়া যেতে পারে। চলুন, তাহলে দেখে নেওয়া যাক হাত-ফেরতা মডেলের ভাল ও মন্দ দিকগুলি।

TVS Apache RTR 160 4V ভালো দিক

টিভিএস অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ৪ভি-এর ভালো দিকগুলির মধ্যে সর্বপ্রথমেই রয়েছে এর উন্নত মানের ফিট এবং ফিনিশ। সমগ্র বাইকটিতে ব্যবহৃত রং ও প্লাস্টিকের গুণগত মান যথেষ্ট উন্নত। এর পূর্ববর্তী সংস্করণেই এলইডি ডিআরএল, এলইডি টেল লাইট ও প্রভূত তথ্যযুক্ত ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার দেওয়া রয়েছে। এর সাথে নতুন সংস্করণে যুক্ত হয়েছে এলইডি হেডলাইট, ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি, অ্যাডজাস্টেবল লিভার, রাইডিং মোড ও আরো অনেক কিছু।

উন্নত প্রযুক্তি ও ডিজাইনের সুসজ্জিত বাইকটিতে চালিকাশক্তি প্রদানকারী হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছে ১৬৯.৭ সিসি সিঙ্গেল সিলিন্ডার, অয়েল কুন্ড ইঞ্জিন যা সর্বোচ্চ ১৭.৩ বিএইচপি ক্ষমতা ও ১৪.৭৩ এনএম টর্ক উৎপাদন করতে পারে। সাথে রয়েছে পাঁচ ধাপযুক্ত গিয়ার বক্স। তাছাড়াও ইঞ্জিনের পারফরমেন্স যথেষ্ট পরিশীলিত।

TVS Apache RTR 160 4V খারাপ দিক

টিভিএস অ্যাপাচি আরটিআর ১৬০ ৪ভি-এর মূল সমস্যা হলো এটি ভালো পারফরমেন্স দিলেও রাইডিং কোয়ালিটি আশানুরূপ নয়। শহরের ব্যস্ত ট্রাফিকে লম্বা রাইডারদের জন্য এটি একেবারেই আরামদায়ক মোটরসাইকেল নয়। গাড়ির উচ্চগতি তিন সংখ্যায় ছোঁয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ইঞ্জিনে খানিকটা শিথিলতা অনুভব হয়। আবার উল্লেখিত মর্ডান ফিচার্সের বেশিরভাগটাই সম্প্রতি লঞ্চ করা নতুন সংস্করণের মধ্যেই পরিলক্ষিত হয়। সেক্ষেত্রে পুরনো মডেল কিনলে ওই ফিচারগুলির মধ্যে অধিকাংশ মিলবে না।

এই প্রোফাইল থেকে টেকগাপের সম্পাদকীয় দল এবং নিজস্ব সংবাদদাতাদের লেখা প্রকাশিত হয়৷