Homeঅটোকারবাইক ও স্কুটারএই ফিচারগুলি Royal Enfield-এ প্রথম, নতুন Super Meteor 650 যে যে কারণে কিনতেই হবে

এই ফিচারগুলি Royal Enfield-এ প্রথম, নতুন Super Meteor 650 যে যে কারণে কিনতেই হবে

পরশুদিন ভারতের বাজারে লঞ্চ হয়েছে Royal Enfield Super Meteor 650। ক্রুজার বাইকটি রয়্যাল এনফিল্ড -এর ফ্ল্যাগশিপ মডেল হিসেবে এসেছে। Interceptor 650 ও Continental GT 650-এর পর প্ল্যাটফর্মের ওপর ভিত্তি করে আসা মোটরসাইকেলটি হল এদেশে সংস্থার তৃতীয় ৬৫০ সিসি মডেল। এই বাইকে রয়েছে বেশ কিছু আকর্ষণীয় ফিচার। তার মধ্যে কয়েকটি সংস্থার বাইকে সর্বপ্রথম দেখা গিয়েছে। আসুন তবে Super Meteor 650 সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

Royal Enfield Super Meteor 650 নতুন ফ্রেম ও ডাইমেনশন

রয়্যাল এনফিল্ড সুপার মিটিওর ৬৫০ সম্পূর্ণ একটি নতুন ফ্রেমের উপর ভর করে এসেছে। যার নির্মাতা হল হ্যারিস পারফর্ম্যান্স নামক এক সংস্থা। যার মালিক খোদ রয়্যাল এনফিল্ড। মোটরবাইকটির ওজন ২৪১ কেজি। ফলে এটি সংস্থার সবচেয়ে ভারী বাইক। তবে মাটি থেকে সিটের উচ্চতা কম হওয়ার কারণে ওজন সামলানো সহজ হবে।

আবার সুপার মিটিওর ৬৫০-এর হুইলবেসের দৈর্ঘ্য অনেকটাই বাড়ানো হয়েছে, যা ১,৫০০ মিমি। এটি BMW GS 1250-এর চাইতে মাত্র ৪ মিমি কম। দীর্ঘ হুইলবেসের ফলে হাইওয়েতে চলার সময় অধিক স্টেবিলিটি প্রদান করবে।

Royal Enfield Super Meteor 650 ইউএসডি ফর্ক

বাইকে আপসাইড ডাউন ফর্ক রাইডারদের সুবিধা দেওয়ার মতোই একটি ফিচার। তবে যদি Showa ফর্ক পাওয়া যায়, তবে তো সোনায় সোহাগা। Super Meteor 650-তে এটিই দেওয়া হয়েছে। এটি নন-অ্যাডজাস্টেবল ইউনিট হলেও প্রিমিয়াম। সংশ্লিষ্ট সেগমেন্টে আর অন্য কোন বাইকে এই ফর্ক অফার করা হয় না। Kawasaki Vulcan, Z650 RS, Interceptor, GT 650-এও ওই ইউএসডি ফর্ক নেই। তবে Benelli 502C-তে ইনভার্টেড ফর্ক দেওয়া হলেও সেটি Showa-র নয়।

Royal Enfield Super Meteor 650 চতুর্দিকে এলইডি লাইট

বর্তমানে বেশিরভাগ ক্রেতারা এলইডি যুক্ত টু-হুইলার কিনছেন। কারণ এগুলি শক্তি সঞ্চয় করতে সক্ষম। আবার হ্যালোজেন লাইটের তুলনার এর দেখানোর ক্ষমতা অনেকটাই বেশি। যে প্রথা অনুসরণ করল রয়্যাল এনফিল্ড। Super Meteor 650-এর সামনে ও পেছনে এলইডি হেডলাইট ও টেল ল্যাম্প দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সেগমেন্টে Benelli-র ক্রুজার ছাড়া আর কোনও মডেলে এলইডি লাইট উপলব্ধ নয়।

Royal Enfield Super Meteor 650 ট্রিপের জন্য সহায়ক

Super Meteor 650-এ সেগমেন্টের প্রথম ট্রিপার নেভিগেশন অফার করেছে রয়্যাল এনফিল্ড। এটি কেবলমাত্র বাইকটির গ্র্যান্ড ট্যুরার ভ্যারিয়েন্টে স্ট্যান্ডার্ড ফিচার হিসেবে দেওয়া হয়েছে। হাইওয়েতে লং রাইডের ক্ষেত্রে এটি চালককে বিশেষভাবে সহায়তা করবে।

Royal Enfield Super Meteor 650 ইঞ্জিন এবং গিয়ারবক্স

এই বিভাগে Royal Enfield Super Meteor 650 হল একমাত্র বাইক যাতে এয়ার ও অয়েল কুল্ড ইঞ্জিন দেওয়া হয়েছে। এদিকে Kawasaki Vulcan, Z650 RS, Benelli 502C-তে রয়েছে এয়ার কুল্ড ইঞ্জিন। বাইকটির ইঞ্জিন থেকে সর্বোচ্চ ৪৭ বিএইচপি শক্তি এবং ৫২ এনএম টর্ক উৎপন্ন হবে। যার সাথে সংযুক্ত ৬-স্পিড ম্যানুয়াল গিয়ারবক্স।

আরও পড়ুন