Homeঅটোকারবাইক ও স্কুটারiPhone 14-এর দামেই বাজারে Royal Enfield Yamaha-দের এই দুর্ধর্ষ বাইকগুলি পাবেন, ভাবুন তাহলে ফোন কিনবেন নাকি গাড়ি!

iPhone 14-এর দামেই বাজারে Royal Enfield Yamaha-দের এই দুর্ধর্ষ বাইকগুলি পাবেন, ভাবুন তাহলে ফোন কিনবেন নাকি গাড়ি!

Apple iPhone 14 এই মুহূর্তে বেশ সরগরম গোটা বিশ্ব। সবার কাছে এক অমোঘ আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু আইফোনের ওই নতুন সংস্করণ। ভারতের বাজারে নয়া স্মার্টফোনটির দাম শুরু হয়েছে ১.২৯ লাখ থাকে। আর সবচেয়ে দামী ভ্যারিয়েন্টের মূল্য ১.৭৯ লাখ। আচ্ছা এবার যদি আপনাকে প্রশ্ন করা হয় অত টাকা দিয়ে আইফোন কেনার পরিবর্তে যদি একটি বাইক কিনতে চান তবে কেমন হয়? প্রশ্নটা খানিকটা হাস্যকর হলেও উল্লিখিত প্রাইস রেঞ্জের মধ্য একাধিক দুর্দান্ত সব মোটরসাইকেল উপলব্ধ। তাহলে নেওয়া যাক আইফোন ১৪ এর পরিবর্তে কেনা যায় বাজারে এমন সেরা পাঁচটি মোটরসাইকেলের তালিকা।

Royal Enfield Hunter 350

আগস্টে ভারতবর্ষ সহ বিশ্বের দরবারে আত্মপ্রকাশ করেছে রয়্যাল এনফিল্ড এর সবচেয়ে সস্তা রোডস্টার মডেল হান্টার ৩৫০। এমনকি এটি সংস্থার সবচের হালকা বাইক। ক্লাসিকের পর রয়্যাল এনফিল্ডের দ্বিতীয় সর্বাধিক বিক্রিত বাইক হয়ে উঠেছে এটি। তিনটি আলাদা ভ্যারিয়েন্টে উপলব্ধ। সেই অনুযায়ী বাইকটির এক্স শোরুম মূল্য ১.৪৯ লাখ থেকে ১.৬৮ লাখ পর্যন্ত বিস্তৃত।

TVS Ronin

বিপুল জন প্রত্যাশা নিয়ে কয়েক মাস আগেই লঞ্চ হয়েছে টিসিএস রনিন। সাবেকি ডিজাইন আর স্ক্র্যাম্বলার লুকের এই বাইকটি নিয়ে এক নতুন অধ্যায় শুরু করল তামিলনাড়ু কেন্দ্রিক এই নির্মাতা। উপরন্তু এতে রয়েছে আধুনিক বৈশিষ্ট্য ও বিভিন্ন ধরনের রাইডিং মোড। ১.৪৯ লাখ টাকা থেকে শুরু এই বাইকটি অ্যাপেল আইফোন ১৪ এর পরিবর্ত হিসেবে নেওয়া যেতেই পারে।

Yamaha FZ25

নেকেড স্পোর্টস ডিজাইনের ইয়ামাহা FZ25 ইতিমধ্যেই এদেশের বাজারে নিজের জাত চেনাতে সক্ষম হয়েছে। আধুনিক ডিজাইন ও ইয়ামাহার বিশ্বস্ত রিফাইন্ড ২৫০ সিসি ইঞ্জিন এই বাইকটির মূল আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। সাথে রয়েছে ডুয়েল চ্যানেল এবিএস এর মতো সেফটি ফিচার্স। বর্তমানে বাইকটির এক্স শোরুম মূল্য ১.৪৭ লাখ টাকা।

Bajaj Pulsar 250 Twins

বাজাজের আইকনিক পালসার সিরিজকে নবজন্ম প্রদান করেছে পালসার N250 ও F250। প্রথমটি ২৫০ সিসির নেকেড স্ট্রিট ফাইটার। আর দ্বিতীয়টি ফুল ফেয়ারিং যুক্ত সংস্করণ। উভয় ক্ষেত্রেই একই শক্তিশালী DTSi ইঞ্জিন ব্যবহার করেছে বাজাজ। ডুয়েল চ্যানেল এবিএস কিংবা প্রজেক্টর হেডলাইট সেটআপ সবকিছু মিলিয়ে বাস্তবিক অর্থেই এক ধামাকা পালসারের এই দুটি মডেল। বাইক দুটির এক্স শোরুম মূল্য শুরু হচ্ছে ১.৪৪ লাখ টাকা থেকে।

Honda Hornet 2.0

দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে ভারতবর্ষের অলিগলি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে হোন্ডার এই বাইকটি। ডিজিটাল ইন্সট্রুমেন্ট ক্লাস্টার, এলইডি লাইটিং, ইউএসডি ফর্ক এই সব কিছুই Hornet 2.0 কে এতটা জনপ্রিয় করে তুলতে সাহায্য করেছে। বাইকটির মূল চালিকাশক্তি ১৮৪. ৪ সিসির সিঙ্গেল সিলিন্ডার এয়ার কুল্ড ইঞ্জিন। ১.৩৪ লাখ (এক্স শোরুম) টাকায় উপলব্ধ Hornet 2.0।

আরও পড়ুন