Sherpa 650 নামে আসছে Royal Enfield এর নতুন বাইক, জেনে নিন ইঞ্জিন, ফিচার সম্পর্কে

Royal Enfield Sherpa 650 Specifications

মোটরবাইকের জগতে গ্রাহক সন্তুষ্টির দিক থেকে রয়্যাল এনফিল্ড (Royal Enfield) আজ অনেকটাই এগিয়ে। রেট্রো তকমা বজায় রেখে আধুনিকতার মেলবন্ধনে তারা লঞ্চ করে চলেছে একের পর এক বাইক। মাত্র কয়েক সপ্তাহ আগেই সুপার মিটিওর ৬৫০ (Super Meteor) উন্মোচন করেই তারা প্রিমিয়াম ক্রুজার বাইকের টু-হুইলারের আভাস দিয়েছে। আগামীতে ৩৫০ সিসি থেকে ৬৫০ সিসির মধ্যে আরও বেশ কয়েকটি নতুন মোটরসাইকেল লঞ্চ করার পরিকল্পনা রয়েছে চেন্নাই কেন্দ্রিক এই বাইক নির্মাতার। তার মধ্যে বেশ কিছু মডেল ইতিমধ্যেই টেস্টিং করছে ভারতবর্ষের আনাচে-কানাচে।

তবে এদের মধ্যে অন্যতম আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হল তাদের ৬৫০ সিসির নতুন একটি স্ক্র্যাম্বলার মোটরসাইকেল যার টেস্টিং ২০২২ এর শেষের দিকে শুরু হয়েছে। এখন সূত্রের দাবি, প্রায় সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়্যাল এনফিল্ডের এই স্ক্র্যাম্বলার বাইকটির নামকরণ করা হতে পারে Sherpa 650। আর সবচেয়ে বড় খবর হল এর ইঞ্জিন আন্ডারপিনিং এবং অন্যান্য যন্ত্রাংশ ও ফিচার সবকিছুই রয়্যাল এনফিল্ড এর ৬৫০ সিসির দুই যমজ ভাইয়ের (ইন্টারসেপ্টর-কন্টিনেন্টাল) থেকেই নেওয়া রবে।

রয়্যাল এনফিল্ড শেরপা ৬৫০-কে চালিকা শক্তি সরবরাহ করবে ৬৪৮ সিসির প্যারালাল টুইন ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিন থেকে উৎপাদিত পাওয়ার ও টর্ক যথাক্রমে ৪৭ বিএইচপি ও ৫২ এনএম। সাথে থাকবে ৬ ধাপযুক্ত গিয়ার বক্স এবং স্লিপার ক্লাচ। তবে দীর্ঘ রাস্তা সচ্ছন্দে পাড়ি দেওয়ার জন্য ক্রুজার মোটরবাইকের মতই এই ইঞ্জিনটিকেও বিশেষভাবে টিউন করা হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

ক্যামেরাবন্দি হওয়া ছবি থেকে জানা গিয়েছে, এই নতুন বাইকটির প্রটোটাইপ ভার্সনে সাসপেনশনের জন্য সামনের চাকায় ইউএসডি ফর্ক ও পিছনে ডুয়েল শক অ্যাবজর্ভার লাগানো রয়েছে। ব্রেকিং সিস্টেম হিসেবে উভয় চাকাতেই ডিস্ক ব্রেকের ব্যবহার করা হয়েছে। মডেলটির স্ট্যান্ডার্ড সংস্করণেই ডুয়েল চ্যানেল এবিএস উপলব্ধ থাকবে। সাথে স্পোক যুক্ত চাকা এবং ডুয়েল পারপাস টায়ার সংযুক্ত রয়েছে।

ডিজাইনের প্রসঙ্গে বলতে গেলে রয়্যাল এনফিল্ড শেরপা ৬৫০-র সামনে হাওয়াকে আটকানোর জন্য একটি ছোট উইন্ডস্ক্রিন লাগানো রয়েছে। তবে এটি হয়তো অতিরিক্ত অ্যাক্সেসরিজ প্যাকের মধ্যে পড়বে। উপরন্তু এই মডেলটি রয়্যাল এনফিল্ড এর প্রথম ৬৫০ সিসির সেগমেন্টে টু-ইন-ওয়ান এগজস্ট সিস্টেম যুক্ত মোটরবাইক। সামনে পুরনো ডিজাইনের গোলাকার হেডল্যাম্প সহ টিয়ার ড্রপ আকৃতির ফুয়েল ট্যাংক এবং একটানা চওড়া সিট লাগানো রয়েছে এতে।

এই নতুন স্ক্র্যাম্বলার বাইকটির উল্লেখযোগ্য ফিচারগুলির মধ্যে রয়েছে সেমি ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট কনসোল এবং ট্রিপার নেভিগেশন সিস্টেম সহ আরো অনেক কিছু। তবে এই মুহূর্তে রয়্যাল এনফিল্ড তাদের সবচেয়ে আলোচিত সুপার মিটিয়র ৬৫০-কে লঞ্চ করানোর ব্যাপারে সবচেয়ে তৎপর। গত বছর গোয়াতে অনুষ্ঠিত রাইডার ম্যানিয়ার সৌজন্যে ভারতের মাটি ছুঁয়েছে এই বাইকটি। Continental GT 650 এবং Interceptor 650-র মত একই ধরনের ৬৪৮ সিসির প্যারালাল টুইন ইঞ্জিন সংযুক্ত রয়েছে সুপার মিটিওরে। এছাড়াও আকর্ষণীয় রং এর সম্ভার এবং প্রচুর ধরনের ট্যুরিং অ্যাক্সেসরিজ মিলবে এর সাথে।