Homeঅটোকারবাইক ও স্কুটারনতুন Royal Enfield Himalayan 450 ফিচারে পরিপূর্ণ হয়ে বাজারে আসছে, জুনের পরেই লঞ্চ হতে পারে

নতুন Royal Enfield Himalayan 450 ফিচারে পরিপূর্ণ হয়ে বাজারে আসছে, জুনের পরেই লঞ্চ হতে পারে

গত বছর থেকে ভারতের রাস্তায় একাধিকবার Royal Enfield Himalayan 450-এর ট্রায়াল রান চলাতে দেখা গেছে। এবারে মোটরসাইকেলটির বেশকিছু বৈশিষ্ট্য সামনে এলো। সম্প্রতি ফাঁস হওয়া ছবিতে দেখা গিয়েছে বাইকটিতে থাকছে একটি বড় গোল এলসিডি সিঙ্গেল পড ইন্সট্রুমেন্ট কনসোল। এর ছোট ভাই অর্থাৎ Himalayan 411-তে উপস্থিত এলসিডি ডিসপ্লে সহ অ্যানালগ স্পিডো, একটি ছোট অ্যানালগ ট্যাকোমিটার, ফুয়েল মিটার, ডিজিটাল কম্পাস এবং সার্কুলার ট্রিপার নেভিগেশন স্ক্রিন। এছাড়া রাইডারের দিকে ঝোকানো একটি ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার দেওয়া হয়েছে।

রয়্যাল এনফিল্ড হিমালয়ান ৪৫০-এর ইঞ্জিন সম্পর্কিত তথ্য এখনও সামনে আসেনি। অনুমান করা হচ্ছে এতে একটি ৪৫০ সিসি ইঞ্জিন দেওয়া হতে পারে। যা থেকে সর্বোচ্চ ৩০ বিএইচপি শক্তি এবং ৪০ এনএম টর্ক উৎপন্ন হবে। রয়্যাল এনফিল্ডের তরফে প্রথম লিকুইড কুল্ড ইঞ্জিন সহ আসতে পারে বাইকটি। যা বোল্ট অন সাব-ফ্রেম সহ একটি ডবল ক্র্যাডেল ফ্রেমের উপর ভিত্তি করে আসবে। স্পাই ছবিতে দেখা গিয়েছে এতে থাকছে Showa-র ইউএসডি ফ্রন্ট ফর্ক সাসপেনশন এবং পেছনে মোনোশক ইউনিট। ট্রান্সমিশনের দায়িত্ব সামলাতে একটি ৬-স্পিড গিয়ারবক্স থাকবে।

Himalayan 450-এর সামনে ও পেছনের চাকায় থাকছে ডুয়েল চ্যানেল এবিএস সহ ডিস্ক ব্রেক। এর সামনে ২১ ইঞ্চি এবং পেছনে ১৭ ইঞ্চি হুইল দেওয়া হতে পারে। আকার আকৃতির দিক থেকে এটি তার ছোট ভাইয়ের সমান হতে পারে। দৈর্ঘ্য, প্রস্থ এবং উচ্চতা যথাক্রমে ২,১৯০ মিমি, ৮৪০ মিমি এবং ১,৩৬০ মিমি।

Royal Enfield Himalayan 450

প্রসঙ্গত, বাইকটির লঞ্চের সময়সূচি সম্পর্কে এখনও মুখ খোলেনি রয়্যাল এনফিল্ড। তবে জল্পনা চলছে চলতি বছরের দ্বিতীয়ার্ধে বাজারে পা রাখতে পারে Himalayan 450। বাজারে অ্যাডভেঞ্চার গোত্রের KTM 390 Adventure, BMW 310 GS এবং আসন্ন Hero 450 ADV-এর সাথে টক্কর নেবে এটি। RE Himalayan 450-এর দাম ২.৮ লক্ষ টাকার (এক্স-শোরুম) কাছাকাছি ধার্য করা হতে পারে।

আরও পড়ুন